Home | ফটো সংবাদ | দেশে মানসম্মত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের অভাব : শিক্ষামন্ত্রী

দেশে মানসম্মত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের অভাব : শিক্ষামন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার :  শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেছেন, আমাদের যথেষ্ট শিক্ষা প্রতিষ্ঠান রয়েছে। এসএসসি উত্তীর্ণ সবাই যদি কলেজে ভর্তি হয় তারপরও সাত লাখ আসন ফাঁকা থাকবে।

তিনি বলেন, আমাদের কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ের অভাব নেই। অভাব রয়েছে মানসম্মত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের। তাই সবাই নামীদামি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ভিড় করে। এজন্য সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানকে অভিভাবকদের আস্থা অর্জন করতে হবে। তাহলে শিক্ষার্থীর অভাব হবে না।

বুধবার দুপুরে যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শারীরিক শিক্ষা এবং ক্রীড়া বিজ্ঞান বিভাগ আয়োজিত দুই দিনের আন্তর্জাতিক সেমিনারের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন মন্ত্রী।

যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. আবদুস সাত্তারের সভাপতিত্বে সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে শিক্ষামন্ত্রী বর্তমান সরকারের উন্নয়ন কর্মকাণ্ডের চিত্র তুলে ধরেন। তিনি বলেন, সরকার শিক্ষাখাতকে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দিয়েছে। এবার বছরের প্রথম দিন আমরা ৩৬ কোটি বই বিনামূল্যে শিক্ষার্থীদের হাতে তুলে দেবো। বিশ্বের কোনো দেশে এমন নজির নেই।

বর্তমান সরকারের সময় দেশ খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ হয়েছে। আমরা এখন উদ্বৃত্ত খাদ্যের দেশ। অথচ এক সময় এদেশের মানুষ তিন বেলা পেট ভরে খেতে পেত না। স্বাস্থ্য, শিক্ষা, খাদ্যসহ সব সেক্টরে উন্নয়নের কারণে বর্তমান বিশ্ব এখন স্বীকার করে ২০২১ সালে আমরা মধ্যম আয়ের দেশ এবং ২০৪১ সালে উন্নত দেশের কাতারে দাঁড়াতে পারবো।

তবে এজন্য আমাদের তরুণ প্রজন্মকে মাথা তুলে দাঁড়াতে হবে। আধুনিক ও যুগোপযোগী শিক্ষায় তাদের শিক্ষিত হয়ে দেশকে এগিয়ে নিতে হবে। পাশাপাশি তাদের দেশপ্রেম ও নৈতিক শিক্ষায় শিক্ষিত হতে হবে।

মন্ত্রী এসময় শারীরিক শিক্ষা ও ক্রীড়া বিজ্ঞান বিভাগের গুরুত্ব তুলে ধরেন। তিনি বলেন, উচ্চ শিক্ষা স্তরে এ বিষয়টি এগিয়ে নিতে সেমিনারের বিশেষজ্ঞদের মতামত, পরামর্শ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। সেমিনারের অর্জিত জ্ঞান উচ্চ শিক্ষা প্রসারে প্রয়োগ করতে হবে।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ই প্রথম শারীরিক শিক্ষা ও ক্রীড়া বিজ্ঞান বিভাগ চালু করেছে। এরপর আরও কয়েকটি বিশ্ববিদ্যালয় এই বিভাগ চালু করেছে। সার্বিক দিক থেকে নতুন প্রজন্মের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে এই বিশ্ববিদ্যালয় প্রথম স্থানে রয়েছে।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন আয়োজক কমিটির সদস্য সচিব ও স্বাস্থ্য বিজ্ঞান অনুষদের ডিন ড. নাসিম রেজা। এসময় উপস্থিত ছিলেন সেমিনার আয়োজক কমিটির সভাপতি প্রফেসর ড. সুদর্শন ভৌমিক। দুই দিনব্যাপী আন্তর্জাতিক এই সেমিনারের দেশ-বিদেশের প্রায় ৩০০ ডেলিগেট অংশগ্রহণ করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

বেশি নিরপেক্ষতা দেখাতে গিয়ে ইসি নিষ্ঠুর আচরণ করছে

স্টাফ রিপোর্টার :  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার রাজনৈতিক উপদেষ্টা এইচটি ইমাম বলেছেন, কুমিল্লা ...

আন্তর্জাতিক দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা সম্মেলন ডিসেম্বরে

স্টাফ রিপোর্টার :  বাংলাদেশে প্রতিবন্ধিতা ও দুর্যোগ ঝুঁকি ব্যবস্থাপনা বিষয়ক দ্বিতীয় আন্তর্জাতিক ...