ব্রেকিং নিউজ
Home | আন্তর্জাতিক | সাগর পথে মালয়েশিয়া রামুতে সক্রিয় দালাল, নিখোঁজ শতাধিক

সাগর পথে মালয়েশিয়া রামুতে সক্রিয় দালাল, নিখোঁজ শতাধিক

স্টাফ রিপোর্টার, ৬ মার্চ, বিডিটুডে ২৪ডটকম : সাগর পথে স্বপ্নের দেশ মালয়েশিয়া যেতে গিয়ে ২ মাসের অধিক সময় ধরে নিখোঁজ রয়েছে রামুর শতাধিক মানুষ। দালাল চক্রের মাধ্যমে এসব হতভাগ্য মানুষ মালয়েশিয়ার উদ্দেশ্যে পাড়ি দেন। এদের মধ্যে জেলে, দিনমজুর ও ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের সংখ্যাই ছিল বেশি। নিখোঁজ সবার বাড়ি উপজেলার খুনিয়াপালং ইউনিয়নের পূর্ব গোয়ালিয়া, পশ্চিম গোয়ালিয়া, দক্ষিণ গোয়ালিয়া এলাকায়।

এসব গ্রামে এখন ঘরে ঘরে চলছে শোকের মাতম । তারা কি বেঁচে আছে না মরে গেছে তা কেউ জানে না। বেঁচে থাকলে তাদের কি পরিণতি হয়েছে সেটাও জানার সুযোগ নেই তাদের।

নিখোঁজদের পরিবার ও ভুক্তভোগীরা জানিয়েছেন, স্থানীয় মীর আহমদের ছেলে জয়নাল আবেদীন, ল্যাং  কালু, মৌলভী সিরাজ, হাজী জাকারিয়া ও দিল মোহাম্মদ প্রকাশ বার্মাইয়া দিলুর নেতৃত্বে একটি দালাল সিন্ডিকেট রয়েছে।

ওই দালাল সিন্ডিকেটের মিথ্যা আশ্বাসে গত ২ মাস আগে পূর্ব গোয়ারিয়াপালং গ্রামের সোলতান আহম্মদের ছেলে আবদু শুক্কুর, হোসেন আহম্মদ, এখলাছ মিয়ার ছেলে ছৈয়দ আলম, বশির আহম্মদের ছেলে ইমাম শরীফ, আবদুল হকের ছেলে মোহাম্মদ উল্লাহ ও কবির আহম্মদের ছেলে বেলাল উদ্দিনসহ শতাধিক লোকজনকে মালয়েশিয়ায় যাত্রা করেছিল। কিন্তু গত ২ মাস ধরে  মালয়েশিয়াগামী লোকজনের কোনো ধরণের খোঁজ না পাওয়ায় তাদের পরিবারে চলছে শোকের মাতম।

তারপরও থেমে নেই স্থানীয় ওই দালাল চক্রের তৎপরতা। প্রতিনিয়ত ওইসব দালাল চক্রের লোকজন তাদের প্রেরিত সব মানুষই মালয়েশিয়ায় পৌঁছে গেছে এমন কথা বলে সাধারণ লোকজনের কাছ থেকে টাকা হাতিয়ে নেয়ারও অভিযোগ পাওয়া গেছে।

অভিযোগে জানা গেছে, সিন্ডিকেটের অধিকাংশ দালাল আত্মগোপনে থাকলেও প্রতিনিয়ত স্থানীয় মীর আহমদের ছেলে জয়নাল আবেদীন পূর্বের ন্যায় আবারো সাধারণ লোকজনকে মালয়েশিয়ায় নেওয়ার কথা বলে মিথ্যা আশ্বাস দিচ্ছে।

ভুক্তভোগী বশির আহম্মদ জানান, দালাল চক্র তার ছেলেকে  মালয়েশিয়া যাওয়ার কথা বলে প্রথমে ২০ হাজার টাকা নেয়। পরবর্তীতে তার ছেলেসহ অন্যান্য লোকজন  মালয়েশিয়ায় পৌঁছে গেছে এমন কথা বলে আরো ৩০ হাজার টাকা নেয়।

তিনি আরো জানান, বর্তমানে দালাল চক্রের কিছু লোকজন আত্মগোপনে আছেন। বাকিরা প্রভাবশালী হওয়ায় তাদের বিরুদ্ধে কিছু করতে পারছেন না তারা।

খুনিয়াপালং ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আবদুল মাবুদ বাংলামেইলকে জানান, এ ব্যাপারে তিনি অবগত হয়েছেন। নিখোঁজদের উদ্ধারে সহযোগিতা ও দালালদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া কথা জানিয়েছেন তিনি।

জানা গেছে, কক্সবাজারের টেকনাফ সীমান্ত কেন্দ্রিক মালয়েশিয়ায় মানব পাচারকারী চক্র সক্রিয় রয়েছে।  তাদের সঙ্গে আঁতাত করে রামু উপজেলার খুনিয়াপালং ইউনিয়নের ওই চক্র তৎপর হয়ে ওঠে। রেজু নদীর মোহনা দিয়ে কাঠের নৌকা করে কয়েকশ’ লোকজনকে মালয়েশিয়ায় নিয়ে যাওয়ার কথা বলে টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে তারা।

x

Check Also

‘গ্রেটার সিলেট এসোসিয়েশন ইন স্পেন’ নির্বাচনে মুজাক্কির – সেলিম প্যানেল বিজয়ী

জিয়াউল হক জুমন, স্পেন প্রতিনিধিঃ সিলেট বিভাগের চারটি জেলা নিয়ে গঠিত গ্রেটার ...

পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর সাথে পর্তুগাল আওয়ামী লীগের মতবিনিময় সভা

আনোয়ার এইচ খান ফাহিম ইউরোপীয় ব্যুরো প্রধান, পর্তুগালঃ পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মোঃ শাহরিয়ার ...