Home | সারা দেশ | রাণীনগরে প্রধান শিক্ষকের সংবাদ সম্মেলন

রাণীনগরে প্রধান শিক্ষকের সংবাদ সম্মেলন

রাণীনগর (নওগাঁ)প্রতিনিধি : নওগাঁর রাণীনগরে পৈতিক সূত্রে পাওয়া জায়গাকে হাটের জায়গা উল্লেখ করে ব্যক্তি কেন্দ্রীক সংবাদ প্রকাশিত হওয়ার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করেছেন রাণীনগর উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আবুল কালাম আজাদ। বিভিন্ন স্থানীয় ও জাতীয় পত্রিকা এবং অনলাইন নিউজ পোর্টালে ওই প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে উদ্দেশ্য মূলক প্রকাশিত সংবাদ মিথ্যা, বানোয়াট ও ভিত্তিহীন দাবি করে এবং তার মানহানি করার অভিযোগে বৃহস্পতিবার সকাল ১০ টায় রাণীনগর প্রেস ক্লাব ভবনে তিনি সংবাদ সম্মেলন করেন।
রাণীনগর বাজারের মৃত আফছার আলী প্রামানিকের ছেলে রাণীনগর উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো: আবুল কালাম আজাদ সংবাদ সম্মেলনে বলেন, রাণীগর বাজারের বালুভরা মৌজা যাহার জেএল নং ৩৬, খতিয়ান নং ৫৭, হাল দাগ নং ১৫৬৩, জমির পরিমান ৪৫ শতক। উক্ত জায়গার উপর তার নিজস্ব বাসা রয়েছে এবং ৬ টি টিন সেটের ঘর নির্মান করে ভাড়া দেওয়া রয়েছে। এছাড়াও বাসার বেশ কিছু জায়গা ফাঁকা রয়েছে। উক্ত ফাঁকা জায়গায় প্রাচীর নির্মানের কাজ শুরু করলে প্রতিবেশি রমজান আলী, আনছার আলী ও মৃত সিরাজের স্ত্রীসহ বেশ কয়েকজন লোক রাস্তার জায়গা নিবে মর্মে উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর লিখিত অভিযোগ দাখিল করে। তাদের লিখিত অভিযোগের প্রেক্ষিতে উপজেলা নির্বাহী অফিসার সোনিয়া বিনতে তাবিব নিজেই জায়গাটি পরিদর্শনে আসেন এবং পরের দিন সার্ভিয়ার কে পাঠিয়ে জায়গা মাপ-যোগ করে হাত নকশা করে নিয়ে যায়। প্রতিবেশিদের চলাচলের জন্য পর্যাপ্ত পরিমান জায়গা থাকায় আমাকে প্রাচীর নির্মানের অনুমতি দেয় নির্বাহী অফিসার। এরই মধ্যে কিছু বখাটে লোকজন আমার পৈত্রিক সম্পত্তি ও দখলীয় জায়গাকে হাটের জায়গা বলে অপপ্রচার চালাতে থাকে।
অপপ্রচার চলাকালে স্থানীয় এবং জেলা শহর থেকে কতিপয় সাংবাদিকরা জায়গা পরিদর্শনে আসে। সেখানে আমার পৈত্রিক জায়গার কাগজপত্র সাংবাদিক ভাইয়েরা না দেখে, না বুঝে কতিপয় চালবাজদের মৌখিক কথার উপর ভিত্তি করে প্রধান শিক্ষক এবং সুনামধন্য তার কর্মপ্রতিষ্ঠানের নাম ব্যবহার করে হাটের জায়গা দখল করেছে মর্মে বিভিন্ন স্থানীয়,জাতীয় ও অনলাইন নিউজ পোর্টালে “রাণীনগরে হাটের জায়গা দখলের অভিযোগ, প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে” শীর্ষক শিরোনামে গত ২০ মে প্রকাশিত সংবাদটি সম্পন্ন মিথ্যা, ভিত্তিহীন, বানোয়াট, কাল্পনিক ভাবে উদ্দেশ্য প্রনোদিত। যা থেকে ওই প্রধান শিক্ষক ও তার পরিবার, ব্যক্তিগত ও সামাজিক ভাবে চরম মান সম্মান ক্ষুন্ন হয়েছে বলে অভিযোগ করেন তিনি। সংবাদ সম্মেলনে তিনি সাংবাদিকদের কাছে দাবি করেন, তার বসতি জায়গা পরিদর্শন করলে প্রমান মিলবে যে, জায়গা দখল তো দূরের কথা বরং তার পৈতিক জায়গা দখল করে রমজান আলী নামের একজন লোক একটি টিনসেডের ঘর নির্মান করে আছে। প্রতিবেশি আনছার আলীর ঘরের মধ্যে প্রায় চার ফিট জায়গা রয়েছে। এছাড়া মৃত সিরাজুলের স্ত্রীও তার জায়গা দখল করে আছে।
প্রধান শিক্ষক আবুল কালাম আজাদের মান সম্মান ক্ষুন্ন করতে একটি মহল তাকে জড়িয়ে এবং তার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে জড়িয়ে সম্পন্ন একটি মিথ্যা, ভুয়া, সাজানো, কাল্পনিক সংবাদ প্রকাশ করেছে। তিনি অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদের তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জ্ঞাপন করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

কক্সবাজারে মানবাধিকার সুরক্ষায় পুলিশ ও সাংবাদিকদের ভূমিকা শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

কক্সবাজার প্রতিনিধি : কক্সবাজার জেলা পুলিশের উদ্যোগে অনুষ্ঠিত হয়েছে মানবাধিকার সুরক্ষায় পুলিশ ...

হরিণাকুণ্ডুতে বিরাট নির্বাচনী সভায় সমি সিদ্দিকী

হরিণাকুণ্ডু (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধি : ঝিনাইদহের হরিণাকুণ্ডু উপজেলার ফলসী ইউনিয়নে নৌকা প্রতীকের পক্ষে এক ...