ব্রেকিং নিউজ
Home | আন্তর্জাতিক | নাশকতা সাজানো নাটক: বিএনপি

নাশকতা সাজানো নাটক: বিএনপি

স্টাফ রিপোর্টার, ২৭ মার্চ, বিডিটুডে ২৪ডটকম : বিএনপি ও ১৮ দল কখনও নাশকতা ও সন্ত্রাসে বিশ্বাস করে না বলে দাবি করেছে বিএনপি।

হরতালের শুরুতে বুধবার সকালে নয়াপল্টন দলীয় কার্যালয়ের মূল ফটকে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে বিএনপি নেতা সালাহ উদ্দিন এ দাবি করে বলেন, ‘হরতালের আগের দিন রাজধানীসহ সারাদেশে যে সব নাশকতার ঘটনা ঘটেছে তা সরকারের সাজানো নাটক। বিএনপি ও ১৮ দল কখনও নাশকতা ও সন্ত্রাসে বিশ্বাস করে না।’ সারাদেশে শান্তিপূর্ণ ও স্বতঃস্ফূর্তভাবে হরতাল পালিত হচ্ছে দাবি করেন তিনি।

সরকার র‌্যাব-পুলিশকে দলীয় কর্মী হিসেবে ব্যাবহার করছে অভিযোগ করে তিনি বলেন, ‘পুলিশ যে নাশকতার সাথে জড়িত তা ইতোমধ্যে প্রমাণিত হয়েছে। পুলিশ বিএনপির শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশে গুলি করে পণ্ড করে দিয়েছে। দলীয় কর্যালয়ে হামলা চালিয়ে নেতাকর্মীদের গ্রেপ্তার করেছে।’ এটা কোন ধরনের নাশকতা প্রশ্ন রাখেন তিনি।

পুলিশকে গুলি করা বন্ধের আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, ‘গুলি করা বন্ধ করুন। না হলে জনগণের টাকায় কেনা প্রতিটি গুলির হিসাব নেয়া হবে।’

তিনি বলেন, ‘সরকার জনমনে ভয়- ভীতি সৃষ্টি করতে ভ্রাম্যমাণ আদালত নামিয়েছে। এর আগেও তারা নামিয়েছিল। আমরা এর তীব্র নিন্দা জানাই।’

আদালতের সমালোচনা করে তিনি বলেন, ‘আদালত আজকে শুধু অন্ধই নয় বোবা ও বধিরে পরিণত হয়েছে। নেতাকর্মীদের মুক্তি না দিয়ে গণতন্ত্রের পায়ে ডাণ্ডাবেড়ি দিয়ে তাদেরকে আদালতে হাজির করা হয়েছে। রিমান্ডে নেয়া হয়েছে।’

হরতালের আগে বিএনপি রাজধানীসহ সারাদেশে সহিংসতা ঘটিয়েছে সরকার ও পুলিশের এমন অভিযোগের প্রেক্ষিতে তিনি এসব কথা জলেন।

অপর এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘বিএনপি কার্যালয় খোলা আছে। এখানে না এসে নেতাকর্মীদের যার যার এলাকায় অবস্থান করে হরতাল সফল করার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।’

বিএনপির এই যুগ্ম-মহাসচিব বলেন, ‘এভাবে গণতন্ত্রের কবর রচনা করে, সারাদেশকে শশ্মানে পরিণত করে সরকার বাংলাদেশকে গণতন্ত্রহীন করতে চায়।’
প্রধানমন্ত্রীসহ সরকারের লোকজন যে ভাষায় কথা বলছে তা গণতন্ত্রের ভাষা নয়। আমরা গণতন্ত্রে বিশ্বস করি ও কথা বলি। সরকার যদি গণতন্ত্রের লাইনে আসে তাহলে ভালো, না হলে জনগণ সরকারকে গণতন্ত্রের ভাষা বুঝিয়ে দেবে।’

জনগণের যে গণআন্দোলন শুরু হয়েছে তাতে এ সরকারের পতন হবে দাবি করে তিনি বলেন, ‘জনগণের ন্যায্য দাবিতে যে আন্দোলন শুরু হয়েছে তা কখনও বৃথা যাবে না। দেশবাসীর তীব্র আন্দোলনের মুখে এ সরকারের পতন হবে।’

সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, ‘নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের দাবি মেনে নিন, নির্বাচন দিন, দেশে শন্তি ফিরিয়ে আনুন।’

এদিকে হরতালের শুরুতে সকাল ৬টায় বিএনপি কার্যালয়ে একাই আসেন দলের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। সকাল থেকেই দলীয় কার্যালয়ের মূল ফটক তালাবদ্ধ রয়েছে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত কোনো নেতাকর্মীকে দলীয় কার্যালয়ে আসতে-যেতে দেখা যায়নি।
ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, যুগ্ম-মহাসচিব সালাহ উদ্দিন আহমেদ ও অফিসের কর্মচারীসহ ১০-১২ জন বর্তমানে বিএনপি অফিসে অবস্থান করছেন।

সকাল থেকে নয়াপল্টন এলাকায় কোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। এ এলাকায় আইনশৃঙ্খলাবাহিনীর সদস্য ও সংবাদকর্মীদের উপস্থিতি চোখে পড়ার মতো। এছাড়া বিএনপি অফিসের কাছেই রাখা হয়েছে পুলিশের জলকামান, রায়ট কার।

x

Check Also

‘গ্রেটার সিলেট এসোসিয়েশন ইন স্পেন’ নির্বাচনে মুজাক্কির – সেলিম প্যানেল বিজয়ী

জিয়াউল হক জুমন, স্পেন প্রতিনিধিঃ সিলেট বিভাগের চারটি জেলা নিয়ে গঠিত গ্রেটার ...

পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর সাথে পর্তুগাল আওয়ামী লীগের মতবিনিময় সভা

আনোয়ার এইচ খান ফাহিম ইউরোপীয় ব্যুরো প্রধান, পর্তুগালঃ পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মোঃ শাহরিয়ার ...