Home | সারা দেশ | সোনাপুরে বসত ঘরে হামলা ভাংচুর,প্রাণনাশের হুমকি

সোনাপুরে বসত ঘরে হামলা ভাংচুর,প্রাণনাশের হুমকি

মুজাহিদুল ইসলাম সোহেল, নোয়াখালী প্রতিনিধি : নোয়াখালী সুধারামের পৌরসভার ৮ নং ওয়ার্ডের দরগা বাড়ীতে চাঁদার দাবিতে আলী আকবরের বসত ঘরে হামলা, ভাংচুর ও লুটপাট চালিয়েছে একই এলাকার মৃত সামছুদ্দীনের ছেলে পচি,জমির,জামাই হেলালের নেতৃত্বে এক দল সন্ত্রাসী। এ সময় বাধা দিতে গিয়ে সন্ত্রাসীদের হামলায় আলী আকবরের স্ত্রী বিবি আয়েশা (৪৮) পুত্র আলী ইমতিয়াজ অভি (২৩) রাজমিস্ত্রী সুজন (২৮) ও বাহারকে আহত করে। আহতদের স্থানয়ি পর্যায়ে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। ঘটনাটি ২০ ডিসেম্বও বুধবার সকাল পৌনে ৯ টার দিকে ঘটেছে।
আলী আকবরের পুত্র আলী ইমতিয়াজ জানায় বিগত ৬০/৭০ বছরের অধিক সময় ধরে সোনাপুর মৌজার ৫০৬৯ খতিয়ানেতিন দাগে প্রায় ৩০ শতাংশ ভূমি উত্তরাধিকার সূত্রে ভোগ দখল করে আসছে। উক্ত ভূমিতে নতুনভাবে ঘর নির্মানের প্রস্তুতি নিলে মোটা অংকের চাঁদা দাবি করে এলাকার কয়েক সন্ত্রাসী। তা উপেক্ষা করে পচি উদ্দিন,জমির হেলাল গং নির্মাণ কাজ চলাকালীন ঘটনার তারিখ ও সময়ে সোনাপুর গ্রামের আকরাম উদ্দিনের ছেলে নোবেলে নেতৃত্বে কয়েকটি হুন্ডা যোগে প্রায় শতাধিক ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী ঘটনার স্থলে লাঠিসোঠা নিয়ে আতংঙ্ক সৃষ্টি করে। নতুনভাবে নির্মানকৃত সেমিপাকা ঘর ও পুরাতন টিনসেটের ঘরসহ ভাংচুর ও লুটপাট চালিয়ে ফ্রিজ, আলমিরা, ওয়ারড্রপসহ আসবাব পত্র ভাংচুর ও কুপিয়ে তছনচ করে নগদ টাকাসহ স্বর্ণ অলংকার নিয়ে যায়। এ সময় বাধা দিতে গেলে নারী পুরুষসহ রাজমেস্ত্রিদেরকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে আহত করে। সন্ত্রাসীদের এই তান্ডব চলাকালীন ভয়ে কেউ এগিয়ে আসেনি। সন্ত্রাসীরা যাওয়ার সময় কাজ না করার করলে প্রানে হত্যার হুমকি দেয়। পরবর্তীতে এলাকার লোকজন এসে আহতদেরকে উদ্ধার করে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে এনে ভর্তি করে। পুলিশ খবর পেয়ে দ্রত ঘটনাস্থলে গিয়ে আলামত জব্ধ করেন এবং আহতদের হাসপাতালে দেখতে যান। এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত মামলা দায়ের হয়নি। তবে মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে জানা গেছে।
বিবি আয়েশা জানান,আমার স্বামী অন্যথায় থাকেন, আমি আমার একমাত্র পুত্র সন্তান নিয়া একা বসবাস করি, বণিত স্থানে। সন্ত্রাসীরা আমার পাশ্ববর্তী। আমি আমার বসত বাড়ীতে জরাজীর্ণ পুরাতন ঘর নতুন করিয়া নির্মার্ণ করিতেছি। এরা সন্ত্রাস,উৎশৃংখল,অসৎ ও মাদক সেবী খারাপ প্রকৃতির লোক। আমার বসত ঘর নির্মাণ করিতে বিবাদীগণ দেখিয়া দলবদ্ধভাবে মিলিত হইয়া দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়া আমার বাউন্ডারী বাড়ীতে গেইট ভেঙ্গে প্রবেশ করিয়া আমার কাজে বাধা প্রদান করে এবং আমাকে শারিরীক ভাবে আঘাত করে। আমাকে এবং আমার একমাত্র ও সন্তানকে প্রাণ নাশের হুমকি প্রদান করেন। আমি কাজ করিলে সন্ত্রাসীরা আমাকে মারধর করিয়া বসত ঘর আগুন দিয়া পুড়াইয়া ভিটে ছাড়া করিয়া দিতে বলিয়া ভয়ভীতি প্রদান করে। এর আগেও একাধিক ভার এরা সংঘবদ্ধ হইয়া আমার স্বামী ও সন্তানের উপর আক্রমন করে যাহা আপনাকে মোখিক ভাবে অবগত করেছি। পচি, জমির ,হেলালের অত্যাচারে এলাকার লোকজন অতিষ্ঠ। এব্যাপারে স্থানীয় কাউন্সিলর ও সোনাপুর পৌর বাজারের সাধারণ সম্পাদককে অবহিত করলে তাহারা এদের ডাকলে পচি তাদের কে কোনরৃপ পাত্তা না দিয়া গালিগালাজ করতে থাকে। এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিগণ আপনার সরনাপন্ন হওয়ার পরামর্শ দেন।সন্ত্রাসীরা এত আরো ক্ষিপ্ত হইয়া আমাকে আমার বাড়ী হইতে উচ্ছেদ করিয়া দেওয়ার পরিকল্পনা করিতেছে। বিবাদীগণের এরুপ বিষয় আমি স্থানীয় সংবাদকর্মী ও এলাকার গন্যমান্য লোকজনদের অবগত করি।
এব্যাপারে সুধারাম মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আনোয়ার হোসেন জানান, খবর পেয়ে ঘটনার স্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। অভিযোগের ভিত্তিতে ব্যবস্থা নেব।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

জাল জন্মনিবন্ধনের মাধ্যমে সরাইলে বাল্য বিয়ে, মুচলেকা রাখলেন ইউএনও

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি : ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে জাল জন্মনিবন্ধনে হলফ নামার মাধ্যমে অপ্রাপ্ত বয়স্ক ...

কালিয়াকৈরে আওয়ামীলীগের প্রস্তুতি সভা

হুমায়ুন কবির,কালিয়াকৈর(গাজীপুর)প্রতিনিধি। আওয়ামীলীগের সভাপতি প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ২১জুলাই গণসংবর্ধনা দেবে আওয়ামীলীগ। ...