Home | ফটো সংবাদ | ‘মান্টো’র নিষেধাজ্ঞায় শোকে কাতর পাকিস্তানি শিল্পী

‘মান্টো’র নিষেধাজ্ঞায় শোকে কাতর পাকিস্তানি শিল্পী

বিনোদন ডেস্ক : বলিউডের খ্যাতিমান অভিনেতা নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকী অভিনীত ‘মান্টো’ ছবির মুক্তির উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে শত্রু দেশ হিসেবে পরিচিত পাকিস্তানে। সে দেশের সেন্সর বোর্ডের দাবি, এই ছবিতে দেশভাগ নিয়ে এমন কিছু দৃশ্য দেখানো হয়েছে যেটা পাকিস্তানের সংস্কৃতির পরিপন্থী। যার কারণে দেশটির সেন্সর বোর্ডের চেয়ারম্যান দানিয়াল গিলানি ‘মান্টো’কে মুক্তি না দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

এই ঘটনায় সোশ্যাল মিডিয়ায় দুঃখ প্রকাশ করেছেন ছবির পরিচালক নন্দিতা দাস। তবে শুধু নন্দিতা নয়, ‘মান্টো’র নিষেধাজ্ঞায় শোকে কাতর কয়েকজন পাকিস্তানি শিল্পীও। তারা ছবিটির নিষেধাজ্ঞা তুলতে দেশটির প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের কাছে চিঠি পাঠিয়েছেন। চিঠিতে মান্টোকে একজন উর্দু লেখক হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে। যিনি পাকিস্তানকে বাসস্থান হিসেবে বেছে নিয়েছিলেন। এছাড়া পাকিস্তানে ‘মান্টো’র মুক্তি কেন জরুরি সেকথাও উল্লেখ রয়েছে।

‘মান্টো’র মুক্তির পক্ষে রয়েছেন পাকিস্তানের তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ফাওয়াদ হোসেনও। সম্প্রতি ভারতীয় পরিচালক নন্দিতা দাসকে উদ্দেশ্য করে এক টুইট বার্তায় তিনি লিখেন, ‘ছবিটি যাতে পাকিস্তানে মুক্তি পায় তার জন্য যথাসাধ্য চেষ্টা করে যাচ্ছি। লেস কমার্শিয়াল ছবি যাতে দর্শকদের কাছে পৌঁছে যায়, তার জন্য কেউ না কেউ ঝুঁকি নেবেন বলে আশা করি।’

‘মান্টো’র প্রধান চরিত্রে অর্থাৎ ইন্দো-পাক লেখক সাদাত হাসান মান্টোর ভূমিকায় অভিনয় করেছেন নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকী। তার লেখক জীবনের গুরুত্বপূর্ণ অধ্যায় সেলুলয়েডের রূপ দিয়ে রূপালি পর্দায় তুলেছেন পরিচালক নন্দিতা দাস। মান্টোর বন্ধু শ্যাম চাড্ডার চরিত্রটি করেছেন তাহির রাজ ভাসিন। অন্যান্য চরিত্রে আরও আছেন রসিকা দুগ্গাল, ঋষি কাপুর ও পরেশ রাওয়াল। কিন্তু পাকিস্তানিরা দেখতে পাবে তো পর্দার মান্টোকে?

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

সানাউল্লাহ মিয়াকে দেখতে হাসপাতালে শিমুল বিশ্বাস

স্টাফ রিপোর্টার : অসুস্থ বিএনপির আইন বিষয়ক সম্পাদক সানাউল্লাহ মিয়াকে দেখতে হাসপাতালে ...

হাবিব ও ক্যারোল: ভালোবাসার অমর দৃষ্টান্ত

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক : হাবিব এবং ক্যারোল দম্পতি লেবাননের নাগরিক। তারা একে অপরকে ...