Home | বিনোদন | ‘রাজনৈতিক প্যাঁচে’ ঋতুপর্ণা

‘রাজনৈতিক প্যাঁচে’ ঋতুপর্ণা

বিনোদন ডেস্ক : কলকাতার বাংলা ছবির জগতের এক সময়ের সুপারহিট নায়িকা ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত। অসংখ্য হিট সিনেমা উপহার দিয়েছেন তিনি। কাজ করেছেন ঢালিউডের ছবিতেও। এই নায়িকার সঙ্গে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপধ্যায়ের সখ্যতার কথা ইন্ডাস্ট্রির সবারই জানা। দিদিকে তিনি খুবই ভালোবাসেন। সেই ঋতুপর্ণাই সম্প্রতি এক সংবাদমাধ্যমের সাক্ষাৎকারে পড়ে যান রাজনৈতিক প্যাঁচে।

সাক্ষাৎকারে তাকে প্রশ্ন ছুঁড়ে দেয়া হয়, মমতার তৃণমূল না কি নরেন্দ্র মোদির বিজেপিতে যোগ দেবেন? এমন প্রশ্ন শুনে সঙ্গে সঙ্গে চুপ মেরে যান ঋতুপর্ণা। মমতাকে যদি এতই ভালোবাসেন, তবে তৃণমূল ও বিজেপির মধ্যে একদলকে বাছতে গিয়ে এভাবে হোঁচট খেলেন কেন? উত্তর হচ্ছে, তেমন কোনো কারণ নেই। আপাতত তিনি রাজনীতিতে ঢুকতেই চান না।

ঋতুপর্ণা বলেন, নিজের জীবনের নানা সমস্যা থেকেই তিনি পালাতে পারলে হাফ ছেড়ে বেঁচে যান। সেখানে বেকার বেকার রাজনীতিতে ঢুকে আরও সমস্যা বাড়িয়ে লাভ কী। তিনি আরও বলেন, মমতা বন্দোপাধ্যায় তাকে খুব ভালোভাবেই বোঝেন। তাই ঋতুপর্ণা যেখানে যেভাবেই থাকুক না কেন, তাকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ঠিকই বুঝবেন।

ঋতুপর্ণা বিজেপিতে যোগ দিচ্ছেন বলে ২০১৭ সালে গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়েছিল। সে বছরের রোজভ্যালি কান্ড সামনে আসার পর থেকেই রাজনৈতিক মহলে আলোচনা শুরু হয়েছিল, ক্ষমতাসীন বিজেপির সঙ্গে সুসম্পর্ক বজায় রাখছেন নব্বইয়ের দশকের সুপারহিট এই নায়িকা। তবে কোনো দিনই প্রকাশ্যে সেকথা স্বীকার করেননি অভিনেত্রী কিংবা বিজেপি।

সেই জল্পনা ও গুঞ্জনের উত্তরে ঋতুপর্ণা সে সময় শুধু বলেছিলেন, ‘প্রস্তাব নিয়ে কিছু ভাবছি না। মতামত বদলালে অবশ্যই জানাব।’ এদিকে গত বছর ভারতের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে নিয়ে রচিত বই প্রকাশের একটি অনুষ্ঠানেও গুরুত্বপূর্ণ অতিথি হিসেবে দেখা গিয়েছিল ঋতুপর্ণাকে। যার কারণে সবাই ধরে নিয়েছিলেন নায়িকা বোধহয় বিজেপিতে যোগ দিতে যাচ্ছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

ড. কামাল কর ফাঁকি দিয়েছেন কিনা খতিয়ে দেখছে এনবিআর

স্টাফ রির্পোটার : জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতা ও গণফোরামের সভাপতি ড. কামাল হোসেন ...

মেয়েদের সব ক্ষেত্রে সুযোগ দিতে হবে : প্রধানমন্ত্রী

স্টাফ রির্পোটার : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, মেয়েদের সব ক্ষেত্রে সুযোগ দিতে হবে। ...