ব্রেকিং নিউজ
Home | সারা দেশ | জেলা পরিষদের ইলেকট্রিশিয়ান ইউনুসের বিরুদ্ধে সরকারি গাছ বিক্রয়ের অভিযোগ

জেলা পরিষদের ইলেকট্রিশিয়ান ইউনুসের বিরুদ্ধে সরকারি গাছ বিক্রয়ের অভিযোগ

সাঈদ সাতক্ষীরাঃ  সাতক্ষীরায় ঘুর্নিঝড় বুলবুলির আঘাতে রাস্তার দুই ধারের পড়ে যাওয়া গাছকেটে বিক্রয়ের বিস্তর অভিযোগ উঠেছে জেলা পরিষদের ইলেকট্রিশিয়ান ইউনুস বিরুদ্ধে। সরেজমিনে যেয়ে জানা যায়,সাতক্ষীরা সদরের ধুলিহর এলাকার সুবারিঘাটা হতে চেয়ারম্যানের বাড়ি পর্যন্ত আশাশুনির বিভিন্ন রাস্তায় জেলা পরিষদের ২৮ টিরও বেশি গাছ কেটে জেলা পরিষদে জমা না কাঠ ব্যবসায়ীদের নিকট বিক্রয় করেছে ইলেক্ট্রিশিয়ান ইউনুস আলী।
ধুলিহর এলাকার জয়নাল এ প্রতিবেদক কে জানান,জেলা পরিষদের মাতব্বর বলে পরিচয়দানকারী ইউনুস আলী সানাপাড়ার সালাম ব্যাপারী,ব্রহ্মরাজপুরের স্বপন ব্যাপারী, গবরদাড়ির আশরাফুলের নিকট বাবলা গাছসহ ২৮টি বিভিন্ন প্রকার গাছ বিক্রয় করেছে। জয়নাল আরও জানান সম্প্রতি কিছুদিন আগে    ভ্যানযোগে জেলা পরিষদের কাছ কেটে নিয়ে যাওয়ার সময় ভ্যান চালকদের কাছে গাছের গুড়ি কোথায় যাচ্ছে জানতে চাইলে ভ্যান চালকরা জানান সালাম,  স্বপন,ও আশরাফের কাঠ আমরা নিয়ে যাচ্ছি।
  নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একই এলাকার জৈনক ব্যক্তি জানান ৪ ভ্যান বাবলাসহ বিভিন্ন প্রকার কাঠের গুড়ি নান্টুর স’মিলে আমরা এলাকাবাসী আটকে দিলে। ঘটনাস্থলে কাঠ রেখে ভ্যানচালকরা চলে যায়। পরে জেলা পরিষদে সংবাদ দিলেও কোন ব্যবস্থা নেয়নি। গত ২৯/১১/১৯ তারিখে নান্টুর স’মিলে যেয়ে দেখা যায় ৪ ভ্যান কাঠের মধ্যে সব অল্প কিছু কাঠ পড়ে আছে।
এ বিষয় জেলা পরিষদের চেয়ারম্যানের সাথে কথা হলে বলেন গাছ সংরক্ষণের জন্য তিন সদস্য বিশিষ্ট একটি কমিটি করে দেওয়া হয়েছে। গাছ ব্যাপারে অনিয়মের প্রমান পেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এদিকে ইলেক্ট্রিশিয়ান ইউনুসেেে কাছে গাছ বিক্রয়ের বিষয় জানতে এ প্রতিবেদককে বলেন তথ্য প্রমান নিয়ে আসেন তার পর কথা বলেন। এ বিষয় আমার অফিসারের সাথে কথা বলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

মদনে যথাযোগ্য মর্যাদায় জাতীয় শোক দিবস পালিত

সুদশন আচার্য্য, মদন, নেত্রকোনা হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ ...

মদনে আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘর বিক্রির রমরমা বাণিজ্য

সুদর্শন আচার্য্য, মদন (নেত্রকোণা) ঃ নেত্রকোনা মদন উপজেলার ফতেপুর ইউনিয়নের আশ্রয়ণ প্রকল্প-২ ...