ব্রেকিং নিউজ
Home | সারা দেশ | পলাশবাড়ীতে অবৈধপন্থায় ১৮ জন শিক নিয়োগের তদন্ত অনুষ্ঠিত

পলাশবাড়ীতে অবৈধপন্থায় ১৮ জন শিক নিয়োগের তদন্ত অনুষ্ঠিত

ছাদেকুল ইসলাম রুবেল, গাইবান্ধা : গাইবান্ধার পলাশবাড়ী উপজেলায় চাঞ্চল্যকর ১৬টি রেজিস্ট্রার্ড  বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে অবৈধপন্থায় ১৮জন শিক নিয়োগের অভিযোগে দায়েরকৃত বিভাগীয় মামলার আনুষ্ঠানিক তদন্ত অনুষ্ঠিত হয়েছে। এক সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটির কর্মকর্তা প্রাথমিক শিা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক (প্রশিণ) ইউসুফ আলী স¤প্রতি দিনব্যাপী এ সংক্রান্ত অভিযোগের তদন্ত করেন। উপজেলা প্রাথমিক শিা অফিসে তদন্তকালে অন্যদের মধ্যে জেলা প্রাথমিক শিা কর্মকর্তা আমিনুল ইসলাম, উপজেলা প্রাথমিক শিা কর্মকর্তা আবু তারেক মো. রওনক আকতার, সহকারী শিা কর্মকর্তা মাহাফুজার রহমান ও রুহুল আমিনসহ সংশ্লিষ্ট ১৬টি বিদ্যালয়ে অবৈধ নিয়োগপ্রাপ্ত শিক-শিকিারা উপস্থিত ছিলেন।সংশ্লিষ্ট অফিস সূত্রে জানা যায়, রেজিস্ট্রার্ড বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক নিয়োগের শেষ তারিখ ছিল গত ২০১০  সালের ৯ অক্টোবর পর্যন্ত। তখন পলাশবাড়ী উপজেলা প্রাথমিক শিা কর্মকর্তা হেমায়েত আলী শাহ্ সরকারী বিধি-বিধান উপো করে  নিয়োগপ্রাপ্ত প্রতিজন শিক-শিকিার নিকট মোটা অংকের উৎকোচ নিয়ে ব্যাকডেটে ১৬টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের বিপরীতে ১৮ জন শিক-শিকিাকে নিয়োগ দেন। পরে এ ব্যাপারে একাধিক অভিযোগের পরিপ্রেেিত উপজেলা প্রাথমিক শিা কর্মকর্তা হেমায়েত আলী শাহ্’কে অভিযুক্ত করে চলতি বছরের ২৯ মে এ ব্যাপারে একটি বিভাগীয় মামলা দায়ের হয়। অভিযুক্ত ওই কর্মকর্তা এ দূর্নীতির দায় এড়াতে সংশ্লিষ্ট উর্ধতন কর্তৃপরে সহায়তায় তড়িঘড়ি করে বর্তমান কর্মস্থল থেকে ঠাকুরগাঁও জেলার হরিপুর উপজেলায় বদলী হন। তদন্তকারী কর্মকর্তা ইউসুফ আলী জানান, অবৈধ নিয়োগ-বাণিজ্যের অভিযোগ প্রমাণিত হলে অভিযুক্ত কর্মকর্তাসহ সংশ্লিষ্ট দোষী ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

ভোগান্তির আর এক নাম লালমনিরহাট-বুড়িমারী মহাসড়ক

নুরনবী সরকার, লালমনিরহাট প্রতিনিধি: ঈদে ঘরমুখো মানুষকে চরম ভোগান্তির শিকার হতে হচ্ছে ...

উন্নয়নে নৌকার বিকল্প নেই-এমপি মোতাহার

নুরনবী সরকার, লালমনিরহাট প্রতিনিধি ঃ উন্নয়নে নৌকার বিকল্প কোন মার্কা নেই উল্লেখ ...