ব্রেকিং নিউজ
Home | জাতীয় | রাজনৈতিক দলের সঙ্গে ইসির সংলাপ শুরু বৃহস্পতিবার

রাজনৈতিক দলের সঙ্গে ইসির সংলাপ শুরু বৃহস্পতিবার

স্টাফ রিপোর্টার :  আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে নির্বাচন কমিশনের (ইসি) সংলাপ বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হচ্ছে। এদিন বিকেল ৩টায় বাংলাদেশ সাংস্কৃতিক মুক্তিজোটের সঙ্গে সংলাপে বসতে যাচ্ছে ইসি।

সকালে বাংলাদেশ ন্যাশনালিস্ট পার্টির (বিএনএফ) সঙ্গে বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় সংলাপের কথা থাকলেও দলটির পক্ষ থেকে বন্যা দুর্গতদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ কর্মসূচি আছে জানিয়ে সংলাপে অংশ নিতে পারবে না বলে জানানো হয়েছে।

বিএনএফের সংলাপে অংশ না নেয়া প্রসঙ্গে ইসির জনসংযোগ পরিচালক এসএম আসাদুজ্জামান বলেন, দলীয় কর্মসূচি থাকায় ২৪ আগস্ট কমিশনের সংলাপে থাকতে পারবে না বলে দলের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

দলটি সংলাপের জন্য পরবর্তীতে সময় চেয়ে আবেদন করেছে।

৩১ জুলাই সুশীল সমাজের প্রতিনিধিদের মাধ্যমে সংলাপ শুরু করে কমিশন। পরে ১৬ ও ১৭ আগস্ট গণমাধ্যমের প্রতিনিধিদের সঙ্গে সংলাপে বসে ইসি।

গণমাধ্যমের প্রতিনিধিদের সঙ্গে সংলাপের পর ইসির ভারপ্রাপ্ত সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ সাংবাদিকদের জানান, রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে সংলাপে নির্বাচন কমিশনের নিজস্ব ভাবনাসহ সুশীল সমাজ এবং গণমাধ্যমের দেওয়া সুপারিশগুলোও তুলে ধরা হবে। এসবের বাইরেও দলগুলো তাদের মতামত দিতে পারবে।

জানা যায়, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে নয়টি বিষয়কে প্রাধান্য দিচ্ছে কমিশন। এগুলোর মধ্যে রয়েছে গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশ-১৯৭২ যুগোপযোগীকরণ, অবৈধ অর্থ ও পেশি শক্তির প্রভাব, জনসংখ্যার পাশাপাশি ভোটার সংখ্যা, সংসদীয় এলাকার আয়তন, প্রশাসনিক অখণ্ডতা এবং যোগাযোগ ব্যবস্থাকে গুরুত্ব দিয়ে সংসদীয় আসনের সীমানা পুনর্নির্ধারণ, প্রযোজনীয় আইন সংস্কার, নির্ভুল ভোটার তালিকা প্রণয়ন, ভোটকেন্দ্র স্থাপন, নতুন দলের নিবন্ধন, নিবন্ধিত দলের নিরীক্ষা ও ইসির সক্ষমতা।

সুশীল সমাজ ও গণমাধ্যমের প্রতিনিধিদের দেওয়ার সুপারিশগুলোর মধ্যে থেকে আসা সুপারিশগুলোর মধ্যে রয়েছে- প্রয়োজনে সেনা মোতায়েন, না ভোট নিয়ে দ্বিধাভিক্ত মত, পর্যবেক্ষক নিয়োগে সতর্কতা অবলম্বন, ভোট কেন্দ্রে এনআইডি লাগবে না- এটা নিশ্চিত করা এবং তা প্রচার করা, ভোটে ধর্মের ব্যবহার বন্ধ করা, টিভি চ্যানেলের সাংবাদিকদের পর্যবেক্ষক নিয়োগের সুপারিশ, প্রশাসন ও আইন শৃঙ্খলা রক্ষায় দল নিরপেক্ষ ব্যক্তিদের নিয়োগ, ভোটের দায়িত্বে থাকা গণমাধ্যম কর্মীদের প্রশিক্ষণ, প্রার্থীর হলফনামা এনবিআর-দুদকের মাধ্যমে যাছাই, ভোটার অনুপাতে আসন বন্টন, স্বাধীনতা বিরোধীদের নিবন্ধন না দেওয়া ও নিবন্ধিতদের কার্যক্রম নিরীক্ষা, ভোটের ফলাফল দ্রুত ও সঠিকভাবে প্রচারের ব্যবস্থা, সংখ্যালঘুদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা এবং ভোটার ও পরাজিত প্রার্থীর নিরাপত্তা নিশ্চিত করা।

সংবাদ সংগ্রহে গণমাধ্যম কর্মীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত, এক দিনে না করে একাধিক দিনে জাতীয় নির্বাচনের ভোট আয়োজন, প্রবাসীদের ভোটাধিকার নিশ্চিত করা, ঝূঁকিপূর্ণ কেন্দ্রের তালিকা এখনই প্রস্তুত রেখে ব্যবস্থা নেওয়া, অনূকূল পরিবেশ তৈরিতে রাজনৈতিক দলের সঙ্গে ঘন ঘন সংলাপ এবং সীমান পুনর্নির্ধারণ ও আইন সংস্কারে বড় ধরনের সংশোধন না ইত্যাদি।

অন্যান্য যেসব দলের জন্য সংলাপের তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে সেগুলো হচ্ছে- ২৮ আগস্ট সকাল ১১টায় বাংলাদেশ মুসলিম লীগ-বিএমএল ও বিকেল ৩টা খেলাফত মজলিশ এবং ৩০ আগস্ট সকাল ১১টায় বাংলাদেশ বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টি ও বিকেল ৩টায় জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টি- জাগপা।

ঈদের পর আগামী ১০ সেপ্টেম্বর সকাল ১১টায় বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট ও বিকেল ৩টায় ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ, ১২ সেপ্টেম্বর সকাল ১১টায় বাংলাদেশ খেলাফত মজলিস ও বিকাল ৩টায় ইসলামী ঐক্যজোট এবং ১৪ সেপ্টেম্বর সকাল ১১টায় কল্যাণ পার্টি ও বিকেল ৩টায় ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশের সঙ্গে সংলাপ হবে।

এবার ইসির নিবন্ধন তালিকায় থাকা ক্রমিক নম্বরের শেষ থেকে সংলাপ শুরু করে পর্যায়ক্রমে সব দলের সঙ্গে সংলাপ করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, ২০১৯ সালের ২৮ জানুয়ারির পূর্ববর্তী ৯০ দিনের মধ্যে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন করার সাংবিধানিক বাধ্যবাধকতা রয়েছে।

আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে ১৬ জুলাই কর্মপরিকল্পনা (রোডম্যাপ) ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। ওই রোডম্যাপে সংলাপের বিষয়টি অন্তর্ভূক্ত রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

আজ দুই রাজনৈতিক দলের সঙ্গে সংলাপে বসবে ইসি

স্টাফ রিপোর্টার : রাজনৈতিক দুই দলের সঙ্গে আজ বৃহস্পতিবার নির্বাচন কমিশন (ইসি) ...

উন্নত চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুর নেয়া হচ্ছে অভিনেতা ডিপজলকে

বিনোদন ডেস্ক : উন্নত চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুর নেয়া হচ্ছে বাংলা চলচ্চিত্রের খল ...