ব্রেকিং নিউজ
Home | ফটো সংবাদ | মুক্তিযুদ্ধের শহীদদের তালিকা তৈরির অসমাপ্ত কাজ শেষ করবে বিএনপি

মুক্তিযুদ্ধের শহীদদের তালিকা তৈরির অসমাপ্ত কাজ শেষ করবে বিএনপি

স্টাফ রিপোর্টার :বিএনপি ক্ষমতায় গেলে মুক্তিযুদ্ধের শহীদদের তালিকা তৈরির অসমাপ্ত কাজ শেষ করবে বলে ইঙ্গিত দিয়েছেন দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান।তিনি বলেন, ‘শহীদদের তালিকা আরও আগে হওয়া উচিত ছিল। আমরা যখন ক্ষমতায় ছিলাম আমাদেরও উচিত ছিল। আল্লাহর রহমতে আবার ক্ষমতায় গেলে আমাদের উচিত হবে অসমাপ্ত কাজ সমাপ্ত করা।আজ রবিবার দুপুরে রাজধানীর নয়াপল্টনের ভাসানী ভবনে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার নামে দায়েরকৃত রাষ্ট্রদ্রোহ মামলার প্রতিবাদে জাতীয়তাবাদী কৃষক দলের প্রতিবাদ সভায় তিনি এসব কথা বলেন।নজরুল ইসলাম খান বলেন, ‘শহীদদের সংখ্যা নিয়ে বিতর্ক ও মতবিরোধ রয়েছে এটা তো মিথ্যা না। শহীদদের সংখ্যা নিয়ে আমরা কেন অনিশ্চয়তার মধ্যে থাকবো। কেন আমরা নিশ্চিত হতে পারবো না। শহীদদের তালিকা তৈরি করা দরকার।
বেগম খালেদা জিয়ার যে বক্তব্য নিয়ে মামলা হয়েছে সে প্রসঙ্গ তুলে নজরুল বলেন, ‘তিনি (খালেদা জিয়া) সংখ্যা নিয়ে বিতর্ক আছে বলে বক্তব্য দিয়েছেন। তাই বলে শহীদদের ছোট ও অসম্মান করা করা হচ্ছে এটা সঠিক নয়। বরং যারা আমাদের মাতৃভূমির জন্য রক্ত দিয়েছেন, ত্যাগ স্বীকার করেছেন, জীবন দিয়ে শহীদ হয়েছেন; তাদের নাম বাংলাদেশের ইতিহাসে স্বর্ণাক্ষরে লেখা হোক।তিনি বলেন, ‘যারা মুক্তিযুদ্ধ করেছেন তাদেরকে ভাতা দেয়া হচ্ছে, বিভিন্ন সুযোগ সুবিধা বাড়িয়ে দেয়া হচ্ছে। তাদের ছেলেমেয়েদের সুযোগ সুবিধা দেয়া হচ্ছে এতে আমরা খুশি। কিন্তু যারা শহীদ হয়েছেন তাদের কোনো প্রাপ্য নাই? তাদের অবদান নাই এই দেশের জন্য। কেন তাদের পরিবার পরিজনেরা এই মর্যাদা পাবেন না। তাদের নাম ইতিহাসে লিপিবদ্ধ হবে না।
বিএনপির এই নেতা বলেন, ‘শহীদদের প্রতি রাষ্ট্রের যে দায়িত্ব ছিল যারা এতদিন রাষ্ট্রের দায়িত্ব পালন করেছে অভিযোগ তাদের সবার উপরই পড়তে পারে। বেগম খালেদা জিয়া এ ব্যাপারে উদ্যোগ নেয়ার জন্য বলেছেন। কিন্তু সরকার সে দায়িত্ব পালন না করে সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার নামে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলা দিয়েছে। বিএনপি আবার দায়িত্বে এ অসমাপ্ত কাজ সমাপ্ত করা উচিত হবে।অবসরে যাওয়ার পর রায় লেখা নিয়ে প্রধান বিচারপতির সাম্প্রতিক বক্তব্যের বিষয়ে নজরুল বলেন, ‘প্রধান বিচারপতির বক্তব্য সরকারের ভিত কেঁপে গেছে। জনগণ যখন কোনো ইস্যুতে আন্দোলন শুরু করে তখনই সরকার অন্য একটি ইস্যু সামনে নিয়ে আসে। এরই ধারাবাহিকতায় খালেদা জিয়ার নামে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলা। আমরা এ ইস্যুতে আন্দোলন করবো, তবে মূল ইস্যু থেকে সরে আসবো না।
তিনি বলেন, ‘সরকারের অসুখ হয়ে গেছে। সরকার মনে করে বিএনপি মানেই খারাপ। বিএনপি হলেই তাদের নামে মামলা-হামলা করা হয়। কত মামলা দেবেন। তাতে কিছু হবে না। শুধু আদালতের বারান্দায় ঘুরতে হয় এটাও এক ধরনের নির্যাতন। তারা মনে করেন এটাই শেষ সরকার। এসব অপরাধের বিচার হবে। যারা জনগণের ওপর অত্যাচার করে তারা শেষমেষ জনরোষে পড়ে এবং জনগণ তাদের প্রত্যাখ্যান করে।কৃষক দলের সাধারণ সম্পাদক শামসুজ্জামান দুদুর সভাপতিত্বে এতে আরও বক্তব্য দেন বিএনপির যুব বিষয়ক সম্পাদক সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সালাম আজাদ, ত্রাণ ও পুনর্বাসন বিষয়ক সম্পাদক সৈয়দ মেহেদী আহমেদ রুমী, সহ-তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক হাবিবুর রহমান হাবিব, কৃষক দলের সহ সভাপতি নাজিম উদ্দীন মাস্টার, মহিলা দলের সাধারণ সম্পাদক শিরিন সুলতানা প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাত ব্রিটেনের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ক্যামেরনের

স্টাফ রিপোর্টার : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাত করেছেন বাংলাদেশ সফররত ...

মে দিবস উপলক্ষে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে শ্রমিক সমাবেশ করার প্রস্তুতি বিএনপির

স্টাফ রিপোর্টার : মহান মে দিবস উপলক্ষে ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে শ্রমিক সমাবেশ ...