ব্রেকিং নিউজ
Home | বিবিধ | আইন অপরাধ | শরীয়তপুরের জাজিরায় যুবলীগ নেতার ঘরে রাখা বোমা বিস্ফোরিত হয়ে ঘর পুড়ে ছাই ॥

শরীয়তপুরের জাজিরায় যুবলীগ নেতার ঘরে রাখা বোমা বিস্ফোরিত হয়ে ঘর পুড়ে ছাই ॥

shariatpur pic (3) মোঃ আবুল হোসেন সরদার ,শরীয়তপুর প্রতিনিধি : জাজিরার বিলাসপুরে  এক যুবলীগ নেতার বাড়িতে রাখা ককটেল বিস্ফোরিত হয়ে আগুনে পুরো ঘর পুড়ে গেছে বলে অভিযোগ পাওয়াগেছে ্।  স্থানীয় লোকজনের সহায়তায় আগুন নিয়ন্ত্রন করা হয়েছে। এ ঘটনায় এলাকায় আতংক বিরাজ করছে।এলাকাবসি বোমা বিস্ফোরনের কথা বললে ও বাড়ির লোকজন  ককটেল বিস্ফোরনের কথা অস্বীকার করছেন। তবে এ ঘটনায়  কেউ হতাহত হয়নি। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে  এলাকা পরিদর্শন করে ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত  পুলিশ মোতায়েন করেছে।
সরেজমিন ঘুরে ও স্থানীয় সূত্রে জানাগেছে,জাজিরা উপজেলা বিলাসপুর জানখা’র কান্দি গ্রামে জাজিরা উপজেলা  যুবলীগের নেতা  স্বপন খার বাড়িতে শনিবার দুপুর অনুমান ১টায়  ঘরের সাথে পাটখড়ির উপরে রাখা ককটেল রৌদ্রের তাপে বিস্ফোরিত হয়ে আগুন ধরে গিয়ে একটি টিনের দোচালা ঘর সহ ঘরের মালামাল পুড়ে ছাই হয়ে যায়। ককটেল বিস্ফোরনের শব্দ শুনে আশে পাশের লোকজন এসে অনেক চেষ্টা করে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনে। ঘটনার সংবাদ শুনে জাজিরা থানার পুলিশ ১ ঘন্টা পরে ঘটনাস্থলে পৌছায়। ততক্ষনে সব কিছু পুড়ে ছাই হয়ে যায়। সেখান থেকে পুলিশ কোন আলামত উদ্ধার করতে পারেনি। প্রত্যক্ষদর্শীরা ককটেল বিস্ফোরনের কথা বললে ও  স্বপন খান বলছেন চুলা থেকে আগুন লেগে ঘর পুড়ে গেছে। অথচ ঘটনাস্থলে গিয়ে পুলিশ ও সাংবাদিকরা অনেক খোজাখুজি করে ও ঘরে চুলার কোন চিহ্ন পায়নি। এলাকাবাসি বলছেন স্বপন খা শরীয়তপুর-১ আসনের এমপি বি এম মোজাম্মেল হক এর  ভাগ্নির ছেলে নাতি বনে জাজিরা থানা পুলিশ কোন মন্তব্য করতে রাজি হয়নি। উল্লেখ থাকে যে, মাত্র ১সপ্তাহ পূর্বে একই এলাকার সারেং কান্দি  সেরু খা/ শফিখার বাড়িতে ককটেল বানাতে গিয়ে ককটেল বিস্ফোরনে ২ যুবলীগ কর্মী গুরুতর আহত হয়। এ ঘটনায় জাজিরা থানা পুলিশ কোন  মন্তব্য করেনি এবং মামলা নেয়নি। এ ছাড়া গত বুধবার দিবাগত রাতে একই এলাকার মুলাই বেপারী কান্দি গ্রামে ফারুক হাওলাদার , সামচেল হক হাওলাদার ও রাজ্জাক হাওলাদার এর বাড়িতে গভীর রাতে হামলা চালিয়ে একই দলীয় ক্যাডার বাহিনীরা ৫/৬টি ঘর কুপিয়ে ও ভাংচুর করে বসত করার অযোগ্য করে ফেল্ েএ সময় সন্ত্রাসীরা  ঐ সব ঘর থেকে নগদ টাকা ও স্বর্ণালংকার সহ প্রায় ১০ লাখ টাকার মালামাল লুটে নিয়ে যায়। এ ঘটনার পর ঐ সব বাড়ির লোকজন গ্রাম ছেড়ে ভয়ে অন্যত্র চলে গেছে। এ ঘটনায় জাজিরা থানায় কোন মামলা নেয়নি। ফলে সন্ত্রাসী ক্যাডাররা পুলিশের আসকারা পেয়ে দিনে দিনে একটার পর একটা ঘটনা ঘটিয়ে চলছে।  এ কারনে এলাকার সাধারন মানুষ চরম আতংকের মধ্যে বসবাস করছে।
যুবলীগ নেতা স্বপন খান বলেন, ঘটনার সময় আমি উপজেলা সদরে ছিলাম। আমার স্ত্রী আমাকে জানানোর পরে বাড়ি গিয়ে দেখি আগুন লেগে ঘর পুড়ে গেছে। বর্তমান এমপি বিএম মোজাম্মেল হক আমার নানা।
জাজিরা জানখা’র কান্দি গ্রামের কাজল খা’র স্ত্রী রেবেকা সুলতানা বলেন, বেলা অনুমান ১টায় আমরা বোমা বিস্ফোরনের মত বিকট শব্দ শুনতে পাই। এ সময় আমরা ঘর থেকে বের হয়ে দেখি স্বপন খার বাড়িতে  ধাউ ধাউ করে আগুন জলছে। আমরা গিয়ে চেষ্টা করে আগুন নিভাই।
জানখার কান্দি গ্রামের  (পাশের বাড়ির)সজীব খান বলেন , আমি ঘুমে ছিলাম। হঠাৎ কিট শব্দ শনে জেগে উঠে দেখি স্বপন খানের বাড়িতে আগুন জ্বলছে।
জাজিরা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা  ওসি নাজমুল ইসলাম বলেন,জাজিরা জানখা’র কান্দি গ্রামে  স্বপন খার বাড়িতে ককটেল বিস্ফোরনে ঘর পুড়ে যাওয়ার খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনা স্থলে গিয়ে কোন ককটেল এর  আলামত পাওয়া  যায়নি। তবে এলাকায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।
ছবির ক্যাপশনঃ জাজিরা জানখা’র কান্দি স্বপন খার বাড়িতে  রাখা ককটেল বিস্ফোরিত হয়ে এ ঘরটি পুড়ে ছাই হয়ে যায়।

মোবাইল ০১৭১১০৪৬৪২১
তারিখ ২১-০৯-১৩

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

মদনে সরকারি নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে অবাধে মাছ শিকার

সুদর্শন আচার্য্য, মদন (নেত্রকোণা) ঃ নেত্রকোণার মদনে তিয়শ্রী ইউনিয়নের তিয়শ্রী বাজারের পাশে ...

মদনে অবৈধভাবে চলছে মাছ শিকারের মহোৎসব

সুদর্শন আচার্য্য, মদন (নেত্রকোণা) : নেত্রকোণা মদন উপজেলার মাঘান ইউনিয়নের নয়াপাড়া ও ...