ব্রেকিং নিউজ
Home | ফটো সংবাদ | দেশে ‘গণতন্ত্র ফেরাতে’ বিএনপির আন্দোলন চলছে :ফখরুল

দেশে ‘গণতন্ত্র ফেরাতে’ বিএনপির আন্দোলন চলছে :ফখরুল

স্টাফ রির্পোটার : দেশে ‘গণতন্ত্র ফেরাতে’ বিএনপির আন্দোলন চলছে জানিয়ে তা আরো বেগবান করার ঘোষণা দিয়েছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরু। ইসলাম আলমগীর।

৪২ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে বরিবার দলের প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের সমাধিতে শ্রদ্ধা জানিয়ে এ কথা বলেন বিএনপি নেতা।

বঙ্গবন্ধু হত্যার পর নানা ঘটনাপ্রবাহে রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় এসে ১৯৭৮ সালের এই দিনে বিএনপি প্রতিষ্ঠা করেন জিয়াউর রহমান। দিনটি স্মরণে বিএনপি নানা কর্মসূচি পালন করছে, যার অংশ হিসেবে কেন্দ্রীয় নেতারা সকালে যান চন্দ্রিমা উদ্যানে বিএনপি প্রতিষ্ঠাতার সমাধিতে। ১৯৮১ সালে চট্টগ্রামে এক ব্যর্থ অভ্যুত্থাতে প্রাণ হারানোর পর সেখানেই সমাহিত করা হয় জিয়াকে। পরে চন্দ্রিমা উদ্যানে নিয়ে আসা হয় দেহাবশেষ।

দলেল প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে ফখরুল তার দলের চ্যালেঞ্জ নিয়ে কথা বলেন সাংবাদিকদের সঙ্গে। বলেন, দেশে ‘গ্রহণযোগ্য নির্বাচন’ অনুষ্ঠান এবং চেয়ারপারসনকে কারাগার থেকে মুক্ত করাই তাদের চ্যালেঞ্জ।

২০১৭ সালের ২৮ অক্টোবর তত্ত্বাবধায়ক সরকারের হাতে ক্ষমতা হস্তান্তরের পর আর রাষ্ট্র পরিচালনায় ফিরতে পারেনি দলটি। এর মধ্যে দুইবার সরকারবিরোধী আন্দোলনে ব্যর্থ হয়ে বেকায়দায় পড়েছে তারা। দুর্নীতির দুই মামলায় দণ্ডিত হয়ে চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া কারাগারে। দুর্নীতির দুটির পাশাপাশি ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলায় দণ্ডিত ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপারসন তারেক রহমান আসছেন না দেশে।

এর মধ্যে একাদশ সংসদ নির্বাচনে ইতিহাসের সবচেয়ে বাজে ফলাফল করে সংসদে প্রধান বিরোধী দলের অবস্থানও হারিয়েছে বিএনপি। যদিও শুরুতে ওই নির্বাচন মেনে না নিয়ে আন্দোলনের ঘোষণা ছিল দলের। কিন্তু পরে আর কোনো কর্মসূচিতে যায়নি তারা।

বিএনপি কি তাদের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় আন্দোলনে যাবে?- এমন প্রশ্নে ফখরুল বলেন, ‘আমাদের আন্দোলন চলছে এবং তা আরো বেগবান হবে।’

বিএনপি নেতার অভিযোগ, বিরোধী দল ও বিরোধী মত নিশ্চিহ্ন করে আবারো একদলীয় শাসন কায়েমের ষড়যন্ত্র করছে সরকার।

‘বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে একটি মিথ্যা বানোয়াট মামলায় অন্যায়ভাবে দেড় বছরেরও বেশি সময় ধরে আটকে রাখা হয়েছে। সারাদেশে নেতাকর্মীদেরও হয়রানি করা হচ্ছে।’

‘সারাদেশে বিএনপির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালনেও বাধা দেওয়া হচ্ছে। মানুষের মত প্রকাশ করার অধিকার নেই। সরকার বিরোধী রাজনীতি ও ভিন্ন মতকে সরকার নিশ্চিহ্ন করতে চায়। সেজন্য সব ধরনের চক্রান্ত ও ষড়যন্ত্র অব্যাহত রেখেছে। ভিন্ন মতকে দমনের জন্য যা যা করা দরকার সবই এ সরকার করে চলেছে।’

বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন, মওদুদ আহমদ, আবদুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান, আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী, ভাইস চেয়ারম্যান মো. শাহজাহান, জেডএম জাহিদ হোসেন, আহমেদ আযম খান, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা জয়নুল আবদিন ফারুক, যুগ্ম-মহাসচিব মাহবুব উদ্দিন খোকন, সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, হাবিব-উন নবী খান সোহেল প্রমুখ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

যুক্তরাষ্ট্রে বন্দি শিশুর সংখ্যা প্রায় এক লাখ তিন হাজার

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক : যুক্তরাষ্ট্রে এক লাখের বেশি শিশুকে আটকে রাখা হয়েছে বলে ...

এত সময় নেই যে কারও সঙ্গে প্রেম করব:জয়া

বিনোদন ডেস্ক:  দুই বাংলা জুড়েই এখন সৃজিত মুখার্জি ও মিথিলা রশীদের বিয়ের ...