Home | আই টি | শিক্ষিত তরুণদের ফিউচার আইটি লিডার হিসেবে গড়ে তোলার আহ্বান

শিক্ষিত তরুণদের ফিউচার আইটি লিডার হিসেবে গড়ে তোলার আহ্বান

IMG_1253স্টাফ রিপোর্টার : তথ্যপ্রযুক্তি খাতে সরকারের নানা উদ্যোগ দেশের মানুষের সামনে অপার সুযোগ ও সম্ভাবনা তৈরি করেছে। এ সম্ভাবনাকে কাজে লাগিয়ে বিশ্বদ্যিালয়ের শিক্ষিত তরুণদের আইটি লিডার তৈরিতে উদ্বুদ্ধ করার লক্ষ্যে আয়োজিত এক কর্মশালায় বক্তারা বলেন, তথ্যপ্রযুক্তি খাতে নানা উদ্যোগ দেশের মানুষ বিশেষ করে শিক্ষিত তরুণ-তরুণীদের সামনে উজ্জ্বল সম্ভাবনা তৈরি করেছে। দেশের শিক্ষিত তরুণ-তরুণীরা তথ্যপ্রযুক্তিতে প্রশিক্ষিত হয়ে এ সুযোগকে কাজে লাগাতে পারে এবং সমৃদ্ধশালী দেশ গড়ে তুলতে পারে।

২৪ শে এপ্রিল ইডেন কলেজের অডিটরিয়ামে দেশের শিক্ষিত তরুণ-তরুণীকে আইটিতে ফিউচার লিডার হতে উদ্বুদ্ধ করার শিক্ষার্থীদের জন্য এ কর্মশালার আয়োজন করে লিভারেজিং আইসিটি ফর গ্রোথ, এমপ্লয়মেন্ট অ্যান্ড গভর্নেন্স (এলআইসিটি) প্রকল্প ।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাননীয় সচিব ড. মোহাম্মদ সাদিক উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের নির্বাহী পরিচালক জনাব আশফাক হুসাইন। অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন ইডেন মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর হোসনে আরা।

অনুষ্ঠানে লিভারেজিং আইসিটি প্রকল্পের ফাস্ট ট্রাক ফিউচার লিডার (এফটিএফএল) এর ওপর বিস্তারিত পাওয়ার পয়েন্ট উপস্থাপন করা হয় ।

দেশের আইটি শিল্পের বিকাশের জন্য এ মূহুর্তে সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন দক্ষ মানব সম্পদের। এটা বিবেচনায় নিয়ে সরকার দেশে দক্ষ মানব সম্পদ তৈরির জন্য বিভিন্ন উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। এ উদ্যোগের মধ্যে অন্যতম এলআইসিটি প্রকল্প দেশে ৩৪ হাজার বিশ্বমানের দক্ষ মানব সম্পদ তৈরি করবে। এরমধ্যে বেশ কয়েক হাজারকে ফাস্ট ট্রাক ফিউচার লিডার (এফটিএফএল) হিসেবে গড়ে তোলা হবে।

আইটি বা যে কোন বিষয়ে স্নাতক, এমবিএ, বিবিএ, বিকম, বিএস এবং প্রকৌশলে ডিপ্লোমা রয়েছে এমন তরুণ-তরুণীদের ভবিষ্যৎ আইটি লিডার হিসেবে গড়ে তোলার জন্য সরকার কার্যক্রম শুরু করেছে। চারটি  ট্রাকে ৬ মাসের প্রশিক্ষণ দিয়ে  কয়েক হাজার ফাস্ট ট্রাক ফিউচার আইটি লিডার (এফটিএফএল) তৈরি করা হবে। আইটি প্রতিষ্ঠানের চাহিদা অনুযায়ী পর্যায়ক্রমে এদের চাকুরিতে নিয়োগ দেয়া হবে। প্রথম পর্যায়ে অনলাইনে প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষার মাধ্যমে ফাস্ট ট্রাক ফিউচার আইটি লিডারদের (এফটিএফএল)বাছাই করা হবে। বাছাইয়ের পরই এদের ঢাকায় দুই মাস বিশেষায়িত প্রশিক্ষণ এবং সবশেষে আইটি ইন্ডাস্ট্রিগুলোতে তিন মাস প্রশিক্ষণ দেয়া হবে। প্রশিক্ষণ শেষ হলে আইটি প্রতিষ্ঠানগুলো এদের ভালো বেতনে চাকুরিতে নিয়োগ দেবে। তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান বা কোম্পানির বিশেষজ্ঞরা এসব  প্রশিক্ষণার্থীদের প্রশিক্ষণ দেবেন। প্রশিক্ষণের জন্য মনোনীতদের ভাতা হিসেবে একটা নির্দিষ্ট পরিমান অর্থ দেবে এলআইসিটি প্রকল্প।

প্রধান অতিথি ড. মোহাম্মদ সাদিক ইডেন মহিলা কলেজের শিক্ষার্থীদের সম্ভাবনাময় আইটিখাতে নিজেদের ক্যরিয়ার বেছে নিয়ে নিজেদের ফাস্ট ট্রাক ফিউচার লিডার (এফটিএফএল) হবার আমন্ত্রণ জানান।   বিশেষ অতিথি বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের নির্বাহী পরিচালক জনাব আশফাক হুসাইন ইডেন মহিলা কলেজের শিক্ষার্থীদের ফিউচার আইটি লিডার হওয়ার জন্য রেজিস্ট্রেশন ও প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষায় অংশ নেওয়ার আহ্বান জানান। অনুষ্ঠানের সভাপতি ইডেন মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর হোসনে আরা দেশের আইটিখাতের বিকাশে ফাস্ট ট্রাক ফিউচার লিডার (এফটিএফএল) এর সফলতা কামনা করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

এপ্রিলেই বন্ধ হয়ে যাচ্ছে Windows XP-র সিকিউরিটি আপডেট!

প্রযুক্তি ডেস্ক : সারা বিশ্বে তুমুল জনপ্রিয় অপারেটিং সিস্টেমের নাম উইন্ডোজ এক্সপি ...

বগুড়া পলিটেকনিক ইন্সটিটিউটে মোবাইল অ্যাপস উন্নয়ন কর্মশালা

স্টাফ রিপোর্টার : শেষ হলো বগুড়া পলিটেকনিক ইন্সটিটিউটে পাঁচ দিন ব্যাপি অ্যান্ড্রয়েড ...