Home | বিবিধ | কৃষি | দিনাজপুরে বিদ্যুতের মূল্য বাড়ায় কৃষকরা হতাশ

দিনাজপুরে বিদ্যুতের মূল্য বাড়ায় কৃষকরা হতাশ

dhan photoমাহিদুল ইসলাম রিপন দিনাজপুর প্রতিনিধি ঃ দিনাজপুর জেলায় সব্জিসহ উৎপাদিত কৃষি পণ্যের ন্যায্য মূল্য না পেয়ে স্থানীয় কৃষকরা হতাশ হয়েছে। লোকসান পুষিয়ে নিতে বোরো চাষের জন্য কঠোর পরিশ্রম চালিয়ে যাচ্ছে। কিন্তুু এরই মধ্যে বিদ্যুতের দাম আরো এক দফা বৃদ্ধি হয়ে স্বপ্ন পূরনে শঙ্কিত হয়ে বেদনায় মলিন হতে যাচ্ছে কৃষকদের মুখের হাসি। জেলার বীরগঞ্জ উপজেলার নিজপাড়া ইউনিয়নের দামাইত্রে গ্রামের আনোয়ার হোসেনসহ জেলার বিভিন্ন আলু চাষে তিগ্রস্তু কৃষদের সাথে কথা বলে জানাযায়, আলু চাষ করে যে পরিমান তি হয়েছে তা পুষিয়ে নেওয়ার ল্য নিয়ে বোরো ধান রোপন করে কৃষকরা। বোরো ধান রোপন করার পর হঠাৎ আরেক দফা বিদ্যুতের দাম বাড়ার সংবাদ শুনে হতাশ হয়ে যায়। বিদ্যুতের দাম বাড়ায় এবার বোরো ধান উৎপাদনে অধিক খরচও বৃদ্ধি পাচ্ছে। তাই ফসল উৎপাদনের পর ন্যায্য মূল্য না পাওয়া গেলে আলুর মতো বোরো ধান উৎপাদনে লোকসান গুনতে হবে চাষীদের। বিদ্যুতের দাম আরো এক দফা বাড়ায় আলু চাষে তি হওয়ার শঙ্কাটি মনের মধ্যে থেকেই গেছে। দিনাজপুর জেলা কৃষি অফিসার আনোয়ারুল ইসলাম জানান, এবার জেলায় বোরো আবাদের ল্যমাত্রা ১ লাখ ৭৫ হাজার ৮৫২ হেক্টর জমিতে বোরো আবাদের ল্যমাত্রা নির্ধারন করা হয়েছে।অনুকুল আবহাওয়া থাকলে এবং চাহিদা অনুযায়ী বিদ্যুত সরবরাহ থাকে তাহলে লাভজনক উৎপাদন হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। বিদ্যুতের দাম বাড়ানো নিয়ে কোন চিন্তুার কোন কারন নেই। যদি সঠিক ফলন ও কৃষদের উৎপাদিত ফসলের ন্যায্য মূল্য নিশ্চিত করা যায় তাহলে শঙ্কার কোন কারন নেই। তবে ভালো ফলনের লে কৃষকদের সচেতন ও যতন্তুশীল হতে হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

তিস্তার চরাঞ্চলে আগাম জাতের আলুক্ষেত

আলতাফ হোসেন সরকার, রাজারহাট (কুড়িগ্রাম) : কুড়িগ্রামের রাজারহাটে তিস্তার চরাঞ্চলে কৃষকরা আগাম জাতের ...

ফুলবাড়ীতে চলতি বছর ২ হাজার ৫শ হেক্টর জমিতে আলুর চাষ

মোঃ আফজাল হোসেন, ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) : দিনাজপুরের ফুলবাড়ী পৌরসভা সহ ৭টি ইউনিয়নে ...