Home | খেলাধূলা | লিটন-মিথুন তাণ্ডবে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৩২১

লিটন-মিথুন তাণ্ডবে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৩২১

ক্রীড়া ডেস্ক : লিটনের সেঞ্চুরি, মিথুনের হাফ সেঞ্চুরি এবং অন্যদের ছোট ছোট অবদানের উপর ভর করে জিম্বাবুয়ের বড় লক্ষ্য দিলো বাংলাদেশ। রবিবার তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের প্রথম ম্যাচে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৬ উইকেটে রান সংগ্রহ করেছে টাইগাররা।

ওপেনিংয়ে নেমে দারুণ খেলছেন লিটন দাস। ৪৫ বলে তুলে নিয়েছিলেন ব্যক্তিগত অর্ধশত। পরের ৫০ রান করতে তিনি খেললেন ৫০ বল। অর্থাৎ, ৯৫ বলে ওয়ানডে ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় সেঞ্চুরি পূর্ণ করলেন বাংলাদেশের এই প্রতিভাবান ব্যাটসম্যান। এর আগে ২০১৮ সালের ২৮ সেপ্টেম্বর দুবাইয়ে ভারতের বিপক্ষে ওয়ানডে তথা আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরি করেছিলেন লিটন।

ব্যাটিংয়ে নেমে তামিম-লিটনের ব্যাটে সতর্ক শুরু করে বাংলাদেশ। তামিম ধীরে এগোলেও লিটন রানের গতি সচল রেখেছিলেন। ওপেনিং জুটিতে পার্টনারশিপ হয় ৬০ রানের। ১৩তম ওভারে মাধিভিরের বলে এলবিডব্লিউ হন তামিম। ৪৩ বল খেলে তিনি করেন ২৪ রান।

ওয়ানডাউনে নেমে লিটনের সঙ্গে ৮০ রানের জুটি গড়ে বিদায় নেন নাজমুল হোসেন শান্ত। ২৬তম ওভারে মুতোমবোদজির বলে এলবিডব্লিউ হন তিনি। ৩৮ বলে শান্ত করেন ২৯ রান।

কয়েকদিন আগে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে মিরপুর টেস্টে ডাবল সেঞ্চুরি করেছিলেন মুশফিকুর রহিম। কিন্তু তিনি এই ম্যাচে সুবিধা করতে পারেননি। ২৬ বলে ১৯ রান করে প্যাভিলিয়নের পথ ধরেন তিনি। দলীয় ১৮২ রানে তিরিপানোর বলে উইকেটরক্ষকের হাতে ক্যাচ হন এই টাইগার ব্যাটসম্যান।

সেঞ্চুরির পর যেন বিধ্বংসী হয়ে ওঠেন লিটন। ইনজুরিতে না পড়লে হয়তো খেলতে পারতেন আরো বড় ইনিংস। ৩৭তম ওভারে স্লগ সুইপ করে মিড-উইকেট দিয়ে বড় একটি ছক্কা হাঁকান লিটন। কিন্তু এই ছক্কা হাঁকাতে গিয়েই ইনজুরিতে আক্রান্ত হন তিনি। পরে আর খেলতে পারেননি একটি বলও। খুঁড়িয়ে খুঁড়িয়ে মাঠ ছাড়তে হয় এই টাইগার ওপেনারকে।

লিটন মাঠ ছাড়লে রিয়াদের সঙ্গে জুটি বাঁধেন মিথুন। এই জুটিটি ভালো জমেছিল। তারা দুজন ৬৮ রানের পার্টনারশিপ করেন। দলীয় ২৭৪ রানে এমপোফুর বলে এলবিডব্লিউ হন রিয়াদ। ২৮ বলে ৩২ রানের কার্যকরী ইনিংস খেলেন তিনি।

৪৮তম ওভারে ব্যক্তিগত অর্ধশত পূরণ করেন মোহাম্মদ মিথুন। কিন্তু হাফ সেঞ্চুরি করার পরের বলেই তিনি আউট হয়ে যান। পরের দিকের ব্যাটসম্যানরা দলের স্কোর আরেকটু বাড়িয়ে ৩০০ পার করে দেন।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

(লিটন ১২৬, তামিম ২৪, শান্ত ২৯, মুশফিক ১৯, মাহমুদউল্লাহ ৩২, মিথুন, সাইফউদ্দিন; এমপোফু, মুম্বা, মাধিভিরে, তিরিপানো, সিকান্দার ০/৫৬, মুতোমবোদজি)।

No comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

মন্ত্রিসভায় বৈষম্যবিরোধী আইনের খসড়ার অনুমোদন

স্টাফ রিপোর্টার: মানবাধিকার লঙ্ঘন প্রতিরোধে বৈষম্যবিরোধী আইন, ২০২২-এর খসড়ার নীতিগত ও চূড়ান্ত ...

পার্বত্য অঞ্চল হবে সম্পদ শান্তিতে সমৃদ্ধ: পরিকল্পনামন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার: পার্বত্য চট্টগ্রামের সম্প্রীতি, সম্ভাবনা ও উন্নয়নের বিষয়টি বেশ জটিল, তবে ...