Home | খেলাধূলা | বিশ্বকাপের বাছাইপর্বে প্যারাগুয়ের বিপক্ষে জিততে পারেনি আর্জেন্টিনা

বিশ্বকাপের বাছাইপর্বে প্যারাগুয়ের বিপক্ষে জিততে পারেনি আর্জেন্টিনা

স্পোটস ডেস্ক : ২০১৪ সালে ব্রাজিল বিশ্বকাপের বাছাই পর্বের দুই ম্যাচেই প্যারাগুয়েকে হারিয়েছিল আর্জেন্টিনা। গত জুলাইয়ে কোপা আমেরিকাতেও দলটিকে ৬-১ গোলে বিধ্বস্ত করেছিল আলবিসেলেস্তেরা। কিন্তু ২০১৮ সালের রাশিয়া বিশ্বকাপের বাছাইপর্বে প্যারাগুয়ের বিপক্ষে জিততে পারেনি জেরার্ডো মার্টিনোর দল। দক্ষিণ আমেরিকা অঞ্চলের বাছাই পর্বে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে প্যারাগুয়ের মাঠে গোলশূন্য ড্র করেছে আর্জেন্টিনা।
এর আগে বাছাই পর্বে নিজেদের প্রথম ম্যাচে ইকুয়েডরের কাছে ২-০ গোলে হেরেছিল আর্জেন্টিনা। অর্থাৎ ১৮০ মিনিটে কোনো গোল করতে পারেনি দুবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা।প্যারাগুয়ের মাঠে বাংলাদেশ সময় বুধবার ভোর ৬টায় শুরু হয় ম্যাচটি। চোটের কারণে আর্জেন্টিনার সেরা তারকা লিওনেল মেসির সঙ্গে আক্রমণভাগের আরেক তারকা সার্জিও আগুয়েরোও প্যারাগুয়ের বিপক্ষে ছিলেন না।মেসি-আগুয়েরোকে ছাড়া ম্যাচের ১৩ মিনিটে প্রথম আক্রমণে যায় আর্জেন্টিনা। বক্সের ডান দিকে লাভেজ্জিকে পাস দিয়েছিলেন কার্লোস তেভেজ। পোস্টের সামনে দারুণ ক্রসও দিয়েছিলেন লাভেজ্জি। তবে দারুণ দক্ষতায় বলটি ঠেকিয়ে দেন প্যারাগুয়ের গোলরক্ষক সিলভা।
১৬ মিনিটে প্যারাগুয়ের আক্রমণের পথে দেয়াল হয়ে দাঁড়ান সার্জিও রোমেরো। রাউল গঞ্জাসেলের ফ্রি-কিক বাঁ দিকে ঝাঁপিয়ে পড়ে ঠেকিয়ে দেন এই আর্জেন্টাইন গোলরক্ষক।২১ মিনিটে এগিয়ে যাওয়ার দারুণ সুযোগ পেয়েছিল আর্জেন্টিনা। প্যারাগুয়ের ডিফেন্ডারের ভুলে বল পেয়েছিলেন অ্যাঙ্গেল ডি মারিয়া। বক্সের ভেতর দাঁড়ানো তেভেজকে ক্রস দিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু তেভেজের হেড পোস্টের ওপর দিয়ে চলে যায়।২৬ মিনিটে মাঝ মাঠ থেকে হাভিয়ের মাশচেরানো প্যারাগুয়ের দুই খেলোয়াড়কে কাটিয়ে বল নিয়ে গিয়েও ডি বক্সের সামনে থেকে দুর্বল শট নেন। ২৯ মিনিটে ডি মারিয়ার একটি শট পোস্টের ওপর দিয়ে উড়ে যায়।৪০ মিনিটে প্যারাগুয়ের আক্রমণের পথে আবারও বাধা হয়ে দাঁড়ান রোমেরো। ২০ গজ দূর থেকে নেওয়া লুকাস বারিওসের জোরালো শট ঠেকিয়ে দেন তিনি।
দুই মিনিট পর সুযোগ এসেছিল আর্জেন্টিনার সামনেও। তেভেজের পাস থেকে লাভেজ্জির নেওয়া শট লাফিয়ে উঠে এক হাতে ঠেকিয়ে দেন সিলভা। প্রথমার্ধের শেষ মিনিটে লাভেজ্জির আরেকটি শটও প্রতিহত করেন প্যারাগুয়ের গোলরক্ষক।গোলশূন্য প্রথমার্ধের পর এগিয়ে যাওয়ার লড়াইয়ে দ্বিতীয়ার্ধেও আক্রমণ শানাতে থাকে আর্জেন্টিনা। ৫৩ মিনিটে ডি মারিয়ার একটি জোরালো শট পোস্টের সামান্য বাইরে দিয়ে চলে যায়।
৬০ মিনিটে এগিয়ে যাওয়ার সবচেয়ে সেরা সুযোগটা পেয়েছিল প্যারাগুয়ে। গঞ্জালেসের পাস থেকে বক্সের ভেতর ফাঁকায় বল পেয়েছিলেন লাজকানো, কিন্তু শট নিতে দেরি করে ফেলেন তিনি। তার শট শুয়ে পড়ে প্রতিহত করেন আর্জেন্টিনার ডিফেন্ডার পাবলো জাবালেতা।
৭৪ মিনিটে তেভেজকে উঠিয়ে তরুণ পাওলো দায়বালাকে মাঠে নামান আর্জেন্টিনা কোচ জেরার্ডো মার্টিনো।
এরপর ৮২ মিনিটে এগিয়ে যাওয়ার আবারও ভালো সুযোগ পেয়েছিল প্যারাগুয়ে। বক্সের ভেতর ফাঁকায় দারুণ একটি পাস দিয়েছিলেন লাজকানো। কিন্তু ঠিক সময়ে বলের কাছে যেতে পারেননি কোনো খেলোয়াড়।
৮৭ মিনিটে আর্জেন্টিনার সামনেও লিড নেওয়ার আরেকটি দারুণ সুযোগ এসেছিল। এরিক লামেলাকে পাস দিয়েছিলেন ডি মারিয়া। লামেলা বল বাড়ান দায়বালার কাছে। কিন্তু বল পোস্টের ওপর দিয়ে উড়িয়ে মারেন তেভেজের বদলি হিসেবে মাঠে আসা দায়বালা। শেষ পর্যন্ত দুই দলের কেউই কোনো গোল করতে পারেননি। গোলশূন্য স্কোরলাইন রেখেই মাঠ ছাড়েন দুই দলের খেলোয়াড়রা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

শুক্রবার ঢাকা আসছেন ভারতের সেনাপ্রধান

স্টাফ রিপোর্টার :  সেনাপ্রধান জেনারেল আবু বেলাল মোহাম্মদ শফিউল হকের আমন্ত্রণে ঢাকা আসছেন ...

কুমিল্লা ও সুনামগঞ্জে বৃহস্পতিবার ব্যাংক বন্ধ

স্টাফ রিপোর্টার :  জাতীয় সংসদের সুনামগঞ্জ-২ আসন ও কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশনের নির্বাচন উপলক্ষে ...