ব্রেকিং নিউজ
Home | জাতীয় | রাজধানীতে কুরবানীর পশুর হাট জমে উঠেছে

রাজধানীতে কুরবানীর পশুর হাট জমে উঠেছে

cow marketনিজস্ব প্রতিবেদক :  ঈদের বাকি আর মাত্র চারদিন। এরমধ্যে জমে উঠেছে রাজধানীর পশুর হাটগুলো। রাজধানীর সবচাইতে বড় এবং স্থায়ী পশুর হাট গাবতলীতে বিপুলসংখ্যক পশু ওঠায় রাখার জায়গা পাচ্ছে না বিক্রেতারা।গাবতলীর মূল হাট ছেড়ে আশপাশের ট্রাক স্ট্যান্ডসহ প্রায় তিন কিলোমিটার এলাকা জুড়ে গরু রাখা হয়েছে। তবে এবারও গরুর দাম কম বলে বিক্রেতারা জানিয়েছেন। পার্শ্ববর্তী দেশ ভারত থেকে অবাধে গরু আসায় পশু হাটগুলোতে ভারতীয় গরুর আধিক্য বেশি। এ কারণে এবার গরুর দাম অনেক কম বলে জানা গেছে।

গাবতলী পশুর হাট ঘুরে দেখা গেছে গরু ছাগল রাখার জায়গা না পেয়ে বিক্রেতারা রাজধানীর অন্যান্য হাটের দিকে ছুটছে। এখনও ট্রাক ভর্তি গরু আসছে বিভিন্ন জেলা থেকে।

এদিকে শুক্রবার সাপ্তাহিক ছুটি থাকায় হাটে ক্রেতার সংখ্যাও অনেক বেড়েছে। অনেকে আসছেন গরু দেখার জন্য। সবমিলে গাবতলী হাট এখন পুরোদমে জমে উঠেছে।

গরু ব্যবসায়ী রমজান আলী বলেন, এবার এতো গরু উঠেছে কিন্তু গরুর দাম পাওয়া নিয়ে চিন্তায় আছি। আজ তিনদিন ধরে ১২টি গরু নিয়ে বসে আছি। এখন পর্যন্ত মাত্র ২টা গরু বিক্রি হয়েছে। আশা করেছিলাম শুক্রবার বিক্রি হবে। কিন্তু দেখছি বেশির ভাগ লোক এসে শুধু দাম জিজ্ঞাসা করে চলে যায়। বাকি দিনগুলোতে গরু বিক্রি করতে না পারলে পথে বসে যাওয়া ছাড়া উপায় নাই। এক একটা গরুর পিছনে যে পরিমাণ খরচ হয়েছে তা না ওঠাতে পারলে বিপদে পড়তে হবে।

অপর বিক্রেতা মো. সাইদুল হক বলেন, আমি প্রতি বছর গাবতলী হাটে গরু বিক্রি করি। কিন্তু এবারের মতো এত নরম বাজার আগে কখনও দেখিনি। এবার কেউ গরুর দামই বলছে না। বৃহস্পতিবার ৮টি গরু নিয়ে এখানে এসেছি, একটিও বিক্রি হয়নি।

তবে অনেক ক্রেতার অভিযোগ এবার গরুর দাম অন্য বছরের তুলনায় বেশি। গাবতলী হাটে গরু কিনতে আসা রবিউল ইসলাম বলেন, অন্যবারের তুলনায় এবার গরুর দাম অনেক বেশি। আমি গত বছর যে আকারের গরু ৪০ হাজার টাকা দিয়ে কিনেছিলাম তা এবার ৬০ হাজার টাকা বলেও পাচ্ছি না।

এদিকে গাবতলী হাটের নিরাপত্তায় পুলিশের পাশাপাশি র‌্যাব ও হাট কমিটির স্বেচ্ছাসেবক দল সার্বক্ষণিক পর্যবেক্ষণে রয়েছে।

নিরাপত্তার বিষয়ে গাবতলী হাটে দায়িত্বরত পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. আব্দুল জব্বার সরকার বলেন, আমরা হাটের নিরাপত্তার জন্য সার্বক্ষণিকভাবে তৎপর রয়েছি। হাটের ভিতরে সাদা পোশাকে পুলিশ টহল দিচ্ছে। তাছাড়া জাল টাকা শনাক্ত করার জন্য মেশিন বসানো হবে। এদিকে হাট পরিচালনা কমিটির পক্ষ থেকে প্রায় ৫ শতাধিক স্বেচ্ছাসেবক নিয়োগ করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, ঢাকা সিটি কর্পোরেশনের নিয়ম অনুযায়ী ঈদের তিন দিন আগে পশুর হাট বসানোর কথা থাকলেও অনেক আগে থেকেই এবার হাট বসানো হয়েছে। মূলত রাজধানীর প্রায় সবগুলো অস্থায়ী হাটই এখন কোরবানির গরু-ছাগলে ভরপুর।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

মদনে হানাদারমুক্ত দিবস পালিত

সুদর্শন আচার্য্য, মদন (নেত্রকোণা)ঃ নেত্রকোণা মদনে উপজেলা প্রশাসন ও মুক্তিযুদ্ধ সংসদ কমান্ডের ...

মদনে জাতীয় সমবায় দিবস পালিত

সুদর্শন আচার্য্য, মদন (নেত্রকোণা)ঃ বঙ্গবন্ধুর দর্শন, সমবায়ে উন্নয়ন এই প্রতিপাদ্যটি সামনে রেখে ...