Home | বিনোদন | টালিগঞ্জের খবর | শুটিং শেষ হয়ে যাওয়ার পরে শুটিং শুরুর অনুমতি
শাকিব-খানভাইজান-এলো-রে-দীপা-খন্দকার-rtvonline-sakib

শুটিং শেষ হয়ে যাওয়ার পরে শুটিং শুরুর অনুমতি

বিনোদন ডেস্ক:  অবাক করা কাণ্ড ঘটিয়ে আবারও বিতর্ক সৃষ্টি করলেন কলকাতার পরিচালক জয়দীপ মুখার্জী। বিভিন্ন গণমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, সদ্য শেষ হয়েছে তার পরিচালনায় ‘ভাইজান এলো রে’ ছবির শুটিং। যেটিতে নায়কের ভূমিকায় রয়েছেন বাংলা চলচ্চিত্রের এই সময়ের সবচেয়ে বড় সুপারস্টার শাকিব খান। তার বিপরীতে রয়েছেন কলকাতার সুপারহিট দুই নায়িকা শ্রাবন্তী ও পায়েল সরকার। ছবিটি প্রযোজনা করেছে সেদেশেরই এসকে মুভিজ।

‘ভাইজান এলো রে’ সম্পূর্ণই কলকাতার একক ছবি। কিন্তু অবাক করা বিষয় হচ্ছে, শুটিং শেষ হয়ে যাওয়ার পরে গত রবিবার বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির কাছে এই ছবির শুটিং শুরুর ব্যাপারে অনুমতি চেয়েছেন পরিচালক জয়দীপ মুখার্জী। অভিনেতা-অভিনেত্রী হিসেবে নাম দিয়েছেন শাকিব খান, শ্রাবন্তী ও পায়েল সরকারের। যেটাকে ‘চালবাজ’-এর পর আরেক চালবাজি হিসেবে দেখছেন দেশের সিনে বিশেষজ্ঞরা। এ প্রসঙ্গে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির মহাসচিব বদিউল আলম খোকন গণমাধ্যমকে জানান, ‘ভাইজান এলো রে’ নামে একটি ছবির শুটিং ইতিমধ্যে শেষ হয়েছে। সেটির শিল্পী শাকিব, শ্রাবন্তী ও পায়েল। শুটিং শেষ করে কীভাবে পরিচালক জয়দীপ মুখার্জী শুটিংয়ের অনুমতি চাইলেন তা আমরা খতিয়ে দেখব।’

খোকন আরও জানান, ‘নিয়ম অনুযায়ী যারা আমাদের পরিচালক সমিতির সদস্য তাদের সিনেমার নাম নিবন্ধন করি। এ জন্য আগে ওই পরিচালককে আমাদের সমিতির সদস্য হতে হয়। জয়দেব মুখার্জী সদস্য হওয়ার জন্য কিছুদিন আগে আমাদের সমিতিতে এসেছিলেন। তিনি আবেদনপত্রও জমা দিয়েছেন। কিন্তু এখনও আমাদের সমিতির সদস্য হননি।’

ভাইজান এলো রে’ ছবির বিভিন্ন চরিত্রে শাকিব, শ্রাবন্তী ও পায়েল ছাড়াও রয়েছেন রজতাভ দত্ত, বিশ্বনাথ, শান্তিলাল মুখার্জী, দীপা খন্দকার ও মুনিরা মিঠু প্রমুখ। আসছে রোজার ঈদে সাফটা চুক্তির আওতায় ছবিটি বাংলাদেশে মুক্তি পাওয়ার কথা রয়েছে। কিন্তু সাম্প্রতিক জটিলতায় দেশের প্রেক্ষাগৃহে শাকিবের এই ছবির মুক্তি শঙ্কার মধ্যেই পড়ে গেল বলে মনে করা হচ্ছে। বাকিটা সময়ই বলে দেবে।

এর আগে শাকিবের ‘চালবাজ’ ছবিটি নিয়েও ‘চালবাজি’ করেছিলেন কলকাতার পরিচালক জয়দীপ মুখার্জী। শুটিং শুরুর সময় থেকেই এই ছবিকে যৌথ প্রযোজনার ছবি হিসেবে প্রচার করা হয়েছিল। কিন্তু ট্রেলার মুক্তির পর জানা যায়, এটি কলকাতার একক ছবি। যার কারণে পহেলা বৈশাখে ছবিটি বাংলাদেশে মুক্তি পাওয়ার কথা থাকলেও নানা জটিলতায় পিছিয়ে যায় তারিখ। শেষমেষ সাফটা চুক্তির আওতায় গত ২৭ এপ্রিল বাংলাদেশের প্রেক্ষাগৃহে আসে শাকিব-শুভশ্রীর ‘চালবাজ’।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

সেনাবাহিনী ইমরান খান এবং তার দল পিটিআইকে সাহায্য করছে

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক : পাকিস্তানের সাধারণ নির্বাচনের এক সপ্তাহ আগে দেশটির অন্যতম প্রধান ...

‘বেশি পাস করলেও অপরাধ, কম পাস করলেও অপরাধ

স্টাফ রিপোর্টার : তিন বছর ধরে নিম্নমুখী পাসের হার। ক্রমাগত কমছে সর্বোচ্চ ...