Home | ব্রেকিং নিউজ | সুনামগঞ্জে সনদ জালিয়াতি করে প্রাইমারীতে শিক্ষক নিয়োগের ঘটনায় তোলপাড়

সুনামগঞ্জে সনদ জালিয়াতি করে প্রাইমারীতে শিক্ষক নিয়োগের ঘটনায় তোলপাড়

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি : সুনামগঞ্জের ছাতক উপজেলার স্থায়ী বাসিন্দা না হয়েও ভুয়া নাগরিকত্ব সনদ নিয়ে প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক পদে একাধিক শিক্ষক নিয়োগপ্রাপ্ত হওয়ার ঘটনায় উপজেলা জুড়ে ব্যাপক তোলপাড় শুরু হয়েছে। সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা ২০১৪ (২০১৮তে নিয়োগপ্রাপ্ত) ছাতক উপজেলায় ৩৮জন সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পেয়েছেন। এদের মধ্যে অন্তত ৫জন একই ভাবে নাগরিকত্ব সনদ জাল করে নিয়োগপ্রাপ্ত হয়েছেন বলে অভিযোগ রয়েছে। প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের নীতিমালা অনুযায়ী প্রার্থীকে অবশ্যই সংশ্লিষ্ট উপজেলার স্থায়ী বাসিন্দা হওয়ার নিয়ম থাকলেও ছাতক উপজেলার চেলারচর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক পদে হুমায়ুন কবির নামে জামালগঞ্জ উপজেলার একজন ও পুরান সিংচাপইড় সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষিকা পদে রিমি সাহা নামে কটিয়াদী উপজেলার পূর্বপাড়া গ্রামের আরেক জনকে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।

স্থানীয় একাধিক সূত্রে জানাযায়,হুমায়ুন কবির ছাতকের জাউয়া বাজার ইউনিয়নের খিদ্রাকাপন গ্রামের রুহুল আমিনের ছেলে উল্লেখ করে নাগরিক সনদপত্র জমা দেয়। কিন্তু খিদ্রাকাপন গ্রামে এ নামের কোনো স্থায়ী বাসিন্দা নেই। অপরজন ছৈলা-আফজলাবাদ ইউনিয়নের গোবিন্দগঞ্জ গ্রামের রতন সাহার কন্যা বলে নাগরিক সনদপত্র জমা দেয়। যার জাতীয় পরিচয় পত্র (নং ১৯৯১৪৮২৪৫০৩০০০০৫০)। কিন্তু ওই ইউনিয়নে গোবিন্দগঞ্জ নামে কোনো গ্রামই নেই। এ ঘটনায় চেলারচর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক পদে নিয়োগপ্রাপ্ত হুমায়ুন কবির নামের ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসক বরাবরে সালাহ উদ্দিন নামের ওই নিয়োগ পরিক্ষার একজন প্রার্থী লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।

ছাতক উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মানিক চন্দ্র দাশ জানান,এ বিষয়ে এখনো কোনো অভিযোগ পাওয়া হয় নি। অভিযোগ পেলে তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা নেয়া হবে।

জাউয়াবাজার ইউপি চেয়ারম্যান মুরাদ হোসেন কর্তৃক অবৈধ ভাবে জাতীয় নাগরিকত্ব সনদ প্রদানের ঘটনায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবরে একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন জাউয়া বাজার ইউনিয়নের জাউয়া গ্রামের মৃত আবদুল মুক্তাদিরের পুত্র ও জাউয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এ.এস.এম মিস বাহুজ্জাম বলে জানাযায়। রোববার উপজেলা নির্বাহী অফিসার আবেদা আফসারী বরাবরে দেয়া অভিযোগে তিনি উল্লেখ করেন, ইউপি চেয়ারম্যান অনৈতিক উপায়ে স্বার্থসিদ্ধি লাভে চেলারচর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সদ্য নিয়োপ্রাপ্ত সহকারী শিক্ষক,জামালগঞ্জ উপজেলার হুমায়ুন কবিরকে জাউয়া বাজার ইউনিয়নের খিদ্রাকাপন গ্রামের রুহুল আমিনের ছেলে উল্লেখ করে নাগরিক সনদপত্র দিয়েছেন। তিনি এ বিষয়ে তদন্তপূর্বক বিধি অনুযাযী ব্যবস্থা গ্রহনের দাবী জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

বিএনপি নেতা রফিকুল ইসলাম মিয়া গ্রেফতার

স্টাফ রিপোর্টার : বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিয়াকে নিজ বাসা ...

ঠাকুরগাও-৩ : আ’লীগে-৭ বিএনপিতে-৫ একক জাপা ওয়ার্কাস, স্বতন্ত্র ২

মোঃ আনোয়ার হোসেন আকাশ, রাণীশংকৈল (ঠাকুরগাও) : আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে এলাকায় ...