ব্রেকিং নিউজ
Home | সারা দেশ | লক্ষ্মীপুর পল্লী বিদ্যুতের ঠিকাদারের অবহেলায় রামগতি ৩৩ হাজার ভোল্টেরলাইনে কালুহাজী রোডের রুহুল আমিন সিকদার সহ তিন বাসার গাছে আগুন॥

লক্ষ্মীপুর পল্লী বিদ্যুতের ঠিকাদারের অবহেলায় রামগতি ৩৩ হাজার ভোল্টেরলাইনে কালুহাজী রোডের রুহুল আমিন সিকদার সহ তিন বাসার গাছে আগুন॥

09মোঃ মাকছুদুর রহমান জিসান, লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি : গত ১৪ সেপ্টেম্বর’১৩ইং শনিবার মাগরিবের পর সন্ধ্যায় সাড়ে ৭ঘটিকায় হঠাৎ করে রুহুল আমিন সিকদারের বাসা সহ আশে পার্শে¦র আরো তিন বাসার ফলগাছ গুলো আগুন জ্বলতে দেখা যায়। এমতাবস্থায় বাসার পুরুষ-মহিলা ও শিশুরাও ভয়ে বাসা হতে বাহির হয়ে রাস্তায় চলে আসে এবং গাছে আগুনের কারণ অনুসন্ধানে দেখা যায়, পৌর শিশুপার্ক এর উপর দিয়ে রামগতির ৩৩ হাজার ভোল্টের বিদ্যুৎ লাইনের কারনে এ আগুনের সূত্রপাত ঘটে। এ লাইনটি নিরাপদ নয় মনে হলেও পৌর শিশুপার্কের উপর হইতে লাইনটি পার্কের দিক দিয়ে স্থানান্তর করার সময় পুরানো লাইনটি খুলে ফেলে এবং খালের উত্তর পাড়ে একটি ও দণি পাড়ে একটি নতুন খুঁটি দেয় এতে করে নতুন খুঁটির দেিনর খুঁটির তার গুলো আরো দেিণ সরে যায় এবং তার গুলো দেিণ সরার কারনে তারগুলো বাসা বাড়ির মধ্যে থাকা ফলগাছের উপর পড়ে থাকে এবং খালের দণি পাড়ের নতুন খুঁটির পর দুইটি টাওয়ারের দূরত্ব আনেক বেশী হওয়ায় ও তারগুলো ঝুলে থাকে। এমতাবস্থায় ঠিকাদার কাজ শেষ করে দেিণর টাওয়ারের তার গুলোর অবস্থা না দেখে ঝুলানো তারগুলোতে ৩৩ হাজার ভোল্টের রামগতির লাইনটিতে বিদ্যুৎ চালু করে দিলেই সাথে সাথে সেইখানে আগুন ধরে যায়।  এ সময় এলাকাবাসী মানুষ পল্লী বিদ্যুৎ এর সাথে  ৫৫২৬৭ ও ৫৫৫৯৫ নম্বর ফোনে বার বার যোগাযোগ করার চেষ্টা করেও কাউকেও পাওয়া যায় নাই। পরবর্তীতে পি.ডি.পি. সাবএসটেন ইঞ্জিনিয়ার কে পাওয়া গেলে তাঁহার মাধ্যমে পল্লী বিদ্যুৎ কর্মকর্তাকে জানানো সম্ভব হয় এবং লাইনম্যান বাহার ও এ.জি.এম এবং কর্মকর্তা আরিফ হোসেন ঘটনা স্থলে আসে এবং তাহাদের আন্তরিকতায় রাতের অন্ধকারে ৩ ঘন্টা লাইন বন্ধ করে কাজ করে বাসা বাড়ি ও ফল গাছ হইতে ঝুলন্ত তারগুলি টানিয়া ৪/৫ফুট উপরে উঠিয়ে দেয়। এতে জনমনের ভয় কাটলেও সরজমিনে দেখা যায়, খালের দণি পাড়ের নতুন খুঁটির দেিনর টাওয়ার দুইটির দূরত্বের কারনে তারগুলো এখনো অনেকটা ঝুকিপূর্ণ অবস্থায় রয়েছে। এতে করে টাওয়ার দুইটির সমান মধ্যখানে আর একটি বড় খুঁটি না দিলে যেই কোন সময়ে এর চেয়ে ও বড় ধরনের দুর্ঘটনা হতে পারে এবং জনগনের প্রত্যাশা যে, গত দুই বৎসর পূর্বের শিশুপার্ক এর উপর হতে নিরাপত্তার কারনে ৩৩ হাজার ভোল্টের রামগতির লাইনটি সরানো সম্ভব হলে মানুষের নিরাপত্তার কথা চিন্তা করে রামগতির ৩৩ হাজার ভোল্টের লাইনটি সরিয়ে নিরাপদ যে কোন স্থান দিয়ে স্থাপন করা ও সম্ভব।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

মদনে সরকারি নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে অবাধে মাছ শিকার

সুদর্শন আচার্য্য, মদন (নেত্রকোণা) ঃ নেত্রকোণার মদনে তিয়শ্রী ইউনিয়নের তিয়শ্রী বাজারের পাশে ...

মদনে অবৈধভাবে চলছে মাছ শিকারের মহোৎসব

সুদর্শন আচার্য্য, মদন (নেত্রকোণা) : নেত্রকোণা মদন উপজেলার মাঘান ইউনিয়নের নয়াপাড়া ও ...