Home | আন্তর্জাতিক | হিন্দু নিধনের দায় নিচ্ছে বিএনপি

হিন্দু নিধনের দায় নিচ্ছে বিএনপি

স্টাফ রিপোর্টার, ১১ মার্চ, বিডিটুডে ২৪ডটকম : দেশের সাম্প্রতিক সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের ওপর হামলার দায় বিএনপি পরোক্ষভাবে নিজের কাঁধে নিচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শাহরিয়ার কবির।

এর ফলে বিএনপির সামনে মহাবিপর্যয় অপেক্ষা করছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

সোমবার বেলা ১১টায় ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি মিলনায়তনের গোলটেবিল লাউঞ্জে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ মন্তব্য করেন।

‘জামায়াতের সাম্প্রতিক সাম্প্রদায়িক সহিংসতা এবং সরকার ও নাগরিক সমাজের করণীয়’ শীর্ষক এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটি।

শাহরিয়ার কবির বলেন, ‘বিএনপির তৃণমূল নেতাকর্মীরা বুঝলেও হাইকমান্ড নেতারা বোঝেন না। হিন্দু সম্প্রদায়ের নির্যাতনের দায় জামায়াতের সঙ্গে থেকে নিলে আগামী নির্বাচনে মহাবিপর্যয় হতে পারে।’

সাঈদীর বিরুদ্ধে হিন্দুদের দেয়া রায়ে ফাঁসি হয়েছে এরকম উসকানিমূলক মন্তব্য করে হিন্দুদের বাড়িতে হামলা করা হয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘হামলা করলে হিন্দুরা ভয় পেয়ে ভারতে চলে যাবে। অপন্যদিকে আওয়ামী লীগের ভোট কমে যাবে। এরকম উসকানি দিয়ে হামলা করা হয়েছে।’

যুদ্ধাপরাধের অভিযোগে দল হিসেবে জামায়াতের বিচার করা যাবে কি না- এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘জামায়াতের বিচার না করতে সরকারের ওপর আমেরিকার চাপ আছে। কিন্তু সরকার এখন আমেরিকাকে খুশি করবে, না কি দেশের জনগণকে খুশি করবে তা দেখার বিষয়।’

অন্যদিকে, এক প্রশের জবাবে সরকারকে উদ্দেম্য করে তিনি বলেন, গত তিন বছরে ‘সাক্ষী সুরক্ষা আইন’ প্রণয়ন করে ট্রাইব্যুনালের সব সাক্ষীর নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে বলা হলেও সরকার আজ পর্যন্ত তা কার্যকর করছে না। এর জবাব সরকারকেই দিতে হবে।’

এছাড়া তিনি সাম্প্রদায়িক সহিংসতা প্রতিরোধে মসজিদের ইমামসহ এলাকার গণমান্য ব্যক্তি, নাগরিক সমাজের প্রতিনিধি, স্থানীয় সংসদ, রাজনৈতিক নেতা ও প্রশাসনের সহায়তায় গণপ্রতিরোধ কমিটি গঠন করারও কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, ‘আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর নিহত সদস্যদের রাষ্ট্রীয় সম্মননা দিয়ে পুলিশ ও প্রশাসনকে জামায়াত মুক্ত করতে হবে ‘

এছাড়া সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন- অধ্যাপক মুনতাসীর মামুন, অধ্যাপক অজয় রায়, ব্যারিস্টার তুরিন আফরোজ, শহীদ জায়া শ্যামলী নাসরিন চৌধুরী, ভাস্কর ফেরদৌস প্রিয়ভাষিণী, কাজী মুকুল প্রমুখ।

উল্লেখ্য, জামায়াত ইসলামীর নায়েবে আমীর দেলাওয়ার হোসেন সাঈদীর রায় ঘোষণার পর গত ১১ দিনে সারাদেশে গণমাধ্যম ও হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের তদন্ত প্রতিবেদন অনুসারে ২৩টি জেলার ২ হাজারের অধিক সংখ্যালঘু পরিবারে হামলা করছে।

x

Check Also

অবশেষে বৈঠকে বসছে ভারত ও পাকিস্তান

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক : দুই বছর পর সিন্ধুর জল বণ্টন নিয়ে মঙ্গলবার (২৩ মার্চ) ভারতের সঙ্গে ...

এক শটে বাংলার বাইরে ফেলব ওদের : মমতা

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক : ভাঙা পা নিয়েই শেষ মুহুর্তের নির্বাচনি প্রচারে মাঠ গরম করছেন ...