ব্রেকিং নিউজ
Home | বিবিধ | আইন অপরাধ | ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় পৃথক হত্যা মামলায় ৬ জনের যাবজ্জীবন

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় পৃথক হত্যা মামলায় ৬ জনের যাবজ্জীবন

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি : ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় পৃথক দুটি হত্যা মামলায় ছয় আসামীকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড এবং ৫ আসামীকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদন্ড দিয়েছেন আদালত।

সোমবার (১৫ জুলাই) দুপুরে পৃথক সময়ে বিজ্ঞ জেলা ও দায়রা জজ মোহাম্মদ সফিউল আজম এই দন্ডাদেশ প্রদান করেন।

মামলাগুলো হচ্ছে বিজয়নগর উপজেলার সোহরাব চৌধুরী হত্যা মামলা এবং ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌর এলাকার পশ্চিম মেড্ডার তুষার মিয়া হত্যা মামলা।

সোমবার বেলা সাড়ে ১১টায় বিজ্ঞ জেলা ও দায়রা জজ মোহাম্মদ সফিউল আজম বিজয়নগর উপজেলার বিষ্ণুপুর ইউনিয়নের ছতুরপুর গ্রামের অটোরিকসা চালক
সোহরাব চৌধুরী হত্যা মামলায় তিন আসামীকে যাবজ্জীবন কারাদন্ডের আদেশ প্রদান করেন।

যাবজ্জীবন দন্ডপ্রাপ্ত আসামীরা হলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার সুহিলপুর ইউনিয়নের ঘাটুরা গ্রামের মরহুম আওলাদ মিয়ার ছেলে মহরম আলী (২৮), সদর উপজেলার নাটাই উত্তর ইউনিয়নের থলিয়ারা গ্রামের আলাউদ্দিনের ছেলে মোঃ আলমগীর (২৮) এবং বিজয়নগর উপজেলার বাগদিয়া গ্রামের মরহুম আলী হোসেনের ছেলে আব্দুল কাদির (৪৮)।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, ২০১৫ সালের ২১ এপ্রিল সকালে বিজয়নগর উপজেলার বিষ্ণুপুর ইউনিয়নের ছতরপুর গ্রামের রফিক চৌধুরীর ছেলে সোহরাব চৌধুরী সিএনজি চালিত অটোরিকশা নিয়ে বাড়ি থেকে বের হয়ে আর ফিরে আসেনি। এ ঘটনায় সোহরাবের চাচাতো ভাই সাচ্চু চৌধুরী বিজয়নগর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন।

এদিকে ঘটনার দুদিন পর উপজেলার বুল্লা-টানপাড়া সড়কের একটি সেতুর নিচ থেকে সোহরাবের লাশ পাওয়া যায়। পরে পুলিশ নিহত সোহরাবের মোবাইল ফোন ট্র্যাকের মাধ্যমে আসামি মহররম আলীকে সনাক্ত করে আটক করে। পরে মহরম আলী আদালতে ১৬৪ ধারা জবানবন্দিতে হত্যাকান্ডের ঘটনা স্বীকার করেন এবং তার সাথে মোঃ আলমগীর ও আব্দুল কাদির নামে দুই জন জড়িত থাকার কথা জানান। মামলায় ১০ জন সাক্ষির সাক্ষ্য প্রমানের ভিত্তিতে বিজ্ঞ বিচারক ৩ আসামীর যাবজ্জীবন কারাদন্ড প্রদান করেন।

এদিকে রায়ে সন্তোষ প্রকাশ করে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী (পিপি) অ্যাডভোকেট এসএম ইউসুফ বলেন, ন্যায় বিচারের স্বার্থে এই রায় যুগান্তকারী। অপরদিকে আসামী পক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট মোঃ সাইফুল ইসলাম বলেন, এ রায়ে আমরা সংক্ষুব্ধ। তিনি বলেন, আসামীরা ন্যায় বিচার থেকে বঞ্চিত হয়েছে। আমরা এই রায়ের বিরুদ্ধে উচ্চ আদালতে আপিল করবো। পরে একই আদালত ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌর এলাকার পশ্চিম মেড্ডার তুষার মিয়া হত্যা মামলার রায় ঘোষনা করেন।

এই মামলায় বিজ্ঞ আদালত ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌর এলাকার পশ্চিম মেড্ডার সোনা মিয়ার ছেলে মোমেন প্রকাশ মোমিন (২৫) একই এলাকার আব্দুর রহমানের ছেলে সুমন (২৫) ও সহিদুল হকের ছেলে ফাহাদ মিয়া (২২) কে যাবজ্জীবন কারাদন্ড এবং বাকি ৫ আসামীকে বিভিন্ন মেয়াদে সাজা প্রদান করেন।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, মোবাইল ফোন চুরির ঘটনাকে কেন্দ্র করে গত ২০১১ সালের ২৯ জুন বিকেলে শহরের পশ্চিম মেড্ডার জালাল মিয়ার ছেলে প্রবাসী তুষার মিয়াকে ছুরিকাঘাত করে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় নিহতের মামা সাজ্জাদ মাহমুদ বাদী হয়ে আটজনের নাম উল্লেখ করে সদর মডেল থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। এই মামলায় আদালত তিন জনকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড এবং বাকি আসামিদের বিভিন্ন মেয়াদে সাজা দেন।

এ ব্যাপারে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী (পি.পি) এস.এম ইউসুফ বলেন, বিভিন্ন সাক্ষ্য প্রমাণের ভিত্তিতে বিজ্ঞ আদালত এই রায় দিয়েছেন। রায়ে রাষ্ট্রপক্ষ সন্তুষ্ট। বাদি পক্ষ ন্যায় বিচার পেয়েছে। রাষ্ট্রপক্ষে আরো ছিলেন সিনিয়র আইনজীবী অ্যাডভোকেট সফিকুল ইসলাম।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

মেয়র নাছিরের ভিডিও বার্তা

স্টাফ রির্পোটার : আওয়ামী লীগের বিভাগীয় প্রতিনিধি সভায় একটি ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে চট্টগ্রাম ...

মামলায় শিশুদের আসামি করা শিশু আইন ও মানবাধিকারের চরম লঙ্ঘন

স্টাফ রির্পোটার : এ বছরের গোড়ার দিকের কথা। ঢাকার একটি আদালতে মায়ের ...