ব্রেকিং নিউজ
Home | বিবিধ | শোক সংবাদ | বিশিষ্ট কবি ও টিভি ব্যক্তিত্ব সাইফুল বারী আর নেই

বিশিষ্ট কবি ও টিভি ব্যক্তিত্ব সাইফুল বারী আর নেই

saiful bari atn banglaস্টাফ রিপোর্টার : বিশিষ্ট কবি ও টিভি ব্যক্তিত্ব সাইফুল বারী আর নেই। আজ ভোরে ৫টায় রাজধানীর ল্যাবএইড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিলো ৭৭ বছর। সাইফুল বারী দীর্ঘদিন ধরে ক্যান্সারে ভুগছিলেন।

গত ১৬ই নভেম্বর শরীরের অবস্থার অবনতি হলে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অবস্থার আরও অবনতি হলে পরদিন থেকে দেয়া হয় লাইফ সাপোর্ট। কিন্তু সব চেষ্টার পরও তাকে বাচানো সম্ভব হয়নি।

 

১৯৩৬ সালে বগুড়ায় জন্মগ্রহণ করেন মেধাবী এই কবি। তার বাবা মরহুম আবদুল বারী দু’দফায় বগুড়া পৌরসভার চেয়ারম্যান ছিলেন। মৃত্যুর আগের দিন পর্যন্ত তিনি বেসরকারী টেলিভিশন চ্যানেল এটিএন বাংলার প্রধান উপদেষ্টা হিসেবে কর্মরত ছিলেন। সকালে তার মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়লে আত্মীয়-স্বজন, সহকর্মী, বন্ধুবান্ধব, শুভানুধ্যায়ীদের মধ্যে শোকের ছায়া নেনে আসে। খবর পেয়ে অনেকে ভীড় জমান হাসপাতালে। সকালেই তাকে হাসপাতাল থেকে রাজধানীর সিদ্ধেশ্বরীর বাসায় নিয়ে যাওয়া হয়।

 

এটিএন বাংলা থেকে জানানো হয়েছে, আজ জোহরের নামাজের পর রামনা থানা মসজিদে তার প্রথম জানাজে নামাজ অনুষ্ঠিত হবে। আড়াইটায় নিয়ে যাওয়া হবে তার পুরনো কর্মস্থল বিটিভিতে। সেখানে দ্বিতীয় নামাজে জানাজা শেষে নিয়ে আসা হবে কাওরানবাজারের এটিএন বাংলার সামনে। এখানে তাকে শেষ শ্রদ্ধা জানাবেন সহকর্মীরা। এখানে দুটি নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে।

 

সাইফুল বারীর কর্মজীবন শুরু হয় ১৯৫৭ সালে এসোসিয়েট প্রেসে যোগ দেয়ার মধ্য দিয়ে। এরপর ১৯৬৩ সাল থেকে ১৯৬৯ পর্যন্ত রেডিও পাকিস্তানে কাজ করেন তিনি। পর্যায়ক্রমে বাংলাদেশ বেতার, জাতীয় সম্প্রচার কর্তৃপক্ষ, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, বাংলাদেশ টেলিভিশন, রাষ্ট্রপতির প্রেসসচিব, সংস্থাপন মন্ত্রনালয়সহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে দায়িত্ব পালন করেন। এক পর্যায়ে তিনি দৈনিক জনতার সম্পাদকও ছিলেন।

 

দেশী বিদেশী বহু সংবাদ মাধ্যমে কাজ করার পর ২০০১ সালে এটিএন বাংলার প্রধান উপদেষ্টা হিসেবে যোগ দেন। ইংরেজি সাহিত্যের ছাত্র কবি সাইফুল বারী বেশ কয়েকটি কাব্য গ্রন্থ লিখেছেন। তার কবিতায় প্রেম ও রোমান্টিকতা নিবিড়ভাবে ফুটে উঠেছে। তরুণ কবি ও সাহিত্যপ্রেমিদের সঙ্গে তার ছিল হ্যৃাদিক সম্পর্ক। কবি ফজল শাহাবুদ্দীন সম্পাদিত ও পরিচালিত ‘কবিকণ্ঠ’ কবিগোষ্ঠীর তিনি ছিলেন অন্যতম সদস্য। বেশ কয়েকটি বসন্তকালীন কবিতা উৎসবে অংশ গ্রহণ ছাড়াও তিনি এক সময় কবিতা কেন্দ্রের মাধ্যমে বাংলাদেশের আধুনিক কবিতার প্রসারে কাজ করেন।

 

তার মৃত্যুতে কবিকণ্ঠ এবং বৈচিত্র কবিতা সংগঠনের পক্ষ থেকে শোক প্রকাশ করা হয়েছে। সজ্জন ও সুস্মিত ভাষার অধিকারী কবি সাইফুল বারীর মৃত্যুতে টিভি ও ইলেক্ট্রোনিক মিডিয়ার পাশাপাশি কাব্যাঙ্গনেও শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

মানবকণ্ঠের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক আবু বকর চৌধুরী মারা গেছেন

স্টাফ রিপোর্টার : দৈনিক মানবকণ্ঠের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক আবু বকর চৌধুরী মারা গেছেন ...

আওয়ামী লীগ সভাপতির মৃত্যুতে টুঙ্গিপাড়ায় শোকের ছায়া

টুঙ্গিপাড়া (গোপালগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ রাজনৈতিক জীবনের অবসান ঘটিয়ে পরপারে চলে গেলেন বর্ষীয়ান রাজনীতিবিদ ...