Home | আন্তর্জাতিক | পিতার নামে সেতু করতে গিয়ে সংখ্যালঘু প্রতিবাদের মুখে সু চি

পিতার নামে সেতু করতে গিয়ে সংখ্যালঘু প্রতিবাদের মুখে সু চি

মিয়ানমারের নেত্রী ও স্টেট কাউন্সিলর অং সান সু চির বাবার নামে সেতুর নামকরণের প্রতিবাদে বিক্ষোভ করেছে দেশটির পূর্বাঞ্চলের হাজার হাজার মানুষ। সু চি নেতৃত্বাধীন প্রশাসনের বিরুদ্ধে দেশটির সংখ্যালঘুদের এটিই প্রথম বিক্ষোভ। রোববারের ওই বিক্ষোভে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের হাজার হাজার মানুষ অংশ নিয়েছে।

দেশটির পূর্বাঞ্চলের মন রাজ্যের সংখ্যালঘু বামা সম্প্রদায়ের কয়েক হাজার মানুষ রাস্তায় নেমে আসে। রাজ্যের স্যালউইন নদীতে স্থানীয় থানলিন সেতুর নাম পরিবর্তনের পরিকল্পনার বিরুদ্ধে ওই বিক্ষোভকে এ যাবৎকালের সর্ববৃহৎ বলা হচ্ছে।

ন্যাশনাল লিগ ফর ডেমোক্রেসির (এনএলডি) সাংসদরা ওই সেতুর নাম পরিবর্তন করে সু চির পিতার নামে ‘বোগইয়ক অং সান সেতু’ রাখার প্রস্তাব করেছিল।

ব্রিটিশ ওপনিবেশিক শাসনমুক্ত করতে সু চির পিতা অং সানের বিশেষ ভূমিকা রয়েছে। মিয়ানমারের প্রতিষ্ঠাতা হিসেবে বলা হয় তাকে। ব্রিটেনের কাছে থেকে স্বাধীনতা পাওয়ার আগেই গুপ্তহত্যার শিকার হন তিনি।

রোববারের বিক্ষোভে অংশ নেয়া অনেকেই বলছেন, স্থানীয়রা মনে করছেন, সেতুর পুরনো নাম বহাল রাখতে তাদের যে ইচ্ছা আছে তা উপেক্ষা করছে সরকার। লি টেইট নামের এক বিক্ষোভকারী বলেন, সংসদে এনএলডি শক্তিশালী এবং বর্তমানে পছন্দ অনুযায়ী যেকোনো কাজ করছে দলটি।

‘কিন্তু আমাদেরসহ এবং সব জাতিগত সংখ্যালঘুদের সংস্কৃতিতে অনেক জিনিসের মূল্যায়ন করা হয়। এবং স্থানীয় জাতিগত সংখ্যালঘুরা যা চান; তা তাদের শোনা উচিত।’

জাতিগত সংখ্যালঘু কারেন সম্প্রদায়ের সও কিয়াও মো বলেন, ‘সু কির সরকার তাদের (সংখ্যালঘুদের) বিষয়ে শুনতে নারাজ। মানুষের ইচ্ছা-আকাঙ্ক্ষার কথা এমপিদের শোনা উচিত; যারা তাদেরকে নির্বাচিত করেছেন। কিন্তু তারা জনগণের কথা শোনেন না।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

একসঙ্গে সম্মাননা পাচ্ছেন আলমগীর-রুনা লায়লা

বিনোদন ডেস্ক :  দীর্ঘ ক্যারিয়ারে আলমগীর অভিনেতা হিসেবে এবং রুনা লায়লা কণ্ঠশিল্পী ...

উৎসবের পর্বটা আপাতত তুলে রেখেছে বাংলাদেশ

স্পোর্টস ডেস্ক: শততম টেস্টে অবিস্মরণীয় জয়ের পরও উঠেছিল এ কথা, ‘আচ্ছা এমন ...