ব্রেকিং নিউজ
Home | ব্রেকিং নিউজ | স্ত্রী’র বিরুদ্ধে বন কর্মকর্তাকে হত্যার অভিযোগ, বিচার দাবিতে বাগাতিপাড়ায় মানববন্ধন

স্ত্রী’র বিরুদ্ধে বন কর্মকর্তাকে হত্যার অভিযোগ, বিচার দাবিতে বাগাতিপাড়ায় মানববন্ধন

বাগাতিপাড়া (নাটোর) প্রতিনিধি : রাজধানীর বনভবনে কর্মরত মাসুদ রানা (৪০) নামে এক উপ-বন সংরক্ষককে হত্যার অভিযোগ উঠেছে তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে। এই ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য কাফরুল থানা পুলিশ মাসুদ রানার স্ত্রী স্বর্ণা আক্তার, বাসার কাজের মেয়ে ও ড্রাইভারকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নিলেও পরে তাদেরকে ছেড়ে দিয়েছে। নিহত মাসুদ রানা নাটোরের বাগাতিপাড়া উপজেলার কাকফো নতুনপাড়া গ্রামের মোজাম্মেল হকের ছেলে। সে ২৪তম বিসিএস ক্যাডার হিসেবে যোগদান করে বনভবনে উপ-বন সংরক্ষক হিসেবে কর্মরত ছিলেন। কাফরুল থানা পুলিশ বাসার ফ্যানের সাথে ঝুলন্ত অবস্থায় মাসুদ রানার লাশ উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে। তবে মাসুদ রানার পরিবারের অভিযোগ, পরকিয়া এবং টাকা পয়সার জন্য মাসুদ রানাকে তার স্ত্রী হত্যা করেছে।

এদিকে, হত্যার অভিযোগ এনে মাসুদ রানার স্ত্রী স্বর্ণা আক্তারের দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির দাবীতে মানববন্ধন করেছে এলাকাবাসীরা। মঙ্গলবার দুপুরে বাগাতিপাড়া উপজেলার কাকফো নতুনপাড়া বাজারে এই মনাববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়। এসময় বক্তারা, সুষ্ঠ তদন্ত দাবী করে মাসুদ রানার স্ত্রীর দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির দাবী জানান। মানববন্ধনে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মজিবুর রহমান, মাসুদ রানার বন্ধু ডা. নাজমুল হক, উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আবুল হোসেনসহ গণ্যমাণ্য ব্যাক্তিরা বক্তব্য রাখেন। পরে স্থানীয় ঈদগাহ মাঠে জানাযা শেষে দুপুর আড়াইটায় সামাজিক কবরস্থানে লাশ দাফন করা হয়।

নিহত মাসুদ রানার ভাগ্নে মইদুল ইসলাম পাভেল জানায়, সোমবার ২৪ ডিসেম্বর সকালে মাসুদ রানার স্ত্রী স্বর্ণা আক্তার তার এক আত্মীয়কে মাসুদ রানা স্ট্রোক করে মারা গেছে বলে জানায়। খবর পেয়ে স্বজনরা কাফরুল থানা পুলিশের সহায়তায় রাজধানীর মিরপুর-১৩ নম্বরের সেনপাড়া পর্বতা এলাকার ৪৬৯/২ অয়ান্ন গার্ডেনের ৩০৪ নম্বর ফ্লাট থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে। পরে সরওয়ারর্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে লাশের ময়নাতদন্ত শেষে গ্রামের বাড়ি বাগাতিপাড়া উপজেলার কাকফো গ্রামে আনা হয়।

নিহতের বাবা মোজাম্মেল হক প্রতিবেদককে জানান, পরকীয়া ও টাকা পয়সার জন্য তার ছেলে মাসুদ রানাকে হত্যা করেছে তার (মাসুদ রানার) স্ত্রী স্বর্না আক্তার। এরপর লাশ ঝুলিয়ে রেখে সে আত্মহত্যা করেছে বলে প্রচার চালাচ্ছে। তিনি তার ছেলের হত্যার বিচার দাবি করেছেন।

মানব বন্ধনে অংশ নেওয়া নিহত মাসুদ রানার বন্ধু ডা. নাজমুল হক বলেন, মাসুদ রানাকে হত্যা করা হয়েছে এটা দিনের আলোর মতো পরিস্কার। তাকে শ্বাস রোধ করে হত্যা করা হয়েছে। কিন্তু পুলিশ মামলা না নিয়ে তাল বাহানা করছে। অবিলম্বে হত্যার রহস্য উদঘাটনের পাশাপাশি তার স্ত্রীর দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির দাবী করেন তিনি।

এবিষয়ে তদন্তকারী কর্মকর্তা কাফরুল থানার এস আই আল-আমিন মুঠো ফোনে বলেন, বন কর্মকর্তা মাসুদ রানার লাশ তার বেডরুম থেকে ফ্যানের সাথে ঝুলন্ত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে। প্রাথমিকভাবে থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে। এই ঘটনায় তাঁর স্ত্রী স্বর্ণা আক্তার, বাসার কাজের মেয়ে ও ড্রাইভারকে জিজ্ঞাসাবাদ করে স্বজনদের জিম্মায় রাখা হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে তদন্ত চলছে। পোস্ট মর্টেম রিপোর্ট পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

মদনে ক্ষুদ্র নৃ—গোষ্ঠীর মধ্যে ভেড়া ও অন্যান্য উপকরণ বিতরণ

সুদর্শন আচার্য্য, মদন, নেত্রকোণা ঃ সমতল ভূমিতে বসবাসরত অনগ্রসর ক্ষুদ্র নৃ—গোষ্ঠীর মাঝে ...

What Is Cmmi? A Model For Optimizing Development Processes

Содержание Managed Processes Maturity Model Structure Do You Want To Implement The ...