ব্রেকিং নিউজ
Home | বিবিধ | স্বাস্থ্য | শাহজাদপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স চিকিৎসা সেবা ভেঙ্গে পড়েছে

শাহজাদপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স চিকিৎসা সেবা ভেঙ্গে পড়েছে

11111111রাম চন্দ্র সাহা মিলন : শাহজাদপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সহ সকল ইউনিয়ন উপস্বাস্থ্যকেন্দ্রের চিকিৎসাসেবা কার্যক্রম ভেঙ্গে পড়েছে। জানা যায় চিকিৎসকের অভাবে এই অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে।
হাসপাতাল  একটি সূত্র  থেকে জানা যায় স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সের অবেদনবিদ পদটি শূণ্য হয়ে পড়ায় দীর্ঘ প্রায় চারমাস ধরে মাতৃস্বাস্থ্য ভাউচার (ডিএসএফ) প্রকল্পের আওতায় প্রসূতি মাতাদের (সিজারিয়ান) অপারেশন বন্ধ হয়ে গেছে। অপর দিকে কর্মরত চিকিৎসকগন সঠিক ভাবে দায়িত্ব পালন না করায় চিকিৎসা সেবা না পেয়ে রোগীরা ফিরে যেতে বাধ্য হচ্ছে। বিষয়টি নিয়ে উর্ধতন কর্তৃপক্ষর নিকট অভিযোগ করা হলেও এ বিষয়ে কোন ব্যবস্থাই গ্রহন না করার অভিযোগ উঠেছে।
শাহজাদপুর উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্স সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার প্রায় ছয় লাখ জনবসতির জন্য স্বাস্থ্যকমপ্লেক্স একটি পৌরসভা সহ ১৩ টি ইউনিয়নের  ৮টি উপ-স্বাস্থ্যকেন্দ্র মিলে মোট ২৩ টি চিকিৎসকের পদ রয়েছে। এর মধ্যে ৭ জন কর্মরত এবং ১৬টি পদই শূণ্য রয়েছে। অবেদনবিদ পদটি গত ৩০ জুন থেকে শূণ্য হয়ে যাওয়ায় ডি এস এফ প্রকল্পের আওতায় প্রসূতিমাতার সিজারিয়ান অপারেশন বন্ধ হয়ে রয়েছে। ফলে এই প্রকল্পের কার্যক্রম দারুন ভাবে ব্যহত হচ্ছে। এ ছাড়াও আবাসিক চিকিৎসক পদ (আরএমও), জুনিয়ার কনসালটেন্ট মেডিসিন পদটি শূণ্য হয়ে পরেছে। জুনিয়ার কনসালটেন্ট গাইনী ও সার্জিকাল পদে চিকিৎসক থাকলেও অভিযোগ রয়েছে এরা সবাই পালাক্রমে দায়িত্ব পালন করায় রোগীরা চিকিৎসা সেবা প্রাপ্তি থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। নৈশ প্রহরী ও ঝাড়–দার মিলে ৬টি পদ থাকলেও সবগুলো পদ শূণ্য রয়েছে। স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সের এ্যম্বুলেন্সটি গত ২৮ ফেব্র“য়ারী হরতাল চলাকালিন সময়ে হরতালকারিরা অগ্নিসংযোগ করে পুড়িয়ে দেয়ার পর থেকে রোগী পরিবহন বন্ধ রয়েছে।
চিকিৎসা সেবা নিতে আসা তালগাছী গ্রামের জেসমিন বেগম জানালেন, গাইনী চিকিৎসকের কাছে এসেছিলাম। তাকে না পেয়ে বাধ্য হয়ে ফিরে গেলাম। একই কথা জানালেন উপস্থিত রোগীদের মধ্যে মরিয়ম বেগম ও জোৎসনা খাতুন। বেতিকান্দি ইউনিয়নের পরিবার কল্যান পরিদর্শিকা তসলিমা খাতুন জানালেন, স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে দরিদ্র প্রসূতিমাতাদের জন্য সরকারী ভাবে ডিএসএফ প্রকল্পটি চালু থাকলেও এটি তাদের উপকারে আসছেনা। কোন গর্ভবতি মাতার সন্তান প্রসবে জটিলতা দেখা দিলে চিকিৎসক নেই বলে তাদেরকে বাইরের ক্লিনিকে পাঠিয়ে দেয়া হয়। সেখানে এই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসকরাই অর্থের বিনিময়ে চিকিৎসা করে থাকেন।
শাহজাদপুর পৌরসভার কাউন্সিলার জাহিদ হাসান অভিযোগ করে বলেন, স¤প্রতি দুজন শিশু পানিতে পড়ে আহত হলে তাদেরকে এই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আনা হয়। সে সময় একজন চিকিৎসক না পাওয়ায় চিকিৎসা না পেয়ে দুজনই মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে। এ ঘটনায় ভাংচুর হলেও চিকিৎসকদের লজ্জা হয়নি। এর পরেও চিকিৎসকরা নানা অজুহাত দেখিয়ে অনুপুস্থিত থাকছেন। সবাই ঢাকা এবং বাইরের ক্লিনিকে প্রাইভেট প্যাকটিস করছেন। যে কারনে সাধারন জনগন তাদের চিকিৎসা সেবা প্রাপ্তি থেকে বঞ্চিত হচ্ছে।
কর্তব্যরত চিকিৎসক মোঃ সাইফুল ইসলাম জানান, আবাসিক পদটি শূণ্য হওয়ায় ভারপ্রাপ্ত হিসেবে দায়িত্ব পালন করছি। দুজন চিকিৎসক সারাদিন রোগী দেখতে দেখতে হিমসিম খেতে হচ্ছে। তবে বিশেজ্ঞ চিকিৎসকের পদে চিকিৎসক না থাকায় আমরাই যোগদান করে কাজ চালিয়ে যাচ্ছি।
এ বিষয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য ও প.প কর্মকর্তা মোঃ আব্দুল আওয়াল জানান, ইউনিয়ন পর্যায়ের একজন ব্যাতিত সকল চিকিৎসক তদবির করে কেউ প্রেষনে  কেইবা বদলি হয়ে  চলে গেছে। যে কারনে ইউনিয়ন পর্যায়ের উপ-স্বাস্থ্যকেন্দ্রগুলোর পদ প্রায় শূন্য হয়ে গেছে। স্বাস্থ্যকমপ্লেক্ষের অবেদনবিদ সহ সকল শূণ্যপদগুলো পূরন করার জন্য উর্ধতন কর্তৃপক্ষের নিকট পত্র প্রেরন করা হয়েছে। চিকিৎসকের অভাবে চিকিৎসা সেবা কিছুতা ব্যহত হচ্ছে বলে তিনি স্বীকার করেন।
সার্বিক বিষয়ে সিরাজগঞ্জের সিভিল সার্জন মোঃ মাইন উদ্দীন মিয়া ছুটিতে জানান, চিকিৎসকদের ঘন ঘন অনুপুস্থিতির বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে। এ বিষয়ে তাদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। এ ছাড়াও শূণ্য পদগুলো পূরনের জন্য চিকিৎসক চেয়ে স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয় ও স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহা-পরিচালক বরাবর পত্র প্রেরন করা হয়েছে। চিকিৎসক যোগদান করলে যত দ্রুত সম্ভব ডিএসএফ প্রকল্পর অধিনে সিজারিয়ান অপারেশন চালু করা হবে।
হাসাপাতালের একটি সূত্র জানায় কিছুদিন পূর্বে রাজশাহী বিভাগীয় স্বাস্থ্যে পরিচালক ডাঃ মোঃ আশরাফুজ্জামান শাহাজাদপুর হাসপাতালে পরিদর্শনে  করে কর্মকর্তা কর্মচারী অনউপস্থিত পেয়ে ৬জনকে শোকজ করেছেন ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

চিকিৎসকরা হিমশিম ডেঙ্গু রোগীর চাপে

ডেস্ক রির্পোট : রাজধানীতে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে তানিয়া সুলতানা নামে এক ...

ডেঙ্গুতে ঢাবি শিক্ষার্থীর মৃত্যু

ডেস্ক রির্পোট : ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে এবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিন্যান্স বিভাগের ২০১৩-১৪ ...