Home | ফটো সংবাদ | মাদারীপুর ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের মধ্যে সংর্ঘষ, পুলিশসহ আহত ১৫

মাদারীপুর ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের মধ্যে সংর্ঘষ, পুলিশসহ আহত ১৫

মোঃ আরিফুর রহমান, মাদারীপুর প্রতিনিধি : মাদারীপুর সদর থানার ওসি জিয়াউল মোর্শেদের অপসারণ ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মেহেদী মোল্লার বিরুদ্ধে মামলা প্রত্যাহারের দাবীতে মানববন্ধন কর্মসূচিতে হামলা চালিয়েছে ছাত্রলীগের একাংশের নেতা-কর্মীরা। এতে জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সামনে ছাত্রলীগের দু’গ্রæপের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনায় অন্তত পুলিশসহ ১৫ জন আহত হয়েছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের জন্যে পুলিশ ১০ রাউন্ড ফাঁকা রাবার বুলেট ও টিয়ার সেল নিক্ষেপ করে। এই ঘটনায় মাদারীপুর পৌর মেয়র খালিদ হোসেন ইয়াদের ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠানে হামলা চালিয়ে ভাংচুর করেছে বিক্ষুদ্ধরা।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সকাল ১১টার দিকে আফম বাহাউদ্দিন নাছিম পন্থি জেলা যুবলীগ ও ছাত্রলীগের একাংশের উদ্যোগে সদর থানার ওসি জিয়াউল মোর্শেদের অপসারণ ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মেহেদী মোল্লার বিরুদ্ধে মামলা প্রত্যাহারের দাবীতে শহরের ইটেরপুল এলাকা থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের হয়ে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে শেষ হয়। পরে সেখানে মানববন্ধন শেষে সমাবেশে করে নেতা-কর্মীরা। এতে অতর্কিত হামলা চালায় নৌপরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খান পন্থি যুবলীগ ও ছাত্রলীগের অপর এক একাংশ। এতে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এতে অন্তত দু’গ্রæপের অন্তত ১৫ জন আহত হয়। পরে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের জন্যে বেশ কয়েকটি টিয়ার সেল ও রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে। প্রায় দুই ঘন্টাব্যাপী থেমে থেমে সংঘর্ষে ইটেরপোল, জজ কোর্ট চত্ত¡র, নতুন শহর এলাকায় যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।
আহতদের মাদারীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এসব এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়ন রয়েছে।

এ ব্যাপারে পৌর মেয়র ও আফম বাহাউদ্দিন নাছিমের ছোট ভাই খালিদ হোসেন ইয়াদ জানান, পুলিশের উপস্থিতি আমাদের শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে হামলা চালিয়েছে সন্ত্রাসীরা। এসময় আমাদের ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠান ‘মাতৃভূমি’ হোটেলও ভাংচুর করে। পুলিশ তখন নিরব ভূমিকায় ছিল। যা অত্যন্ত লজ্জাকর। আমরা এই ঘটনায় সুষ্ঠু বিচার দাবি করছি।

মাদারীপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুমন কুমার দেব জানান, এখানকার ছাত্রলীগ বর্তমান নৌ-পরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খান এমপির গ্রুপ ও আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিমের গ্রুপে বিভক্ত। প্রতিটি রাজনৈতিক কর্মসূচিই পাল্টাপাল্টিভাবে পালন করা হয়। এরই ধারাবাহিকতায় দীর্ঘদিন ধরে পাল্টাপাল্টি হামলা-সংঘর্ষ ও উত্তেজনা চলে আসছে। বুধবারের ঘটনা একই সূত্রে গাঁথা। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ অর্ধশতাধিক টিয়ারশেল নিক্ষেপ করেছে

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

খাগড়াছড়ির খাগড়াছড়িতে নারী ও শিশু নির্যাতন প্রতিরোধ সেলের কার্যক্রম উদ্বোধন

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি,১৬-০৮-২০১৭: খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলায় পুলিশের উদ্যোগে সদর মডেল থানায় চালু হয়েছে ...

মদনে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও কর্মকর্তাদের সাথে বিভাগীয় কমিশনারের মতবিনিময় সভা

সুদর্শন আচার্য্য, মদন (নেত্রকোণা) ঃ বুধবার নেত্রকোণা জেলার মদন উপজেলার ৩নং মদন ...