ব্রেকিং নিউজ
Home | আন্তর্জাতিক | ভারত-পাকিস্তান যুদ্ধ হলে কে জিতবে?

ভারত-পাকিস্তান যুদ্ধ হলে কে জিতবে?

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক : ভারত-পাকিস্তান দ্বন্দ্ব বেশ পুরনো। ১৯৪৭ সালে ১৫ আগস্ট স্বাধীনতার ফলে ভারত প্রজাতন্ত্র ও ইসলামী প্রজাতন্ত্রী পাকিস্তান দুটি স্বাধীন রাষ্ট্রের বিকাশ ঘটে। তারপর থেকে দুটি দেশের মধ্যে বিভিন্ন যুদ্ধ হয়। তার মধ্যে বাংলাদেশ-পাকিস্তান যুদ্ধ ১৯৭১ ছাড়া সকল যুদ্ধই কাশ্মীর সমস্যাকে কেন্দ্র করে ঘটেছে।

অনেকেই মনে করছেন কাশ্মীরকে ঘিরে আবারো যুদ্ধে জড়াতে চলেছে দুই প্রতিবেশি দেশ। যুদ্ধ যদি বেধেই যায় তবে সেই যুদ্ধে কে জিতবে এমন প্রশ্ন অনেকের মনে। চলুন তবে দেখে আসি ক্ষেপণাস্ত্র ও পারমাণবিক অস্ত্র, সেনা ও নৌ শক্তিতে কারা এগিয়ে।

ক্ষেপণাস্ত্র ও পারমাণবিক অস্ত্র কার বেশি?

ভারত ও পাকিস্তান উভয় দেশের হাতেই আছে ব্যাপক বিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্র। এগুলো পারমাণবিক অস্ত্র। ভারতের আছে ৯ ধরনের অপারেশনাল ক্ষেপণাস্ত্র।

ওয়াশিংটনের সেন্টার ফর স্ট্র্যাটেজিক অ্যান্ড ইন্টারন্যাশনাল স্টাডিজের (সিএসআইএস) তথ্যমতে, এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য ক্ষেপণাস্ত্র হলো অগ্নি-৩। এর পাল্লা ৩০০০ কিলোমিটার থেকে ৫০০০ কিলোমিটার পর্যন্ত।

অন্যদিকে পাকিস্তানের ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচি গড়ে উঠেছে চীনের সহায়তায়। তাদের রয়েছে মোবাইল শর্ট এবং মধ্যম পাল্লার অস্ত্র। সিএসআইএস বলছে, এসব অস্ত্র ভারতের যেকোনো স্থানে হামলা চালাতে সক্ষম।

তাদের হাতে রয়েছে যেসব ক্ষেপণাস্ত্র তার মধ্যে সবচেয়ে দীর্ঘ পাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র হলো শাহিন-২। শাহিন-২ পাকিস্তানের সবচেয়ে বড় পাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র, যেটি দুই হাজার কিলোমিটার দূরের লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানতে সক্ষম।

এসআইপিআরআইয়ের তথ্য অনুসারে, পাকিস্তানের ১৪০ থেকে ১৫০টি পারমাণবিক যুদ্ধাস্ত্র আছে। অন্যদিকে ভারতের আছে ১৩০ থেকে ১৪০টি।

কোন দেশের সেনাবাহিনীর শক্তি কত?

আইআইএসএসের তথ্যে বলা হয়েছে, ১২ লাখ সদস্যের শক্তিশালী সামরিক বাহিনী আছে ভারতের। বাহিনীর সহায়তায় আছে যুদ্ধক্ষেত্রে মোতায়েনযোগ্য ৩ হাজার ৫৬৫টির বেশি ট্যাংক, ৩ হাজার ১০০টি পদাতিক বাহিনীর যুদ্ধযান, ৩৩৬টি সশস্ত্র বাহিনীর যান এবং কামান আছে ৯ হাজার ৭১৯টি।

পাকিস্তানের সেনাবাহিনী অপেক্ষাকৃত ছোট। বাহিনীর সেনাসদস্য ৫ লাখ ৬০ হাজার। ট্যাংক ২ হাজার ৪৯৬টি, সশস্ত্র পরিবহন যান ১ হাজার ৬০৫টি এবং আর্টিলারি বন্দুক ৪ হাজার ৪৭২টি।

তবে এ মাসে এক প্রতিবেদনে আইআইএসএস এ-ও বলেছে, ভারতের কাছে সেনাসদস্য বেশি থাকা সত্ত্বেও তাদের সক্ষমতা কম। কারণ, তাদের পর্যাপ্ত লজিস্টিক, রক্ষণাবেক্ষণ, গোলাবারুদ ও খুচরা যন্ত্রাংশের ঘাটতি রয়েছে।

বিমানবাহিনীর সদস্য কার কত?

ভারতের বিমানবাহিনীর সদস্য ১ লাখ ২৭ হাজার ২০০। যুদ্ধবিমান ৮১৪টি। ভারতের বিমানবাহিনী উল্লেখযোগ্যভাবে বড়, তবে দেশটির যুদ্ধবিমানের বহর নিয়ে উদ্বেগ রয়েছে।

ভারতীয় কর্মকর্তারা বলেছেন, তাদের বিমানবাহিনীতে আছে রাশিয়ার পুরোনো জেট। যেমন মিগ-২১। এগুলো ১৯৬০-এর দশকে প্রথম ব্যবহৃত হয়েছিল। এসব জেট বিমান শিগগিরই সরিয়ে ফেলা হবে।

অন্যদিকে ২০৩২ সাল নাগাদ ভারতের হাতে আসতে পারে ২২টি স্কোয়াড্রন। পাকিস্তানের হাতে আছে ৪২৫টি যুদ্ধবিমান। এর মধ্যে রয়েছে চীনা প্রযুক্তির এফ-৭ পিজি এবং আমেরিকান এফ-১৬ ফাইটিং ফ্যালকন জেট।

আইআইএসএস ২০১৯ সালের এক মূল্যায়নে বলেছে, পাকিস্তানের বিমানবাহিনী আরও সমৃদ্ধ হচ্ছে। ভারতের বিমানবাহিনী ১২টি মিরেজ ২০০০ জেট বিমান মঙ্গলবার পাকিস্তানে হামলায় অংশ নেয়। ১ হাজার কেজি বোমা বর্ষণ করে অনেক স্থাপনা গুঁড়িয়ে দেওয়ার দাবি করেছে ভারত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

হাতীবান্ধায় কীটনাশক দিয়ে হাঁস মারার অভিযোগ

লালমনিরহাট প্রতিনিধি : লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলায় কীটনাশক দিয়ে ৩০ টি হাঁস মেরে ফেলার ...

ভারতের গ্লোবাল ত্রিম‍্যাপ বিজনেস এ‍্যাওয়ার্ডের জন‍্য মনোনীত মোঃ সিরাজুল মনির

ভারতের Global triumph foundation এর business excellence conclave & award-2021 এর মনোনীত ...