ব্রেকিং নিউজ
Home | খেলাধূলা | বিলবাওকে হারিয়ে সুপার কাপ জিতল রিয়াল

বিলবাওকে হারিয়ে সুপার কাপ জিতল রিয়াল

স্পোর্টস ডেস্ক: সৌদি আরবের রিয়াদে স্প্যানিশ সুপার কাপের ফাইনালে অ্যাথলেটিক ক্লাব বিলবাওকে ২-০ গোলের ব্যবধানে হারিয়ে শিরোপা জিতেছে রিয়াল মাদ্রিদ। চলতি মৌসুমে এটি লস ব্ল্যাঙ্কোসদের প্রথম শিরোপা। রিয়ালের হয়ে গোল দুটি করে যথাক্রমে লুকা মদ্রিচ এবং করিম বেনজেমা।

ম্যাচের প্রথমার্ধে আধিপত্য বিস্তার করে খেলে লুকা মদ্রিচের গোলে ১-০’তে এগিয়ে থেকে বিরতিতে যায় লস ব্ল্যাঙ্কোসরা। এরপর দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই পেনাল্টি স্পট থেকে গোল করে দলকে ২-০ ব্যবধানের লিড এনে দেন করিম বেনজেমা। শেষ দিকে ম্যাচে ফেরার সুযোগ পায় বিলবাও। ডি-বক্সের ভেতর হাত দিয়ে বল ঠেকানোয় লাল কার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন রিয়াল ডিফেন্ডাার এডার মিলিতাও। আর পেনাল্টি পায় বিলবাও। স্পট কিক নিতে আসেন রাউল গার্সিয়া। কিন্তু তার শট ঝাপিয়ে পড়ার পর পা দিয়ে ফেরান রিয়াল গোলরক্ষক থিবো কোর্তোয়া। এতেই স্কোরলাইনে আর আসেনি কোনো পরিবর্তন। রিয়াল ২-০ গোলে জিতে স্প্যানিশ সুপার কাপের শিরোপা ঘরে তোলে।

শুরু থেকেই বল নিজেদের দখলে রেখে আক্রমণ সাঁজাতে থাকে রিয়াল। প্রথমার্ধে বিলবাওয়ের ওপর চড়াও হয়ে ১১টি শট নেয় তাদের গোল বরাবর। তবে বিরতির পর যেন কিছুটা ঢিলেমি করছিল রিয়ালের খেলোয়াড়রা। তাই তো দ্বিতীয়ার্ধে মাত্র দুটি শট নিতে পেরেছিল বিলবাওয়ের গোল বরাবর। গোটা ম্যাচের ৫৭ শতাংশ বল নিজেদের দখলে রেখে ১৩টি গোলের সুযোগ তৈরি করেছিল লস ব্ল্যাঙ্কোসরা। আর বিলবাও তৈরি করতে পেরেছিল ১২টি। ম্যাচের শেষ দিকে অবশ্য বিলবাও একচেটিয়া আক্রমণ ধরে রেখে রিয়ালের রক্ষণকে চেপে ধরেছিল। তবে শেষ পর্যন্ত থিবো কোর্তোয়ার দৃঢ়তায় অক্ষত থাকে রিয়ালের জাল।

এর আগে ম্যাচের ১৯তম মিনিটে এগিয়ে যেতে পারত রিয়াল। ভিনিসিয়াস জুনিয়রের বাড়ানো বল ডি-বক্সের মুখে নিয়ন্ত্রণে নিয়ে শট নেন করিম বেনজেমা। তবে একটুর জন্য সেটি লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়। বল দখলের পাশাপাশি আক্রমণে আধিপত্য করা রিয়াল আট মিনিট পর আরেকটি সুযোগ তৈরি করে। যদিও এ যাত্রায় ডান দিক থেকে কাসেমিরোর কোনাকুনি শট তেমন ভাবাতে পারেনি গোলরক্ষক উনাই সিমোনকে।

অবশেষে বিলবাওয়ের রক্ষণ ভাঙে ম্যাচের ৩৮তম মিনিটে এসে। নিজেদের সীমানা থেকে সতীর্থের পাস পেয়ে মদ্রিচ ডান দিকে রদ্রিগো বাড়িয়ে সামনে এগিয়ে যান। ব্রাজিলিয়ান তরুণ ফরোয়ার্ড ডি-বক্সে ঢুকে প্রতিপক্ষের তিন জনের মধ্যে থেকে ছোট করে কাটব্যাক করেন আর প্রথম ছোঁয়ায় জোরাল উঁচু শটে ঠিকানা খুঁজে নেন মদ্রিচ।

বিরতির পরও একইভাবে শুরু করা রিয়াল ৫২তম মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করে। ডি-বক্সের মুখ থেকে বেনজেমার শট ডিফেন্ডার জেরাই আলভারেসের হাতে লাগলে ভিএআরের সাহায্যে পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি। স্পট কিকে নিজেই গোলটি করেন ফরাসি স্ট্রাইকার।

দারুণ ছন্দে থাকা বেনজেমা এবার বিলবাওয়ের বিপক্ষে গোল করেই চলেছেন। লা লিগায় চলতি আসরে দুইবারের দেখায়ই গোল পেয়েছেন। গত ডিসেম্বরের শুরুতে তার একমাত্র গোলেই দলটিকে হারায় রিয়াল। পরে বড় দিনের আগে ফিরতি দেখায় দলের ২-১ ব্যবধানের জয়ে দুটি গোলই করেন ৩৪ বছর বয়সী এই স্ট্রাইকার।

৬৪তম মিনিটে কঠিন হলেও একটি সুযোগ আসে বিলবাওয়ের সামনে। তবে ডেভিড আলাবার চ্যালেঞ্জের মুখে শট লক্ষ্যে রাখতে পারেননি রাউল গার্সিয়া। ৭৬তম মিনিটে এই স্প্যানিশ মিডফিল্ডারের হেড লাগে পাশে জালে। বাকি সময়ে একের পর এক আক্রমণ করতে থাকে বিলবাও। কিন্তু নিশ্চিত সুযোগ মিলছিল না। এরই মাঝে ৮৬তম মিনিটে গার্সিয়ার হেড গোলমুখে মিলিতাওয়ের হাতে লাগলে ভিএআরের সাহায্যে পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি। আর ব্রাজিলিয়ান ডিফেন্ডারকে দেখান লাল কার্ড। স্পট কিক ঠেকাতে ডান দিকে ঝাঁপিয়ে পড়েছিলেন কোর্তোয়া, কিন্তু গার্সিয়া শট নেন সোজাসুজি। বলে চোখ রেখে অসাধারণ ক্ষিপ্রতায় পা দিয়ে ঠেকিয়ে দেন বেলজিয়ামের গোলরক্ষক।

আর শেষ পর্যন্ত ওই ২-০ ব্যবধানের জয় নিয়েই স্প্যানিশ সুপার কাপ জয়ের আনন্দে মাতে লস ব্ল্যাঙ্কোসরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

মদনে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাদ্য তৈরি ও লাইসেন্স না থাকায় ভ্রাম্যমান আদালতে ৬ প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা

সুদর্শন আচার্য্য, মদন (নেত্রকোনা) ঃ নেত্রকোনার মদন পৌর সদরের ৬টি দোকানে অভিযান ...

সিলেটের বন্যায় কবলিতদের পাশে “পর্তুগাল বাংলা প্রেসক্লাব”

আনোয়ার এইচ খান ফাহিম ইউরোপীয় ব্যুরো প্রধান, পর্তুগালঃ বাংলাদেশের সিলেটে স্মরণকালের সবচেয়ে ...