Home | ফটো সংবাদ | বিএনপিকে মাঠে নামার তাগিদ জাফরুল্লাহ চৌধুরীর

বিএনপিকে মাঠে নামার তাগিদ জাফরুল্লাহ চৌধুরীর

স্টাফ রিপোর্টার :  পুতুপুতু করে কাজ হবে না-বিএনপিকে কঠোর হতে নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্নার পর গণস্বাস্থ্যকেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা জাফরুল্লাহ চৌধুরীও বিএনপিকে মাঠে নামার তাগিদ দিয়েছেন। তিনি বলেনম ‘ভালো ভালো কথা শেষ। এখন কাজ করতে কবে মাঠে নামবেন, না এবারও বলবেন ঈদের পর? ‘আপনারা আর কত অজুহাত দেবেন’-এ কথাও জানতে চান তিনি।রবিবার জাতীয় প্রেসক্লাব বিএনপির রাষ্ট্র পরিচালনায় ঘোষিত দীর্ঘমেয়াদী পরিকল্পনা ভিশন-২০৩০ নিয়ে এক গোলটেবিল আলোচনায় জাফরুল্লাহ চৌধুরী।

২০১৫ সালে সরকারবিরোধী আন্দোলনে ব্যর্থতার পর বিএনপি আর কোনো আন্দোলন কর্মসূচি দেয়নি। তবে জাফরুল্লাহ চান বিএনপি আবার আন্দোলনে নামুক। গত এক বছরেরও বেশি সময় ধরে তিনি বিএনপিকে এ নিয়ে চাপাচাপি করছেন।

খালেদা জিয়ার তার অনেক বক্তব্যে র‌্যাব বিলুপ্তির কথা বললেও তার ভিশনে এ বিষয়ে কোনো কথা না বলারও সমালোচনা করেন জাফরুল্লাহ চৌধুরী। রামপাল বিদ্যুৎকেন্দ্র নিয়ে কোনো কিছুর উল্লেখ না থাকার বিষয়টি নিয়েও কথা বলেন তিনি। জাফরুল্লাহ বলেন, ‘ভিশনে একইভাবে ভারতীয় আগ্রাসন, অত্যাচার, নির্যাতন, বিশেষ করে দেশে ‘র’য়ের কর্মকাণ্ডের বিষয়ে কী ব্যবস্থা নেবেন সে বিষয়েও কিছু বলেননি।’

বিএনপির ভিশন নিয়ে আওয়ামী লীগ নেতাদের বক্তব্যের সমালোচনা করে জাফরুল্লাহ বলেন, ‘পরীক্ষার হলে নকল ছাড়া সব নকল করা ভালো। আপনারা বলছেন, বিএনপি অনুকরণ করেছে। খারাপ কিছু অনুকরণ না করা ভালো, ভালোর অনুকরণ করলে দোষের কিছু নেই।’

আলোচনায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক অধ্যাপক মাহবুব উল্লাহ বলেন, ‘খালেদা জিয়ার ঘোষিত ভিশন ২০৩০ কাগজে লেখার মধ্যে সীমাবদ্ধ না রেখে দেশের প্রতিটি মানুষের কাছে পৌঁছে দিতে হবে। প্রয়োজনে এ ব্যাপারে আরও অনুশীলন করতে হবে। সম্ভব হলে সারাদেশে বিএনপির কর্মীদের মাধ্যমে বৃহত্তম জনগণের মধ্যে এই ভিশন লেখাটি তুলে ধরতে হবে। আর যদি সেই ইচ্ছা, ধৈর্য্য, মনমানসিকতা এবং দৃঢ় রাজনৈতিক ইচ্ছা থাকে সেক্ষেত্রে বিএনপির ঘোষিত ভিশন বাস্তবায়ন অসম্ভব নয়।’

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক অধ্যাপক দিলারা চৌধুরী বলেন, ‘খালেদা জিয়া ভিশন-২০৩০ মাধ্যমে যে স্বপ্ন দেখিয়েছেন তা মুক্তিযুদ্ধের চেতনার পরিপূরক। কারণ বর্তমানে বাংলাদেশে মত প্রকাশের সুযোগ দিনেদিনে সংকুচিত হয়ে আসছে। গণতন্ত্র নাই, দেশে গণতন্ত্র অত্যন্ত প্রয়োজন। দেশের জনগণের মধ্যে গণতন্ত্রের আকাঙ্খা রয়েছে।’ তিনি বলেন, ‘সময় এসেছে আমাদের সবাইকে এখন জাতি হিসেবে সুসংগঠিত হবার। আর সেক্ষেত্রে প্রথম প্রয়োজন হবে দেশে একটি অবাধ সুষ্ঠু নিরপেক্ষ নির্বাচন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে চন্দ্রিকা কুমারাতুঙ্গার সৌজন্য সাক্ষাৎ

স্টাফ রিপোর্টার :  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেছেন সফররত শ্রীলঙ্কার সাবেক ...

শুরুতেই রনকিকে ফেরালেন মোস্তাফিজ

স্পোর্টস ডেস্ক:  বল হাতে দারুণ ছন্দেই আছেন মোস্তাফিজুর রহমান। ত্রিদেশীয় সিরিজের শেষ ...