Home | সারা দেশ | বালিয়াডাঙ্গীতে ইউপি নির্বাচনে প্রার্থী হচ্ছেন তরুণরা

বালিয়াডাঙ্গীতে ইউপি নির্বাচনে প্রার্থী হচ্ছেন তরুণরা

ঠাকুরগাঁও বালিয়াডাঙ্গি উপজেলায় এবার তফসিল ঘোষণার পর থেকে ইউপি নির্বাচনে প্রার্থীতার জন্যে প্রস্তুত হতে দেখা যাচ্ছে তরুণদের। এমনকি সম্ভাব্যের তালিকায় এগিয়ে আছে এই তরুণরাই। এসকল প্রার্থীদের বয়স ২৭ থেকে ৩৩ এর মাঝে।

তৃতীয় ধাপের ইউপি নির্বাচনের তফসিলে রয়েছে বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার ৮টি ইউনিয়ন। গত ১৪ অক্টোবর নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর থেকেই উপজেলা জুড়ে শুরু হয় নির্বাচনী আমেজ।

বুধবার (২০ অক্টোবর) বালিয়াডাঙ্গি নির্বাচন অফিসের সর্বশেষ তথ্যমতে উপজেলাটিতে ৮ ইউপিতে ০৯ জন আগ্রহী তরুণ চেয়ারম্যান প্রার্থী মনোনয়ন সংগ্রহ করেছেন বলে জানা গেছে। সেইসাথে তরুণদের প্রার্থী হতে উৎসাহী করছে ভোটাররা।

এদের মধ্যে বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা সাবেক ছাত্রলীগের সভাপতি মমিনুল ইসলাম সুমন, সাধারণ সম্পাদক গোলাম রব্বানী মিয়া, লাহিড়ী আঞ্চলিক শাখার সভাপতি মোাশারফ হোসেন ও ধনতলা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি দুলাল রব্বানী।

উপজেলার চাড়োল ইউনিয়নে দেখা যায়, সেখানে মোসারফ হোসেন নামের এক তরুণ ছেলে নিজের প্রার্থী হবার বিষয়ে এলাকায় ঘোষণা দিয়েছেন। তিনি জানান, আমি চেয়ারম্যান প্রার্থী হবার কথা জানানোর পর থেকেই ব্যাপক সাড়া পেয়েছি। বিশেষ করে তরুণরা আমার সাথে মিলে এলাকার বিভিন্ন উন্নয়ন মূলক কাজে সহযোগীতা করছে। আশা করি এলাকার সকল তরুণ ও প্রবীণের সহায়তায় এবার আমি চেয়ারম্যান নির্বাচিত হবো।

মোসারফ নিজের তারুণ্যের মাধ্যমে এলাকার তরুণদের সাথে নিয়ে ইউনিয়নের উন্নয়নে ভূমিকা রাখতে পারবেন বলে বিশ্বাস করেন।

উপজেলার ধনতলা ইউনিয়নের তরুণ প্রার্থী দুলাল রব্বানীকেও দেখা যাচ্ছে দলীয় নৌকা প্রতীক পেতে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। তিনি নিজের জনপ্রিয়তাকে পুঁজি করে এবার নির্বাচনে কাজ করতে চান। এছাড়াও বড়বাড়ি ইউপি থেকে মমিনুল ইসলাম সুমন, পলাশবাড়ী ইউনিয়ন থেকে গোলাম রব্বানীসহ বাকিরাও নিজ প্রার্থিতায় চেয়ারম্যান হতে আত্মবিশ্বাসি।

তরুণদের প্রার্থী হবার বিষয়টিকে সাধুবাদ জানিয়ে প্রবীণ রাজনীতিবিদ মনসুর জানান, এরা তারুণ্যকে কাজে লাগিয়ে তার ইউনিয়নকে আরো এগিয়ে নেবার কাজ করতে পারবে। এলাকার তরুণ উদ্যোগতা সৃষ্টি ও মেধা যাচাইয়ে বিশেষ ভূমিকা রাখতে পারবে।

তিনি বলেন, একজন তরুণ প্রতিনিধি পাওয়াটা সেই এলাকার যুব সমাজের জন্যে একটা বাড়তি পাওয়া। একজন তরুণ নতুন আইডিয়া নিয়ে কাজ করতে পারে। অন্যান্য তরুণদের চাহিদা বুঝে পরামর্শ প্রদান করতে সহায়ক হন।

ঠাকুরগাঁও জেলার প্রবীণ রাজনীতিবিদ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাদেক কুরাইশি জানান, প্রতিটি নির্বাচনেই এখন তরুণ প্রার্থী বেড়ে চলেছে। এটা ভালো দিক। বর্তমান সরকারও দেশের উন্নয়নের অগ্রযাত্রা অব্যাহত রাখতে তরুণদের নিয়ে কাজ করতে চান। তরুণরাই দেশের ভবিষ্যৎ। তাদের নিয়ে দেশের উন্নায়নে আরও বেশি কাজ করা সম্ভব।

আনোয়ার হোসেন আকাশ,রাণীশংকৈল প্রতিনিধি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

Avast Password Extendable For Stainless-

An Avast Password extension for Stainless- can be downloaded in the Avast ...

ঠাকুরগাঁওয়ে শিশুদের মাঝে খাদ্য বিতরণ

আদিবাসী এবং পথশিশুদের এক বেলা খাদ্য (খিচুড়ি) বিতরণ করতে পেরে নিজেকে ধন্য মনে ...