Home | সারা দেশ | রাজবাড়ীর যুবক ফারুক ঢাকায় খুন হবার ২৩ দিন পর রাজবাড়ীতে পুনরায় দাফন

রাজবাড়ীর যুবক ফারুক ঢাকায় খুন হবার ২৩ দিন পর রাজবাড়ীতে পুনরায় দাফন

রাজবাড়ী প্রতিনিধিঃ রাজবাড়ীর যুবক ফারুক মোল্লা ( ২৩) ঢাকার কেরানীগঞ্জে সন্ত্রাসীদের হাতে গত ২৭ মে নির্মম ভাবে খুন হয়। এর পর ২৮মে কেরানীগঞ্জের সানার চর থেকে মাটিতে পুতে রাখা লাশ উদ্ধার করে পুলিশ । অজ্ঞাত লাশ হিসেবে আঞ্জুমানই মহিদুল লাশটি জুরাইন কবরস্থানে দাফন করে।

খোঁজাখুঁজির এক পর্যায়ে পরিবারের সদস্যরা কেরানীগঞ্জ থানায় গিয়ে ৩০ মে ফারুকের মৃত্যুর খবর জানতে পারেন এবং ছবি দেখে তা সনাক্ত করেন।

ফারুক মোল্লা।সে রাজবাড়ী জেলা সদরের মিজানপুর ইউনিয়নের ৬ নয় ওয়ার্ডের বরচরবেনীনগরের মেছোঘাটা এলাকার মোঃ গফুর মোল্লার ছেলে।

নিহতের বড়ভাই মোঃ জাফর মোল্লা জানান, তার আপন ছোট ভাই মোঃ ফারুক মোল্লা কাজের সন্ধানে গত ২০ মে বৃহস্পতিবার  রাজবাড়ী থেকে ঢাকার তার বাসায় লালবাগের যায়। এর পর গত ২৫ মে মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ৩টায় একটি ফোন পেয়ে বাসা থেকে বের হয়। বের হবার সময় তার ভাবী কানিজ ফাতেমাকে বলে রাজবাড়ীর বরচর বেনীনগরের ঠান্ডু,সোহেল,শাজাহান রাজবাড়ীর গার্মেন্স মালিক নজরুল ইসলাম নিলুর গার্মেন্সে কাজ করে। তারা তাকে মোবাইল ফোনে দেখা করতে বলেছে, এ কারনে সে সেখানে যাচ্ছে।

ফারুকের ভাই জাফর মোল্লা পরের দিন অর্থাৎ বুধবার ঢাকার বিভিন্নœ হাসপাতাল ও থানায় খোঁজ নিয়েও ফারুকের কোন সমন্ধান পায় নাই।

এ বিষয়ে পরে ফারুকের ভাই জাফর লিখিত ভাবে লালবাগ থানার ভাারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে জানান। এর পর ঢাকার বিভিন্ন থানায় এমকি ডিবি পুলিশের এ সি মোঃ জাহাঙ্গির সাহেবকেও বিষয়টি জানানো হয়। খোঁজাখাঁজি চলতে থাকে।

গত ২৯ মে,বৃহস্পতিবার কেরানীগঞ্জ থানা পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে । কেউ লাশটি সনাক্ত করতে না পারায় পুলিশ অজ্ঞাত লাশ হিসেবে আঞ্জুমানই মহিদুলের কাছে তা হস্তান্তর করে। তারা লাশটি জুরাইন কবরস্থানে দাফন করে।

পরে নিহত ফারুকের পরিবারের সদস্যরা লাশটি সনাক্ত করার পর থেকেই লাশ আনার চেষ্টা করে।  আইনগত জটিলতা থাকায় লাশটি জুড়াইন কবরস্থান থেকে তুলে রাজবাড়ীতে আনতে ২৩ দিন সময় লেগে যায়।

গতকাল বৃহস্পতিবার বিকাল ৩টায় ঢাকা জজ কোর্টের নির্বাহী ম্যাজিট্রেট অমিতাভ পরাগ তালুকদারের উপস্থিতিতে লাশটি উত্তোলন করে তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

আজ শুক্রবার ১১টায় রাজবাড়ী শহরের ড্রা-আইস ফ্রাক্টরী এলাকার কিশালয় প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে জানাজা শেষে ভবানীপুর পৌর গোরস্থানে ফারককে  দাফন করা হয়।

এ বিষয়ে ঢাকার কেরানীগঞ্জ ও রাজবাড়ী সদর থানায় মামলা দায়ের হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

নলছিটি থানার তিন এসআই’র বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগ

  খাইরুল ইসলাম, ঝালকাঠি প্রতিনিধি: পঞ্চাশ হাজার টাকা ঘুষের দাবিতে এক যুবক ...

মারুফা হত্যার ৮ দিন পার হলেও মামলা নেয়নি প্রশাসন” বিচার দাবীতে মানববন্ধন।

  খাইরুল ইসলাম, ঝালকাঠি প্রতিনিধি: ঝালকাঠিতে গৃহবধূ ও কলেজ ছাত্রী মারুফা আক্তারের ...