Home | বিবিধ | আইন অপরাধ | রুনা হত্যার ঘাতক স্বামী পালিয়ে যাওয়ার সময় পুলিশের হাতে আটক, হত্যার দায় স্বীকার

রুনা হত্যার ঘাতক স্বামী পালিয়ে যাওয়ার সময় পুলিশের হাতে আটক, হত্যার দায় স্বীকার

চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি : চুয়াডাঙ্গার জীবননগরে স্ত্রীকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে ভারতে পালিয়ে যাওয়ার সময় পুলিশ  ঘাতক স্বামীকে  সুজন কে আটক করতে সক্ষম হয়েছে।
 জানা যায়, পারিবারিক দ্বন্দের কারনে রাগের বশবর্তী হয়ে নাক মুখ ও গলা টিপে শ্বাসরোধ করে  রুনাকে হত্যা করেছে  বলে পুলিশের কাছে স্বীকারোক্তি দিয়েছে সুজন।
পুলিশের প্রথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সুজন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে।  সে জানিয়েছে বাড়ি ছেড়ে  স্ত্রীকে নিয়ে অন্যত্র বাসা ভাড়া করে থাকার কারনে স্বামী এবং স্ত্রীর মধ্যে বনাবনি হত না। প্রায়ই সময় বিভিন্ন কারনে তাদের দাম্পত্য জীবনে ঝগড়া বিবাদ লেগেই থাকতো। এমতাবস্থায় আজ সকাল (২৫ অক্টোবর)  তার সাথে আমার ঝগড়া হয়। এজন্য এক পর্যায়ে রাগের বশবর্তী হয়ে তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা পরিকল্পনা করি এবং পরবর্তীতে বাড়িতে লোকজনের আনাগোনা দেখে কৌশলে তাকে হত্যা করে ভারতে পালিয়ে যাওয়ার  সিদ্ধান্ত নেই।
এঘটনার বিবরনে  সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মো আবু রাসেল (দামুড়হুদা সার্কেল) বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারি রুনা হত্যার ঘাতক স্বামী ট্রাক চালক সুজন ঝিনাইদহ মহেশপুর উপজেলার গুড়দাহ সীমান্ত দিয়ে ভারতে পালিয়ে যাচ্ছে। এমতাবস্থায় আমি  জীবননগর থানার অফিসার ইনচার্জ শেখ গনি ও তদন্ত ওসি মোল্লা সেলিম, ও এস আই সিরাজুল আলম সহ সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে গুড়দাহ সীমান্তে অভিযান চালায় এবং রুনা হত্যাকারীকে আটক করতে সক্ষম হয়।
তিনি জানান রুনার হত্যার বিষয়টি নিয়ে আমরা প্রথমিক জিজ্ঞাসাবাদ করেছি।  এ বিষয়ে সুজন রুনা হত্যার কথা স্বীকার করেছে। আগামীকাল তাকে জেল হাজতে পাঠানো হবে।  এবং রুনার লাশের ময়না তদন্ত শেষে তাদের পরিবারের নিকট লাশ হস্তান্তর করা হবে জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

রানা প্লাজা ধস : ফুল দিয়ে নিহতদের স্মরণ

স্টাফ রিপোর্টার : সাভারে রানা প্লাজা ধসের ছয় বছর পূর্তি উপলক্ষে অস্থায়ী ...

দিনাজপুরে পরিবেশের পরমবন্ধু ৯টি শকুন অবমুক্ত

দিনাজপুর প্রতিনিধি : প্রায় বিলুপ্ত হতে যাওয়া পরিবেশের পরমবন্ধু ৯চি শকুন উদ্ধার ...