ব্রেকিং নিউজ
Home | ফটো সংবাদ | বিরোধীদলীয় জোটের মিথ্যা অপপ্রচারের বিরুদ্ধে জনগণকে সতর্ক থাকার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

বিরোধীদলীয় জোটের মিথ্যা অপপ্রচারের বিরুদ্ধে জনগণকে সতর্ক থাকার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

hasinaস্টাফ রিপোর্টার : নির্বাচনকে সামনে রেখে বিরোধীদলীয় জোটের মিথ্যা অপপ্রচারের বিরুদ্ধে জনগণকে সতর্ক থাকার আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, মিথ্যাচারের বিরুদ্ধে সতর্ক থাকুন। ১৯৯৬ সালের নির্বাচনের মতো আবারও মিথ্যা অপপ্রচার চালানো হচ্ছে। বলা হচ্ছে, আওয়ামী লীগকে ভোট দিলে নামাজ রোজা থাকবে না। এই অপপ্রচারের বিরুদ্ধে জনগণকে  সচেতন থাকতে হবে, বিভ্রান্ত হওয়া যাবে না।

 

শুক্রবার বিকেলে গণভবনে কুমিল্লা (উত্তর), কুমিল্লা (দক্ষিণ), চট্টগ্রাম (উত্তর), চট্টগ্রাম (দক্ষিণ), চট্টগ্রাম মহানগর, পাবনা, রংপুর জেলা ও জেলাধীন থানা, উপজেলা, প্রথম শ্রেণির পৌর আওয়ামী লীগ নেতাদের সাথে মতবিনিময় সভার সূচনা বক্তব্যে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা এসব কথা বলেন।

 

নেতা-কর্মীদের জনগণের কাছে গিয়ে আওয়ামী লীগের জন্য ভোট চাওয়ার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এলে দেশের উন্নয়ন হবে। মানুষ স্বস্তি পাবে, শান্তি পাবে, সমৃদ্ধি পাবে-এটা জনগণকে গিয়ে বলতে হবে। তাদের এটাও বলতে হবে যে, বিএনপি ক্ষমতায় আসলে সন্ত্রাস আসবে, জঙ্গিবাদ আসবে। উন্নয়ন হবে না।

 

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বিরোধীদলীয় নেতা ভাঙা রেকর্ডের মতো মিথ্যাচার করছেন। জনগণকে বিভ্রান্ত করছেন। ১৯৯৬ সালের নির্বাচনের আগেও তিনি মিথ্যাচার করেছিলেন যে, আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসলে ইসলাম থাকবে না। নামাজ বন্ধ হয়ে যাবে। এবারও নির্বাচনকে সামনে রেখে মিথ্যাচার করা হচ্ছে।

 

শেখ হাসিনা বলেন, আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসলে দেশ পুরস্কার পায়, আর বিএনপি ক্ষমতায় আসলে আন্তর্জাতিক তিরস্কার নিয়ে আসে দেশের জন্য। বিএনপি আগামীতে ক্ষমতায় আসলে দেশের উন্নয়নের ধারা ব্যাহত হবে। তাই শান্তি ও সমৃদ্ধির ধারাবাহিকতা রক্ষায় জনগণ আবারও আওয়ামী লীগকে নির্বাচিত করবে।

 

প্রধানমন্ত্রী তার সরকারের বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকাণ্ডের ফিরিস্তি তুলে ধরে বলেন, ‘আমাদের ইশতেহারে ছিল- উপজেলা পর্যন্ত ডিজিটাল করা। কিন্তু বর্তমান সরকার ইউনিয়ন পর্যায়েও তথ্য সেবা কেন্দ্র চালু করেছে। কমিউনিটি হেলথ ক্লিনিক চালু করেছে। দরিদ্র মানুষ বিনা পয়সায় স্বাস্থ্য সেবা পাচ্ছে, ওষুধ পাচ্ছে।

 

শেখ হাসিনা বলেন, আওয়ামী লীগকে দেশের জনগণ কেন ভোট দেবে? কারণ আওয়ামী লীগ জঙ্গিবাদ দূর করেছে, পাসের হার বেড়েছে, স্বাক্ষরতার হার বেড়েছে, বিমামূল্যে দরিদ্র মানুষ চিকিৎসা পাচ্ছে, দেশের সব শিক্ষার্থী বিনামূল্যে বই পাচ্ছে। বিএনপি আসলে মানুষ এসব সুযোগ থেকে বঞ্চিত হবে। তাদের এক নেতা তো বলেই দিয়েছেন, তারা (বিএনপি) ক্ষমতায় আসলে কমিউনিটি ক্লিনিকে তাদের আগের সেই  ছাগল প্রজেক্ট চালু করবে। জনগণের স্বাস্থ্য সেবার এসব ক্লিনিক বন্ধ করে দেবে।

 

শেখ হাসিনা বলেন, বিএনপি আমলে ক্ষমতা কোথায় থাকে জনগণ জানে না। তখন ক্ষমতার ভেতর ক্ষমতা থাকে। সরকার প্রধান- না হাওয়া ভবন, দেশ কে চালায় জনগণ তা জানত না। তখন ব্যবসায়ীরা শান্তিতে ব্যবসা করতে পারেনি। বিরোধী দলের নেত্রীর দুই ছেলে এবং উনার (খালেদা জিয়া) পাওনা দিয়ে ব্যবসা করতে হতো। এ সরকারের কোনো ভবন নাই। এটা জনগণের সরকার।

 

গত বিএনপি জোট সরকারের দুর্নীতি তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, তাদের দুর্নীতি আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত। তারা টাকা পাচার করেছে, আমরা ক্ষমতায় এসে সে টাকা ফেরত আনার ব্যবস্থা করেছি। এফবিআই এসে তাদের দুর্নীতির সাক্ষ্য দিয়ে গেছে। আমেরিকার আদালতেও তাদের দুর্নীতি প্রমাণিত হয়েছে।

 

শেখ হাসিনা বলেন, আর এসব দুর্নীতি জিয়াউর রহমানই শুরু করে গিয়েছিলেন। দুর্নীতি, মানি লন্ডারিং এর সুযোগ দিয়ে জোর করে ক্ষমতায় বসে একটা দল গঠন করেছেন।

 

এসময় যুদ্ধাপরাধীদের বিচার করতে সরকর বদ্ধপরিকর বলে আবারো দৃঢ়প্রত্যয় ব্যক্ত করেন প্রধানমন্ত্রী।

মতবিনিময় সভায় উপস্থিত ছিলেন- আবদুল লতিফ সিদ্দিকী, কাজী জাফর উল্লাহ, শেখ ফজলুল করিম সেলিম, সতীশ চন্দ্র রায়, ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন, নূহ উল আলম লেনিন, ড. হাছান মাহমুদ, আবুল হাসনাত আব্দুল্লাহ, মাহবুব-উল আলম হানিফ, অ্যাডভোকেট আব্দুল মান্নান খান, মৃণাল কান্তি দাস, ফরিদুন্নাহার লাইলী, ফজিলাতুন্নেছা ইন্দিরা, সুজিত রায় নন্দী প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

মদনে সিএনজি অটো রিক্সা শ্রমিক ইউনিয়নের কমিটি গঠন

সুদর্শন আচার্য্য, মদন (নেত্রকোণা) ঃ নেত্রকোণা মদন উপজেলায় মিশুক, সিএনজি, অটো রিক্সা ...

মদনে হানাদারমুক্ত দিবস পালিত

সুদর্শন আচার্য্য, মদন (নেত্রকোণা)ঃ নেত্রকোণা মদনে উপজেলা প্রশাসন ও মুক্তিযুদ্ধ সংসদ কমান্ডের ...