ব্রেকিং নিউজ
Home | সারা দেশ | কক্সবাজারে মালয়েশিয়াগাম যাত্রী বোঝাই ট্রলার আটকের পর ছেড়ে দিয়েছে পুলিশ

কক্সবাজারে মালয়েশিয়াগাম যাত্রী বোঝাই ট্রলার আটকের পর ছেড়ে দিয়েছে পুলিশ

COXSBAZAR  Boat picএম.শাহজাহান চৌধরী শাহীন, কক্সবাজার , ৩১ অক্টোবর \ কক্সবাজার সদরের চৌফলদন্ডী ঘাটে মালয়েশিয়াগামী ২’শ যাত্রীবোঝাই একটি ট্রলার জনতা কর্তৃক আটকের ১৫ ঘন্টা পর ছেড়ে দেয়া হয়েছে। গত বুধবার ৩০ অক্টোবর দিবাগত মধ্যরাতে এ ঘটনা ঘটে। ট্রলারে থাকা যাত্রীরা দিক বেদিক পালিয়ে যায়। আবার কেউ কেউ নদীতে ঝাপও দিয়েছে। গতকাল বৃহষ্পতিবার দিনভর ওই ট্রলারটি একজন চৌকিদারের জিম্মায় রয়েছে।
এদিকে মোটা টাকা নিয়ে ঈদগাও পুলিশের কাছে তদবির করছে দালাল চক্র। অন্যদিকে শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত মালিক সেজে ট্রলারটি পুলিশের কাছ হতে ছাড়িয়ে নিয়েছে বলে জানা গেছে।
সূত্রে প্রকাশ, কক্সবাজার সদরের উপকূলীয় চৌফলদন্ডী ঘাটে গত বুধবার দিবাগত রাত প্রায় ৩টায় মালয়েশিয়াগামী প্রায় ২’শ যাত্রী বোঝাই একটি ট্রলার রওয়ানা দেয়ার সময় পার্শ্ববর্তী ভারুয়াখালী ইউনিয়নের চিহ্নিত ডাকাতদলের কবলে পড়ে লুটপাট চললে মালয়েশিয়া পাচারকারী চক্রের সদস্যরা ফাঁকা গুলি চালায়। ডাকাতদল পিছু হটে গিয়ে তারাও পাল্টা গুলি ছুড়ে। এ সময় চৌফলদন্ডীর ২ নং ওয়ার্ড মেম্বার একরাম ও মো: লেদু মিয়া সহ লোকজন এগিয়ে এসে ট্রলারটি আটক করে। পুলিশ খবর পেয়ে ট্রলারটি স্থানীয় চৌকিদারের জিম্মায় দেন। গতকাল বৃহষ্পতিবার ৩১ অক্টোবর বিকেল ৪টায় ঈদগাও পুলিশের এসআই নাছির ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।
সূত্রে জানা গেছে, মাছুয়াখালীর জনৈক ফজলুল হক মিয়ার পুত্র তোফাইলের নের্তৃত্বে চৌফলদন্ডীর কয়েকজন আদম পাচারকারী চক্র দীর্ঘদিন ধরে মালয়েশিয়ায় লোক পাচারে জড়িত। এরই ধারাবাহিকতায় বুধবার রাতে চৌফলদন্ডী- ভারুয়াখালী খালের মাছুয়াখালী ঘাটে মালয়েশিয়াগামী লোকভর্তি করে পাচারের উদ্দেশ্যে।
মো: লেদু মিয়া জানান, ডাকাতির খবর পেয়ে তিনি লোকজন নিয়ে এগিয়ে যান। এ সময় ট্রলারে থাকা যাত্রীরা দ্রুত পালিয়ে যেতে সক্ষম হন। একই কথা স্বীকার করেন স্থানীয় মেম্বার একরাম। তিনিও গোলাগুলির শব্দ শুনতে পান বলে জানান। জানা যায়, পাচারকারী চক্র ও ট্রলার মালিক মোটা অংকের টাকা নিয়ে বিভিন্ন স্থানে দিনভর ঘুরাঘুরির পর অবশেষে কৌশলী পরামর্র্শে গতকাল বৃহষ্পতিবার ৩১ অক্টোবর সকালে কক্সবাজার মডেল থানায় কথিত মালিক তার ট্রলার নিখোঁজ হয়েছে মর্মে একটি নাটকীয় জিডি করে ট্রলারটি দ্রুত ছাড়িয়ে নিতে সক্ষম হয়।
চৌফলদন্ডী ৪ নং ওয়ার্ডের চৌকিদার আবদুল করিম জানান, আমাকে ট্রলারটি জিম্মায় দিয়েছে মেম্বার। ট্রলারটি মালয়েশিয়া বোঝাই যাত্রী নিয়ে আটক হয়েছে জানতে পারি এবং ট্রলারে বেশ কিছু চিড়ার বস্তা , জ্বালানী তেল ও গুড় রয়েছে। ঈদগাও পুলিশের আইসি মনজুর কাদের জানান, ট্রলারটি স্থানীয় পাবলিক কর্তৃক আটক হয়েছে। মালিকের জিডি মোতাবেক ট্রলারটি নিয়ে গেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

মদনে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স সপ্তাহ- ২০২২ উদযাপন

সুদর্শন আচার্য্য, মদন (নেত্রকোণা) ঃ ‘দুর্ঘটনা দুর্যোগ হ্রাস করি, বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা ...

মদনে সিএনজি অটো রিক্সা শ্রমিক ইউনিয়নের কমিটি গঠন

সুদর্শন আচার্য্য, মদন (নেত্রকোণা) ঃ নেত্রকোণা মদন উপজেলায় মিশুক, সিএনজি, অটো রিক্সা ...