ব্রেকিং নিউজ
Home | আন্তর্জাতিক | সাতকানিয়ায় সাংবাদিকতায় আধিপত্য বিস্তার করতে না পেরে নিজেকে হিরো হিসেবে জাহির করার জন্য বিতর্কিত ভাবে মানুষের মান নিয়ে লিখছেন ব্লগার বেলাল

সাতকানিয়ায় সাংবাদিকতায় আধিপত্য বিস্তার করতে না পেরে নিজেকে হিরো হিসেবে জাহির করার জন্য বিতর্কিত ভাবে মানুষের মান নিয়ে লিখছেন ব্লগার বেলাল

ফারুক খান তুহিন,ভ্রাম্যমান প্রতিনিধি,২০ মার্চ,বিডি টুডে ২৪ ডটকম : দেশে অনেক বড় বড় সাংবাদিক ও কলামিষ্ট আছেন যাঁরা বিভিন্ন লেখার জন্য বিতর্কিত লেখকে পরিণত হয়েছে। ফলশ্র“তিতে সেইসব বিতর্কিত লেখক ও কলামিষ্টকে সুশীল সমাজের মানুষ ঘৃণা ভরে প্রত্যাখান করেছে যার প্রমাণ অহরহ।  এদের অনেকের আবার দেশের মাটিতে ঠাঁই হয়নি। কিন্তু বিতর্কিত লেখালেখির কারনে এরা কু-নামে হিরো হয়েছে। যার মধ্যে তসলিমা নাসরিন অন্যতম। তবে এসব বিতর্কিত লেখক সাংবাদিক, কলামিষ্টরা ছিল শহর কেন্দ্রিক। ইদানিং মফস্বলেও বিতর্কিত কলাম, সংবাদ ও প্রবন্ধ লিখে অনেকে রীতিমতো হিরো হওয়ার তদ্বির চালিয়ে যাচ্ছেন। আবার অনেকে সাংবাদিকতা জগতে একছত্র অধিকার বিস্তার করতে না পেরে “সাংবাদিক ও সাংবাদিকতা”র অপব্যাখ্যা করে জনমনে সাংবাদিকতার মত মহান পেশার উপর কালিমা লেপন করছেন। এমনই এক ব্যক্তির উদাহরণ হল সাতকানিয়ার ব্লগার বেলাল হোসাইন। তিনি সাতকানিয়া ব্লগ ডটকম নামের একটি ব্লগে সাতকানিয়ার সংখ্যাগরিষ্ঠ গণ্যমান্য ব্যক্তি ও উদিয়মান সাংবাদিকদের নিয়ে বিতর্কিত লেখালেখির মাধ্যমে অল্প দিনেই হিরো হয়ে যাওয়ার চেষ্ঠা চালিয়ে যাচ্ছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। জানাগেছে, তিনি স্থানীয় পত্রিকা দৈনিক সাঙ্গুতে সাতকানিয়া প্রতিনিধি হিসেবে কর্মরত রয়েছে। ক’দিন আগের ঐ ব্লগের একটি সংবাদের অভিযোগের ভিত্তিতে বেলাল হোসাইন এর মোবাইলে যোগাযোগ করা হলে তিনি অশ্রব্য কথাবার্তা বলে লাইন কেটে দেন। পরবর্তী আবার যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তিনি ফোন না করতে হুমকি প্রদান করেন। এদিকে সাতকানিয়া ব্লগ ডটকম নামক ঐ ব্লগ খুলে দেখা গেছে যে, বেলাল হোসাইন সাংবাদিক ও সাংবাদিকতা বিষয়ক একাধিক পোষ্ট লিখেছেন। যেকোন সাধারণ লোক এ কলাম গুলো পড়ে বুঝতে পারবে যে, সাংবাদিকতায় নিজের একছত্র আধিপত্য বিস্তার করতে না পেরে হিংসা পরায়ন হয়ে তিনি উদিয়মান সাংবাদিকদের হেয় প্রতিপন্ন করতে মনগড়া বক্তব্য উপস্থাপন করেছে। তিনি বেশ ক’জন সাংবাদিককে সাংবাদিকতার অনুপযুক্ত ও তাদের বৈশিষ্ঠ্য নিয়ে স্বেচ্ছারিতা করেছেন। একটি পোষ্ঠে তিনি দৈনিক সত্যের আলোর চট্টগ্রাম ব্যুরো এস.এম মিজান উল্লাহ সমরকন্দী ও আরো বেশ কয়েক সংবাদকর্মীর নামে অধ্যাপক তাজুল ইসলামের উদ্ধৃতি দিয়ে   মানহানীমূলক বক্তব্য প্রদান করলে  সংশ্লিষ্ঠ বিষয়ে অধ্যাপক তাজুল ইসলামের কাছে জানতে চাওয়া হলে তিনি সম্পূর্ণ অস্বিকার করেন এবং জানান যে, বেলাল মনগড়া বক্তব্য লিখে সকলের মানহানী করছে। একই ব্লগে  গত রবিবারে বেলালের  পোষ্ট করা একটি কলাম দৃষ্টিগোচর হয়। ঐ কলামে ব্লগার বেলাল সাংবাদিক ও সাংবাদিকতা পেশাকে তুচ্ছ জ্ঞান করে নানাবিধ মন্তব্য করেছে। তিনি সাংবাদিকতাকে চট্টগ্রামের ভাষায় বেগার খাটা (মূল্যহীন চাকরি) বলে হেয় করেছে। বাক্যটা পড়ে স্বাভাবিক ভাবে এ প্রশ্নটা চলে আসে যে, চাকরি না থাকা স্বত্বেও সাংবাদিকতা করে বেলাল হোসাইন কিভাবে সংসার চালান? তাহলে কি বেলাল সাহেব কোন দূর্ণিতীর সাথে জড়িত আছেন?  এমন প্রশ্ন আসাটাও স্বভাবিক। উল্লেখিত পোষ্টে তিনি তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনুকেও অবমাননা করেছেন। তাঁর মতে তথ্যমন্ত্রী নাকি দেশে কয়টা সংবাদ পত্রের রেজি: আছে সে ব্যাপারে সম্পূর্ণ অচেতন। কথাটি অনেকের হাঁসির খোরাকে পরিনত হয়েছে। সচেতন পাঠকমহল হয়তো বেলাল হোসাইনকে আগামীতে তথ্যমন্ত্রীর দায়িত্ব প্রদান করবেন দেশের সংবাদ পত্র পরিসংখ্যানের জন্য(!) বেলাল হোসাইন সাতকানিয়ায় সাংবাদিকতা জগতে একছত্র অধিকার বিস্তার করতে না পেরে অন্যান্য সাংবাদিকদের হেয় করার জন্য নানাবিধ পন্থা অবলম্বনের বিষয়টি এখন সচেতন  মহলের কাছে আলোচনার বিষয় হিসেবে দাঁড়িয়েছে। পাশাপাশি বেলাল হোসাইনের অধ্যজীবনের আন্তরালের  কু-কর্মগুলোও পরিস্পুটিত হচ্ছে। বাইতুল ই

x

Check Also

‘গ্রেটার সিলেট এসোসিয়েশন ইন স্পেন’ নির্বাচনে মুজাক্কির – সেলিম প্যানেল বিজয়ী

জিয়াউল হক জুমন, স্পেন প্রতিনিধিঃ সিলেট বিভাগের চারটি জেলা নিয়ে গঠিত গ্রেটার ...

পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর সাথে পর্তুগাল আওয়ামী লীগের মতবিনিময় সভা

আনোয়ার এইচ খান ফাহিম ইউরোপীয় ব্যুরো প্রধান, পর্তুগালঃ পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মোঃ শাহরিয়ার ...