ব্রেকিং নিউজ
Home | আন্তর্জাতিক | বগুড়ায় পুলিশ ফাঁড়িতে হামলায় নিহত ৪, সেনা তলব

বগুড়ায় পুলিশ ফাঁড়িতে হামলায় নিহত ৪, সেনা তলব

জেলা প্রতিনিধি, ৩ মার্চ, বিডিটুডে ২৪ডটকম : বগুড়ার শাজাহানপুর উপজেলার সেনানিবাস এলাকায় রোববার জামায়াত-শিবিরের নেতাকর্মী সমর্থকদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ হয়েছে। এতে গুলিবিদ্ধ হয়ে শিশু ও নারীসহ ৪ জন নিহত হয়েছে। আহত হয়েছেন ৩ জন।

রোববার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে এ সংঘর্ষ হয়। হরতাল চলাকালে বগুড়ার শাহজাহানপুরে হতাহতের ঘটনার পর সেনাবাহিনী তলব করেছে স্থানীয় প্রশাসন। তবে শাজাহানপুর থানা এলাকায় বেশ কয়েকজন সেনা সদস্য টহলে রয়েছেন। উপজেলায় থমথমে পরিবেশ বিরাজ করছে। এছাড়া ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে বগুড়া শহরে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন জেলা সহকারী পুলিশ সুপার (সার্কেল-১) মোকবুল হোসেন।

এদিকে মোকামতলা থানার একটি পুলিশ ফাঁড়িতে হামলা চালিয়েছে হরতাল সমর্থকরা। এ সময় সংঘর্ষে এক শিশু গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত হয়। এ ঘটনায় ২০-২৫ জন আহত হয়েছেন।

অন্যদিকে বগুড়া জেলার বিভিন্ন এলাকায় পিকেটারদের সঙ্গে পুলিশের বিক্ষিপ্ত সংঘর্ষ হচ্ছে। অনেক এলাকার লোকজন বাসা থেকে বের হতে পারছেন না। কয়েক স্থানে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে।

ভোর সাড়ে ৪টা থেকে বগুড়া শহর ও দুটি উপজেলায় বিভিন্ন স্থাপনা, প্রতিষ্ঠান, উপজেলা পরিষদ, আওয়ামী লীগ ও যুবলীগ কার্যালয় এবং জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতির বাড়িতে হামলা, ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ করে জামায়াত-শিবিরের নেতাকর্মীরা। পরিস্থিতি মোকাবেলায় পুলিশ টিয়ার সেল ও রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে। পরে বগুড়া পৌর এলাকায় ১৪৪ ধারা জারি করা হয়।

চাঁদে সাঈদীর ছবি দেখা যাচ্ছে- এ প্রচারণা চালিয়ে মাইকে জনতাকে রাস্তায় নামতে বলে জামায়াত নেতাকর্মীরা। ভোর সাড়ে ৪টার দিকে বিভিন্ন এলাকা থেকে মিছিলসহ বগুড়া শহর অভিমুখে রওনা হয় তারা। এক পর্যায়ে তারা সড়কের পাশের বিভিন্ন স্থাপনা ও প্রতিষ্ঠানে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর করে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ রাবার বুলেট ও টিয়ার সেল ছোঁড়ে। এক পর্যায়ে বিক্ষোভকারীরা শহরের ফুলবাড়ি পুলিশ ফাঁড়ি, উপশহর ও স্টেডিয়াম ফাঁড়িতে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে।

একই সময়ে বগুড়ার শাজাহানপুর উপজেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয় ও মুক্তিযোদ্ধা সংসদে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ করে জামায়াত-শিবিরের নেতাকর্মীরা। নন্দীগ্রাম থানাতেও ইটপাটকেল নিক্ষেপ করা হয়। সেই সঙ্গে নন্দীগ্রাম উপজেলা পরিষদ, উপজেলা চেয়ারম্যানের বাসভবন ও উপজেলা যুবলীগের কার্যালয়ে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর করা হয়। ফজরের নামাজের পর হামলা চালানো হয় জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি মমতাজ উদ্দিনের বাসভবনে। শহরের কাটনারপাড়ায় তার বাসায় হামলা চালিয়ে আগুন ধরিয়ে দেয় বিক্ষোভকারীরা।

হামলাকারীরা শহরের এটিএন নিউজ ও করতোয়া কুরিয়ার সার্ভিসের কার্যালয়েও ভাঙচুর করেছে।

এদিকে, দুপচাঁচিয়ায় হরতাল সমর্থকরা ভোর চারটায় লাঠিমিছিল বের করে রাস্তায় বিক্ষোভ করে। সকালে জামায়াত-শিবিরের নেতাকর্মীরা দুপচাঁচিয়া থানাসহ উপজেলা আওয়ামী লীগ ও তালোড়া পৌর আওয়ামী লীগের কার্যালয় ভাঙচুর করেছে।

এর আগে হরতাল সমর্থকরা আলতাফনগরে স্টেশনে রেললাইনের ওপর কাঠের গুঁড়ি ফেলে সান্তাহার থেকে লালমনিরহাটগামী পদ্মরাগ মেইল ট্রেন আটকে রেখেছে। এই ঘটনার পর থেকে বগুড়া-সান্তাহার রুটে ট্রেন চলাচল বন্ধ রয়েছে।

হরতাল সমর্থকরা লাঠি হাতে বগুড়া-নওগাঁ সড়কে অবস্থান করছে।

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে বগুড়া পৌর এলাকায় ১৪৪ ধারা জারি করেছে জেলা প্রশাসন। এরপরও ১৪৪ ধারা ভঙ্গ করে বিক্ষোভ করছে জামায়াত-শিবিরের নেতাকর্মী ও সমর্থকরা।

x

Check Also

‘গ্রেটার সিলেট এসোসিয়েশন ইন স্পেন’ নির্বাচনে মুজাক্কির – সেলিম প্যানেল বিজয়ী

জিয়াউল হক জুমন, স্পেন প্রতিনিধিঃ সিলেট বিভাগের চারটি জেলা নিয়ে গঠিত গ্রেটার ...

পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর সাথে পর্তুগাল আওয়ামী লীগের মতবিনিময় সভা

আনোয়ার এইচ খান ফাহিম ইউরোপীয় ব্যুরো প্রধান, পর্তুগালঃ পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মোঃ শাহরিয়ার ...