Home | আন্তর্জাতিক | বিএনপির সমাবেশে পুলিশের মুহুর্মুহু গুলি, আমান-সালাম গুলিবিদ্ধ, ফখরুলসহ আহত দেড় শতাধিক

বিএনপির সমাবেশে পুলিশের মুহুর্মুহু গুলি, আমান-সালাম গুলিবিদ্ধ, ফখরুলসহ আহত দেড় শতাধিক

স্টাফ রিপোর্টার, ৬ মার্চ, বিডিটুডে ২৪ডটকম : রাজধানীর পল্টন, বিজয়নগর ও কাকরাইল রণক্ষেত্রে পরিণত হয়েছে। বিএনপি কার্যালয় লক্ষ্য করে পুলিশ মুহুর্মূহ গুলি ছুড়ছে। পুরো এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। জনশূন্য হয়ে পড়েছে রাস্তা। বিএনপি কার্যালয় ঘিরে রেখেছে পুলিশ।

এ সময় বিএনপির সমাবেশ চলছিল। পুলিশ আচমকা বিজয় নগরে হোটেল একাত্তরের সামনে থেকে গুলি করতে করতে বিএনপি কার্যালয়ের সামনের সমাবেশস্থলে আসে। এরপর সেখান থেকে একজনকে আটক করার পর বিএনপি নেতাকর্মীরা হৈ হৈ করে ওঠেন। তখন পুলিশ বিএনপির সমাবেশ ও কার্যালয় লক্ষ্য করে গুলি ছুড়তে শুরু করলে সমাবেশ পন্ড হয়ে যায়। নেতারা কার্যালয়ের ভেতরে অবস্থান নেন। কর্মীরা ছোটাছুটি করে বিভিন্ন গলির ভেতরে অবস্থান নেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, এ সময় পুলিশের সঙ্গে বিএনপি নেতাকর্মীদের কোনো সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেনি। পুলিশ সমাবেশ লক্ষ্য করে ছররা গুলি ছুড়েছে। এ সময় বেশ কয়েকজন নেতা আহত হয়েছেন।

তবে পুলিশ বলছে, বিজয় নগরের দিক থেকে এসে জামায়াত শিবিরের নেতাকর্মীরা বিএনপির সমাবেশে যুক্ত হয়ে যায় এবং ককটেল বিস্ফোরণ ঘটায়। এ অবস্থায় নিরাপত্তার স্বার্থে বিএনপি নেতাকর্মীদের টিয়ার গ্যাস মেরে সরিয়ে দেয়া হয়েছে।

এ ঘটনায় গুলিবিদ্ধ হয়েছেন যুগ্ম মহাসচিব আমান উল্লাহ আমান, আহত হয়েছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান, দলের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য এমকে আনোয়ার, যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, আমান উল্লাহ আমান ও অর্থ বিষয়ক সম্পাদক আব্দুস সালাম। তাদের মাথা থেকে রক্ত পড়তে দেখা গেছে।

এছাড়া, যুবদলের সিনিয়র সহসভাপতি আব্দুস সালাম আজাদ ছররা গুলিতে আহত এবং যুগ্মসাধারণ সম্পাদক গোলাম রব্বানি গুলিবিদ্ধ হয়েছেন বলে জানা গেছে। তাদের হাসপাতালে নেয়া হয়েছে।

বিকলে ৫টা ৫ মিনিটের দিকে আঞ্জুমানে মফিদুল ইসলামের একটি অ্যাম্বুলেন্স বিএনপি কার্যালয়ের সামনে এসেছে।

এছাড়া দ্য ইন্ডিপেন্ডন্ট পত্রিকার ফটো সাংবাদিক জুলহাস আহমেদ নাঈম, প্রথম আলোর সাজিদ হোসেন, নিউএজের মিন্টু, বাংলানিউজের দেলোয়ার হোসেন বাদল ও নয়াদিগন্তের পিপুল আহত হয়েছেন। পথচারী হোসেন তালুকদার চোয়ালে গুলিবিদ্ধ হয়েছেন। তিনি দাবি করেছেন, পুলিশ তার চোয়ালে বন্দুক ঠেকিয়ে গুলি করেছে। পুলিশ তাকে গাড়িতে করে তুলে নিয়ে গেছে।

পুলিশের সাঁজোয়া যান এবং সাধারণ পুলিশ এসব গুলি ছুড়ছে।

এরইমধ্যে পুলিশ কয়েকজনকে আটক করেছে।

বিএনপি কার্যালয়ের সামনে থেকে দলের নেতাকর্মীরা ছত্রভঙ্গ হয়ে গেছে। সিনিয়র নেতারা কার্যালয়ে ভেতরে অবরুদ্ধ হয়ে পড়েছেন।

এর আগে নাশকতা সৃষ্টির আশঙ্কায় বিএনপি-জামায়াত-শিবিরের সংগঠিত হওয়ার খবরে বিজয়নগর মোড় থেকে পল্টন মোড় পর্যন্ত রাস্তা বন্ধ করে দেয় পুলিশ।

x

Check Also

বাংলাদেশের পতাকার রঙে আলোকিত হলো অস্ট্রেলিয়ার ব্রিসবেন

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক : অস্ট্রেলিয়ার কুইন্সল্যান্ডের রাজধানী ব্রিসবেনের দুটি মূল স্থাপনা স্টোরি ব্রিজ এবং ...

অবশেষে বৈঠকে বসছে ভারত ও পাকিস্তান

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক : দুই বছর পর সিন্ধুর জল বণ্টন নিয়ে মঙ্গলবার (২৩ মার্চ) ভারতের সঙ্গে ...