ব্রেকিং নিউজ
Home | আন্তর্জাতিক | বিচারপতিদের ‘মাই লর্ড’, ‘ইয়োর অনার’ আর নয়

বিচারপতিদের ‘মাই লর্ড’, ‘ইয়োর অনার’ আর নয়

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক : বিচারপতিদের সম্বোধনের ক্ষেত্রে ব্রিটিশ প্রথা বাতিলের সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজস্থান হাইকোর্ট। এ বার থেকে বিচারপতিদের ‘মাই লর্ড’ বা ‘ইয়োর অনার’ বলে সম্বোধন করায় নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে আদালত। এই মর্মে একটি নোটিশ জারি করেছেন রাজস্থান হাইকোর্টের রেজিস্ট্রার জেনারেল সতীশ কুমার শর্মা।

রাজস্থান হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি রবীন্দ্র ভট্টের নেতৃত্বে এক বৈঠকে সর্বসম্মতিক্রমে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ভারতীয় সংবিধানে উল্লিখিত সাম্যের নীতিকে মর্যাদা দিতেই এই সিদ্ধান্ত বলে জানানো হয়েছে ওই নোটিশে। আদালতের সমস্ত আইনজীবী ও শুনানিতে উপস্থিত সমস্ত ব্যক্তির ক্ষেত্রেই এই নির্দেশ কার্যকরী হবে।

মাই লর্ড’ বা ‘ইয়োর অনার’ সম্বোধনে নিষিদ্ধ হলে বিচারপতিদের যাতে অসম্মান না করা হয়, সে দিকেও খেয়াল রেখেছে আদালত। নোটিশে জানানো হয়েছে, ‘মাই লর্ড’ বা ‘ইয়োর অনার’-এর পরিবর্তে তাদের ‘স্যার’ বলে সম্বোধন করা যেতে পারে। ২০১৪ সালে এক জনস্বার্থ মামলার শুনানিতে বিচারপতি এইচ এল দাত্তু ও বিচারপতি এস এ বোবদের বেঞ্চ জানিয়েছিল, বিচারপতিদের সম্মান জানানোটা জরুরি হলেও সে জন্য তাদের ‘মাই লর্ড’ বা ‘ইয়োর অনার’ বলে সম্বোধন করাটা বাধ্যতামূলক নয়। আদালতের এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছেন আইনজীবীরা। ভারতীয় বিচারব্যবস্থায় ব্রিটিশ যুগের এই প্রথা অনুসরণ করা হলেও তা যে আধুনিক যুগে অচল, তা মনে করিয়ে দিয়েছেন তাঁরা। তাঁদের মতে, এ ধরনের রীতি কেবল দাস প্রথাকেই মনে করিয়ে দেয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

আইনজীবীরা বসে পরবর্তী করণীয় নির্ধারণ করবেন:জয়নুল আবেদীন

স্টাফ রির্পোটার :জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায় বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার জামিন আবেদন ...

রোহিঙ্গা গণহত্যার মামলায় আজ যুক্তিতর্ক তুলে ধরবে গাম্বিয়া ও মিয়ানমার

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক : নেদারল্যান্ডসের হেগে আন্তর্জাতিক বিচারিক আদালতে রোহিঙ্গা গণহত্যার মামলায় আজ ...