ব্রেকিং নিউজ
Home | আন্তর্জাতিক | পাকিস্তানের সঙ্গে কিসের কথা কাশ্মীর নিয়ে : রাজনাথ সিং

পাকিস্তানের সঙ্গে কিসের কথা কাশ্মীর নিয়ে : রাজনাথ সিং

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক : ১৯৪৭ সালে ব্রিটিশ উপনিবেশ থেকে স্বাধীনতা লাভের পর ভারত-পাকিস্তান তিনটি যুদ্ধের মধ্যে দুটি অনুষ্ঠিত হয়েছে কাশ্মির ইস্যুতে। গত ৫ আগস্ট ভারতীয় সংবিধানের ৩৭০ অনুচ্ছেদ বাতিলের মধ্য দিয়ে কাশ্মিরের স্বায়ত্তশাসনের অধিকার ও বিশেষ মর্যাদা কেড়ে নেয় বিজেপি নেতৃত্বাধীন ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার।

এর প্রতিবাদে ভারতের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক হ্রাস করাসহ ইসলামাবাদে নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনারকে বহিষ্কার করেছে পাকিস্তান। দুই দেশের সীমান্তে অতিরিক্ত সেনা মোতায়েন করা হয়েছে। কাশ্মির সীমান্তে চলছে টানটান উত্তেজনা। একইসঙ্গে সব ধরনের দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্য চুক্তি স্থগিত ও ভারতের স্বাধীনতা দিবসকে কালো দিবস হিসেবে পালন করেছে পাকিস্তান।

ভারতের প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং বলেছেন, পাকিস্তানের সঙ্গে কোনো আলোচনা হলে, এখন তা পাক-অধিকৃত কাশ্মীর নিয়ে হবে। ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীর বিষয়ে তিনি বলেছেন, কাশ্মীর নিয়ে পাকিস্তানের সঙ্গে কিসের কথা?

অপরদিকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির দফতরের প্রতিমন্ত্রী জিতেন্দ্র সিং এক টুইট বার্তায় বলেন, পাক-অধিকৃত কাশ্মীরকে ভারতের অন্তর্ভুক্ত করার বিষয়ে সর্বসম্মতি জানিয়েছে সংসদ। তিনি লিখেছেন, ঈশ্বরের কাছে প্রার্থনা করি জীবদ্দশায় যেন এটা দেখে যেতে পারি।

এতদিন ভারতের অবস্থান ছিল কাশ্মীরের দ্বিপাক্ষিক বিষয়। তা নিয়ে অন্য কোনও দেশ বা আন্তর্জাতিক মঞ্চের নাক গলানোয় নয়াদিল্লির আপত্তি থাকলেও পাকিস্তানের সঙ্গে আলোচনায় ভারতের আপত্তি ছিল না। কিন্তু রাজনাথ সিং জোরালো ভাবেই বলেছেন যে, পাকিস্তান নিজের মাটিতে ভারতবিরোধী সন্ত্রাসে মদত দেওয়া বন্ধ করলেই পাকিস্তানের সঙ্গে আলোচনা হতে পারে।

কিন্তু আলোচনা হলে তা পাক-অধিকৃত কাশ্মীর নিয়েই হবে। ভারতের কাশ্মীর নিয়ে নয়। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ সংসদে ‘পাক-অধিকৃত কাশ্মীরের জন্য প্রাণ দিয়ে দেব’ বলে মন্তব্যের পর থেকেই বিজেপি প্রচার করছে যে, এবার নরেন্দ্র মোদি সরকার পাক-অধিকৃত কাশ্মীর ভারতের দখলে নিয়ে আসবে।

মাত্র দু’দিন আগে রাজনাথ সিং পরমাণু অস্ত্র ব্যবহার নিয়ে মোদি সরকারের নতুন অবস্থানের ইঙ্গিত দিয়েছেন। এতদিন
পর্যন্ত আগে থেকে পরমাণু অস্ত্র ব্যবহার না করার নীতি ছিল ভারতের। কিন্তু সম্প্রতি রাজনাথ সিং বলেন, এতদিন এই নীতি মানা হলেও ভবিষ্যতে কী হবে, তা পরিস্থিতির উপর নির্ভর করছে।

কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বাতিলের পর থেকেই পাকিস্তানের সঙ্গে ভারতের নতুন করে উত্তেজনা শুরু হয়েছে। রাজনাথ সিং বলেন, পাকিস্তান সবার দরজায় কড়া নেড়ে সাহায্য চাইছে। যদিও যুক্তরাষ্ট্র তাদের বলে দিয়েছে যে, এ বিষয়ে ভারতের সঙ্গেই আলোচনায় বসতে হবে। তার দাবি, পাকিস্তান ভারতে ভাঙন ধরাতে চাইলেও প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি তা কখনই হতে দেবেন না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে ২২ অক্টোবর জনসমাবেশের ডাক জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের

স্টাফ রির্পোটার : রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে ২২ অক্টোবর জনসমাবেশের ডাক দিয়েছে ড. ...

সম্রাটকে র‍্যাবের কাছে হস্তান্তর ডিবির

স্টাফ রির্পোটার :  রিমান্ডের প্রথম দিনেই যুবলীগ ঢাকা মহানগর দক্ষিণের বহিষ্কৃত সভাপতি ...