ব্রেকিং নিউজ
Home | ফটো সংবাদ | সংসদের কথা বলে সময় নিলেও সংসদে গেলেন না খালেদা

সংসদের কথা বলে সময় নিলেও সংসদে গেলেন না খালেদা

khalada ziaস্টাফ রিপোর্টার : সংসদ অধিবেশনে ব্যস্ত থাকতে হবে-এ কথা বলে দুটি দুর্নীতি মামলায় অভিযোগ গঠনের শুনানি পেছানোর আবেদন করেছেন বিরোধীদলীয় নেতা বেগম খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা। আইনজীবীদের এই কথা সত্য হলে আজ সংসদে ফেরার কথা ছিল। কিন্তু সংসদে যোগ দিলেন না বিরোধী দলীয় নেতা খালেদা জিয়া।
দুর্নীতি দমন কমিশনের দুটি দুর্নীতি মামলায় এভাবে বারবার নানা কথা বলে আদালত থেকে সময় নিচ্ছেন খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা। এর মধ্যে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় দুর্নীতি দমন কমিশন অভিযোগপত্র জমা দিয়েছে ২০০৯ সালের ৫ আগস্ট। আর জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় দুদক অভিযোগপত্র জমা দিয়েছে ২০১১ সালের জানুয়ারিতে।
এক মামলায় দুই বছর এবং এক মামলায় চারবছর আগে অভিযোগপত্র জমা দিলেও আসামির আইনজীবীদের বারবার আবেদনের কারণে অভিযোগ গঠন না হওয়ায় হতাশ দুর্নীতি দমন কমিশন। কমিশনের আইনজীবী মোশাররফ হোসেন কাজল এ বিষয়ে  বলেন, ‘আমরা নথিপত্র নিয়ে প্রতিবারই তৈরি থাকি। কিন্তু খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা নানা সময় নানা কথা বলে সময় নেন। কখনও তারা রাজনৈতিক কারণ, কখনও অসুস্থতা, কখনও সংসদের কথা বলেন। এখানে আমাদের কিছুই করার থাকে না। আমরা কেবল বলতে পারি, বিচারের বাণী নিভৃতে কাঁদে।
বেশিরভাগ সময় খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা আদালতের কাছে সময় চেয়েছেন সংসদের কথা বলে। রবিবারও আদালতে খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা একই কারণে সময় চান। বিরোধীদলয় নেতার আইনজীবীরা তাদের আবেদনে বলেন, এখন সংসদ অধিবেশন চলছে। তাদের মক্কেল এ নিয়ে ব্যস্ত থাকবেন, তাই তাঁর সময় দরকার।
তাহলে কি বিএনপি আজ সংসদে যোগ দিচ্ছে?- জানতে চাইলে বিরোধীদলীয় চিফ হুইপ জয়নুল আবদিন ফারুক   বলেন, ‘আমরা সংসদে যোগ দিচ্ছি না’। কিন্তু খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা তো সংসদের কথা বলে আদালত থেকে সময় নিয়েছেন-এমন মন্তব্যের জবাবে জনাব ফারুক বলেন, ‘আইনজীবীরা কী বলেছেন, সেটা আমাদের দলের বিষয় না। সেটা চেয়ারপারসনের বক্তব্যও না। আমাদের সংসদে যোগ দেয়ার কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি’।
বিরোধীদলীয় নেতার আইনজীবী মাসুদ তালুকদার বলেন, ‘হ্যা, আমরা সংসদের কথা বলে ম্যাডামের (খালেদা জিয়া) মামলায় সময় নিয়েছি’। কিন্তু বিএনপি তো সংসদে যাচ্ছে না, তারপরও আদালতে এমন বক্তব্য দেয়ার কারণ কী-জানতে চাইলে খালেদা জিয়ার এই আইনজীবী বলেন, ‘আইন অনুযায়ী সংসদ চলাচালে সদস্যদের আদালতে হাজিরা না দিলেও চলবে। আমরা সে জন্যই আবেদন করেছি। এই আবেদনের সাথে বিএনপি সংসদে যোগ দিল কি দিল না তার কোনো সম্পর্ক নাই’।
আইন প্রতিমন্ত্রী কামরুল ইসলাম বলেন, সংসদের কথা বলে আদালত থেকে সময় নিলেও সংসদে না যাওয়া প্রতারণা। তিনি বলেন, তারা সংসদে না গেলেও সব সুযোগ সুবিধা ভোগ করছে, বিদেশে যাচ্ছে। এটা অনুচিত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

দেশের তথ্য দেশে রাখতে ডাটা প্রটেকশন আইন করার কথা ভাবছে সরকার : প্রতিমন্ত্রী পলক

বেনাপোল প্রতিনিধি : দেশের তথ্য দেশে রাখতে ডাটা প্রাইভেসি প্রটেকশন আইন করার কথা ...

রাজবাড়ী কোর্ট হাজতে আসামীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

রাজবাড়ী প্রতিনিধি : রাজবাড়ী কোর্ট হাজত থেকে বৃহস্পতিবার (২৯ অক্টোবর) বিকেলে অস্ত্র ও ...