ব্রেকিং নিউজ
Home | বিবিধ | স্বাস্থ্য | পুরুষত্বহীনতায় ভায়াগ্রার পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া

পুরুষত্বহীনতায় ভায়াগ্রার পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া

viagraস্বাস্থ্য ডেস্ক : ভায়াগ্রা নামক ওষুধটি পুরুষত্বহীনতার চিকিৎসায় বিশ্বব্যাপী ব্যাপক সাড়া জাগিয়েছে। অনেকেই মনে করেন, এটি পৃথিবীর ইতিহাসে সর্বাধিক বিক্রীত ওষুধ।

ভায়াগ্রায় রয়েছে এক বিশেষ রাসায়নিক উপাদান, যা পুরুষাঙ্গে রক্ত সঞ্চালন বৃদ্ধি করে। এর ফলে পুরুষ্যত্বহীন রোগী যৌন উত্তেজনা অনুভব করেন এবং তাদের পুরুষাঙ্গ উত্থিত হয়। পুরুষদের পাশাপাশি অনেক মহিলাও ভায়াগ্রা সেবন করেন। এতে তাদের কাইটরিসে রক্ত সঞ্চালন ঘটে এবং তারা বিপুল উত্তেজনা অনুভব করেন।

পুরুষত্বহীনতায় ওষুধটির কার্যকারিতা প্রমাণিত হলেও এর অনেক পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া রয়েছে। ভায়াগ্রা নিয়ে এক সময় তোলপাড় শুরু হলেও আমাদের দেশে এটি সহজলভ্য ছিল না। বর্তমানে একই উপাদানের ওষুধ পার্শ্ববর্তী দেশ থেকে অবৈধভাবে আসায় এটা এখন সহজলভ্য হয়ে গেছে। রোগীরাও যত্রতত্র কিনছেন। শুধু রোগীরা নন, যৌন উত্তেজনা উপভোগ করার জন্য আমাদের দেশে অনেক তরুণ-তরুণী এটা সেবন করছেন। এর ক্ষতিকর দিক না ভেবেই অনেকে সেবন করছেন।

পুরুষত্বহীনতার অনেক কারণ রয়েছে। মানসিক কারণ তার মধ্যে প্রধান। কিন্তু যাদের ডায়াবেটিস রয়েছে কিংবা যারা দীর্ঘ দিন ধরে উচ্চ রক্তচাপের ওষুধ সেবন করেন তাদের মধ্যে পুরুষত্বহীনতা দেখা দিতে পারে। কিন্তু তারা যদি পুরুষাঙ্গ উত্থানের জন্য ভায়াগ্রা সেবন করেন তাহলে বিপদ ঘটতে পারে। তাদের ভায়াগ্রা সেবনের আগে অবশ্যই সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে এবং চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে। চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া ভায়াগ্রা বিক্রি করা উচিত নয়।

পুরুষত্বহীনতার অনেক বৈজ্ঞানিক চিকিৎসা রয়েছে। বিভিন্ন থেরাপির মাধ্যমে পুরুষত্বহীনতা ভালো করা সম্ভব। শুধু ভায়াগ্রার ওপর নির্ভরশীল হওয়ার প্রয়োজন নেই। ভায়াগ্রা শুধু স্বাভাবিক যৌন উত্তেজনা বৃদ্ধি করে না, এটা জন্ম দেয় বিভিন্ন ধরনের বিকৃত কামের। তাই ভায়াগ্রা সেবনের আগে ভেবে নিন, এটা আপনাকে কতটা সাহায্য করবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

চিকিৎসকরা হিমশিম ডেঙ্গু রোগীর চাপে

ডেস্ক রির্পোট : রাজধানীতে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে তানিয়া সুলতানা নামে এক ...

ডেঙ্গুতে ঢাবি শিক্ষার্থীর মৃত্যু

ডেস্ক রির্পোট : ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে এবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিন্যান্স বিভাগের ২০১৩-১৪ ...