ব্রেকিং নিউজ
Home | সারা দেশ | হবিগঞ্জে ৮ দম্পত্তির ব্যতিক্রমী গণ বিয়ে

হবিগঞ্জে ৮ দম্পত্তির ব্যতিক্রমী গণ বিয়ে

ফরহাদ চৌধুরী ,হবিগঞ্জ প্রতিনিধি: হবিগঞ্জ শহরে ব্যতিক্রমী এক গণ বিয়ে অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে এক সঙ্গে অসহায় ৮ দম্পত্তির বিয়ে পড়ানো হয়। এ বিয়ে অনুষ্ঠান দেখতে উৎসুক নারী-পুরুষের

ভীড় জমে। হবিগঞ্জ পৌরসভার আয়োজনে বুধবার বেলা ১২টা থেকে ৩টা পর্যন্ত শহরের শায়েস্তানগরে অবস্থিত পৌরসভা প্রাঙ্গণে এ বিয়ে অনুষ্ঠিত হয়। আলোচিত ৮ দম্পত্তির বিয়ে

অনুষ্ঠানের কাজী ছিলেন মাওলানা জসীম উদ্দিন। যাদের মধ্যে বিয়ে পড়ানো হয়, তারা হলেন- বানিয়াচং উপজেলার ইকরাম গ্রামের ঈদু মিয়ার ছেলে দিলু মিয়ার সঙ্গে হবিগঞ্জ শহরের দানিয়ালপুর

গ্রামের আনোয়ার আলীর মেয়ে হামিদা বেগমের। হবিগঞ্জ সদর উপজেলার মৃত ওয়ারিশ উল্লার ছেলে মিন্টু মিয়ার সঙ্গে হবিগঞ্জ শহরের তেঘরিয়া এলাকার মৃত দোস্ত মোহাম্মদের মেয়ে কোহিনুর

বেগমের। হবিগঞ্জ শহরের ইনাতাবাদ এলাকার মৃত মোবারক মিয়ার ছেলে ছুরত আলীর সঙ্গে একই এলাকার আব্দুল কদ্দুছের মেয়ে সামসুন্নাহার লাকীর। বাহুবল উপজেলার তারাপাশা গ্রামের আশরাফ

আলীর ছেলে আবু মিয়ার সঙ্গে হবিগঞ্জ শহরের উমেনগর পুরাতন হাটি এলাকার সোবান মিয়ার মেয়ে আমিনা বেগমের। বানিয়াচং উপজেলার পাঠানটুলা গ্রামের শিতাব উল্লার ছেলে মনু মিয়ার

সঙ্গে হবিগঞ্জ শহরের খোয়াইমুখ সড়ক এলাকার আলাই মিয়ার মেয়ে পারভীন আক্তারের। সুনামগঞ্জ জেলার দিরাই উপজেলার ধাইপুর গ্রামের মনর মিয়ার ছেলে আবু মিয়ার সঙ্গে হবিগঞ্জ শহরের

শায়েস্তানগর এলাকার আব্দুস শহীদের মেয়ে শামেলা বেগমের। হবিগঞ্জ শহরের উমেদনগর এলাকার সত্তার মিয়ার ছেলে সমুজ মিয়ার সঙ্গে মোহনপুর এলাকার সেতু মিয়ার মেয়ে নাজু

আক্তারের। সুনামগঞ্জ জেলা সদরের নারায়নতলা গ্রামের রফিকুল ইসলামের ছেলে উমর ফারুকের সঙ্গে হবিগঞ্জ শহরের শায়েস্তানগর এলাকার আরজু মিয়ার মেয়ে আমিনা খাতুনের। শহরের

আলোচিত এ গণবিয়েতে উপস্থিত হয়ে শহরবাসী অনেকেই নবদম্পত্তিদের হাতে বিভিন্ন উপহার সামগ্রী তুলে দেন। বিয়ে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- হবিগঞ্জ প্রেসক্লাব সভাপতি

ফজলুর রহমান, দৈনিক খোয়াই সম্পাদক শামীম আহছান, হবিগঞ্জ প্রেসক্লাবের সহ সভাপতি আব্দুল বারী লস্কর, সাধারণ সম্পাদক চৌধুরী মোহাম্মদ ফরিয়াদ, জেলা বিএনপি যুগ্ম সম্পাদক ইসলাম

তরফদার তনু, জেলা ছাত্রদল আহ্বায়ক তাজুল ইসলাম চৌধুরী ফরিদ, কাউন্সিলর আব্দুল আউয়াল মজনু ও লাভলী সুলতানা প্রমুখ। এ গণ বিয়ে অনুষ্ঠানের ব্যাপারে হবিগঞ্জ পৌরসভার মেয়র

আলহাজ্ব জি কে গউছ বাংলানিউজকে জানান- শহরে অনেক অসহায়-দরিদ্র কন্যাদায়গ্রস্থ পিতা রয়েছেন। যারা আর্থিক অস্বচ্ছলতার কারণে তাদের সন্তানদের পাত্রস্থ করতে পারেন না। তাদের

কথা চিন্তা করেই পৌরসভার এ আয়োজন। তিনি আরও জানান- এখন থেকে প্রতি বছরই এ ধরণের গণ বিয়ে অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

মদনে সরকারি নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে অবাধে মাছ শিকার

সুদর্শন আচার্য্য, মদন (নেত্রকোণা) ঃ নেত্রকোণার মদনে তিয়শ্রী ইউনিয়নের তিয়শ্রী বাজারের পাশে ...

মদনে অবৈধভাবে চলছে মাছ শিকারের মহোৎসব

সুদর্শন আচার্য্য, মদন (নেত্রকোণা) : নেত্রকোণা মদন উপজেলার মাঘান ইউনিয়নের নয়াপাড়া ও ...