ব্রেকিং নিউজ
Home | বিবিধ | আইন অপরাধ | বিএনপি নেতা ইলিয়াস আলীর বন্ধ সিম সচল করে তার পরিবার থেকে ৫০ হাজার টাকা মুক্তিপন আদায়

বিএনপি নেতা ইলিয়াস আলীর বন্ধ সিম সচল করে তার পরিবার থেকে ৫০ হাজার টাকা মুক্তিপন আদায়

ilias aliস্টাফ রিপোর্টার: অত্যাধুনিক প্রযুক্তি ও মোবাইল সফটওয়্যার ব্যবহার করে নিখোঁজ নেতাদের বন্ধ সিম চালু করে পরিবারের কাছ থেকে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে একটি প্রতারক চক্র। তেমনি একটি প্রতারক চক্র র‌্যাবের হাতে ধরা পড়ার পর বেরিয়ে আসে এই প্রতারকচক্রের অর্থ হাতিয়ে নেওয়ার অনেক চাঞ্চল্যকর তথ্য। গত বৃহস্পতিবার রাতে মিরপুর-১ নম্বর রসায়ন রেস্টুরেন্টের সামনে অভিযান চালিয়ে প্রতারক চক্রের ছয় সদস্যকে গ্রেফতার করে র‌্যাব। গ্রেফতারের সময় তাদের কাছ থেকে প্রতারণায় ব্যবহৃত বিপুল পরিমাণ দামি মোবাইল ফোনসেট, সিম কার্ড, ল্যাপটপ, মনিটর, মডেমসহ একটি অত্যাধুনিক মোবাইল ডায়ালার সফটওয়্যার ও ভিওআইপি সফটওয়্যার উদ্ধার করা হয়।
এই প্রতারক চক্র নিখোঁজ বিএনপি নেতা ইলিয়াস আলীর বন্ধ সিম সচল করে তার পরিবার থেকে ৫০ হাজার টাকা হাতিয়ে নিয়েছে বলে জানা গেছে। র‌্যাব জানায়, এরা নিখোঁজ বিএনপি নেতা এম ইলিয়াস আলীর বন্ধ ফোন সচল করার পর তা দিয়ে পরিবারের সদস্যদের কাছে ফোন করে। এম ইলিয়াস আলী তাদের হেফাজতে রয়েছে, এমন তথ্য দিয়ে তারা মুক্তিপণ দাবি করে। ইলিয়াস আলীর পরিবার নিখোঁজ ইলিয়াসের সিম খোলা পেয়ে বিষয়টি বিশ্বাস করে। মুক্তিপণ হিসেবে তারা ইলিয়াস আলীর পরিবারের কাছ থেকে ৫০ হাজার টাকা দাবি করলে তারা দিতে রাজি হয়। পরে প্রতারক চক্রটি টাকা নিয়ে সটকে পড়ে। এভাবেই তারা যশোরের আওয়ামী লীগ নেতা তুহিনের পরিবারের কাছ থেকে ৪ লাখ ৫০ হাজার টাকা এবং নারায়ণগঞ্জের নিখোঁজ পারভেজের পরিবারের কাছ থেকে মোটা অঙ্কের টাকা হাতিয়ে নেয় এই চক্রটি।
তিনি আরও জানান, চক্রটি বিভিন্ন পুরনো পত্রিকা কেজি দরে কিনে নিখোঁজ সংবাদগুলো সংগ্রহ করত। সংশ্লিষ্ট পত্রিকায় ফোন দিয়ে নিখোঁজ পরিবারের মোবাইল ফোন নম্বর নিয়ে তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করত। পরে পরিবারের কাছ থেকে নিখোঁজ ব্যক্তির মোবাইল ফোন নম্বর সংগ্রহ করত। এরপর অত্যাধুনিক মোবাইল ডায়ালার সফটওয়্যার ও ভিওআইপি সফটওয়্যার ব্যবহার করে নিখোঁজ ব্যক্তির মোবাইল ফোন নম্বর থেকে পরিবারের কাছে ফোন করত। পরে নিজেদের আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী পরিচয় দিয়ে বলত, সংশ্লিষ্ট নিখোঁজ ব্যক্তিটি তাদের জিম্মায় আছে। এরপর মোটা অঙ্কের অর্থ দাবি করত। দাবিকৃত অর্থ দেওয়া হলেই নিখোঁজ ব্যক্তিকে ছেড়ে দেওয়া হবে। নিখোঁজ ব্যক্তির নম্বর থেকে ফোন পেয়ে তার পরিবার প্রতারণার ফাঁদে পা দিত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

ঈদে ঘরমুখো মানুষের ভিড় বাস টার্মিনালগুলোতে

স্টাফ রিপোর্টার : পবিত্র ঈদুল ফিতরের আর মাত্র কয়েকদিন বাকি। প্রিয়জনের সঙ্গে ...

বরিশাল-৩ আসনের প্রার্থিতা নিয়ে দুই ভাগ হয়ে গেছে স্থানীয় বিএনপি

স্টাফ রিপোর্টার : বিএনপির ‘ঘাটি’ বলে পরিচিত বরিশাল-৩ (বাবুগঞ্জ-মুলাদী) আসনে কাকে প্রার্থী ...