Home | ফটো সংবাদ | সংঘর্ষের জেরে নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের হল বন্ধ

সংঘর্ষের জেরে নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের হল বন্ধ

স্টাফ রির্পোটার : ছাত্রলীগের দুপক্ষের সংঘর্ষের জেরে নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাষাশহীদ আবদুস সালাম হল অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। গতকাল রোববার দিবাগত রাত দুইটার দিকে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন হল বন্ধের নির্দেশ দেয়। পরে আজ সোমবার ভোররাত চারটার দিকে পুলিশ ও বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের সহায়তায় ছাত্ররা হল ত্যাগ করেন।

গতকাল রাতের ওই সংঘর্ষের ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয়ের আব্দুল মালেক উকিল হলের প্রভোস্ট ফিরোজ আহমেদসহ দুই পক্ষের অন্তত ১৫ জন আহত হয়েছেন। এর মধ্যে গুরুতর আহত প্রভোস্ট ফিরোজ আহমেদকে রাতেই ঢাকার নিউরোসায়েন্স হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে। এ ছাড়া আহত ছাত্রদের মধ্যে কয়েকজনকে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অন্যদের স্থানীয়ভাবে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর নেওয়াজ মোহাম্মদ বাহাদুর বলেন, হলে সিনিয়র ছাত্রদের সামনে জুনিয়র ছাত্রের ধুমপানকে কেন্দ্র করে গত শনিবার রাতে ছাত্রলীগের দুটি পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ ও কয়েকটি কক্ষ ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে। এরপর ঘটনা তদন্তে পৃথক দুটি কমিটি গঠন করা হয়। এরই মধ্যে গতকাল বিকেলে তাঁরা জানতে পারেন, ছাত্রলীগের বিবদমান দুটি পক্ষ সন্ধ্যার পর পুনরায় সংঘর্ষে লিপ্ত হতে পারে। এ পরিস্থিতিতে সন্ধ্যায় তিনি হল প্রশাসনের কর্মকর্তাদের নিয়ে হলের অফিসে অবস্থান করে ছাত্রলীগের দুটি পক্ষকে নিয়ে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করার চেষ্টা করেন। কিন্তু রাত ১০টার দিকে হলে অবস্থানকারী ছাত্রলীগের দুটি পক্ষ সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। তারা এ সময় হলে প্রায় প্রতিটি কক্ষ ভাঙচুর ও তছনছ করে।

প্রক্টর জানান, উদ্ভুত পরিস্থিতিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য দিদারুল আলম ভাষাশহীদ আবদুস সালাম হল বন্ধের সিদ্ধান্ত দেন। পরে রাত দুইটার দিকে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে ভোররাত চারটার মধ্যে হল খালি করে দিতে বলা হয়। সে অনুযায়ী বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের উপস্থিতিতে ভোররাত চারটার দিকে ছাত্রদের হল থেকে বের করে দেওয়া হয়।

শহীদ আবদুস সালাম ছাত্র হলের প্রভোস্ট কাওসার হোসেন বলেন, ভোররাতে হল খালি হওয়ার পর ফটকে তালা ঝুলিয়ে দেওয়া হয়। আজ দুপুর নাগাদ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের উপস্থিতিতে হলে তল্লাশি চালানো হবে। তিনি বলেন, ক্যাম্পাসের পরিস্থিতি শান্ত রাখতে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

রানীশংকৈলে ভাঙা কালভার্টে মরণফাঁদ

ঠাকুরগাঁওয়ের রানীশংকৈলে ভাঙা কালভার্টে ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করতে হচ্ছে পথচারীদের। এটি উপজেলার ...

সকলের সহযোগিতার পেলে মাদক নির্মুল করা সম্ভব -ওসি এসএম জাহিদ ইকবাল

ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশংকৈল উপজেলার ইএসডিও প্রকল্পের আয়োজনে মাদক হ্রাস, আইনশৃংখলা ও বিট পুলিশিং ...