ব্রেকিং নিউজ
Home | ব্রেকিং নিউজ | তিনটি তত্ত্বীয় কোর্সে ডি গ্রেড পেলেই দ্বিতীয় বর্ষে উত্তীর্ণ হবেন শিক্ষার্থীরা

তিনটি তত্ত্বীয় কোর্সে ডি গ্রেড পেলেই দ্বিতীয় বর্ষে উত্তীর্ণ হবেন শিক্ষার্থীরা

national university logoস্টাফ রিপোর্টার : সার্বিক শিক্ষার পরিবেশ ও শিক্ষার্থীদের কথা বিবেচনা করে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ স্নাতক (সম্মান) শ্রেণিতে গ্রেডিং পদ্ধতিতে প্রমোশনসহ অন্য বিষয়ে নিয়ম-নীতি যুগোপযোগী ও আধুনিকীকরণ করার লক্ষ্যে বিদ্যমান রেগুলেশন সংশোধন করে নিম্নবর্ণিত রেগুলেশন করা হয়েছে।

 

সংশোধিত রেগুলেশনে প্রথম বর্ষে কমপক্ষে তিনটি তত্ত্বীয় কোর্সে ডি গ্রেড পেলেই দ্বিতীয় বর্ষে উঠতে পারবে শিক্ষার্থীরা।

 

প্রথম, দ্বিতীয়, তৃতীয় বা চতুর্থ বর্ষে এফ গ্রেড পাওয়া কোর্সগুলো ভর্তির ছয় শিক্ষাবর্ষের মধ্যে অবশ্যই ডি বা উচ্চতর গ্রেডে উন্নীত করতে হবে। তবে এফ গ্রেড প্রাপ্ত কোর্স পরীক্ষার মাধ্যমে উন্নীত করার ক্ষেত্রে ফলাফল যাই হোক না কেন, একজন পরীক্ষার্থী সর্বোচ্চ বি+ গ্রেড এর বেশি প্রাপ্য হবে না। আবার কোনো কোর্সে এফ গ্রেড থাকলে পরীক্ষার্থী অনার্স ডিগ্রি পাবে না। তবে রেজিস্ট্রেশন মেয়াদ শেষে কোনো পরীক্ষার্থী একাধিক এফ গ্রেডসহ ন্যূনতম ১০০ ক্রেডিট অর্জন করলে তাকে পাস ডিগ্রি দেয়া হবে।

 

বৃহস্পতিবার জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ, তথ্য ও পরামর্শ দফতরের  ভারপ্রাপ্ত পরিচালক  মো. ফয়জুল করিম  স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়।

 

মো. ফয়জুল করিম জানান, সম্প্রতি অনুষ্ঠিত একাডেমিক কাউন্সিল ও সিন্ডিকেট মিটিংয়ের মাধ্যমে এসব সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

 

বিএ, বিএসএস এবং বিবিএস এর ক্ষেত্রে: 

প্রথম বর্ষ থেকে দ্বিতীয় বর্ষে প্রমোশনের জন্য কমপক্ষে তিনটি তত্ত্বীয় কোর্সে ন্যূনতম  ডি গ্রেড, দ্বিতীয় বর্ষ থেকে তৃতীয় বর্ষে ৫০ ভাগ কোর্সে অর্থাৎ ন্যূনতম তিনটি তত্ত্বীয় কোর্সে ডি গ্রেড, তৃতীয় বর্ষ থেকে চতুর্থ বর্ষে  প্রমোশনের জন্য ৫০ ভাগ কোর্সে অর্থাৎ ন্যূনতম চারটি তত্ত্বীয় কোর্সে ডি গ্রেড পেতে হবে।

 

বিএসসি এর ক্ষেত্রে:

প্রথম বর্ষ থেকে দ্বিতীয় বর্ষে প্রমোশনের জন্য কমপক্ষে তিনটি তত্ত্বীয় কোর্সে ন্যূনতম  ডি গ্রেড, দ্বিতীয় বর্ষ থেকে তৃতীয় বর্ষে প্রমোশনের জন্য কমপক্ষে তিনটি তত্ত্বীয় কোর্সে ন্যূনতম  ডি গ্রেড, তৃতীয় বর্ষ থেকে চতুর্থ বর্ষে প্রমোশনের জন্য কমপক্ষে চারটি তত্ত্বীয় কোর্সে ন্যূনতম ডি গ্রেড, পেতে হবে।

 

অন্য বিধান:

প্রথম, দ্বিতীয়, তৃতীয় বা চতুর্থ বর্ষে এফ গ্রেড পাওয়া কোর্সগুলো ভর্তির ছয় শিক্ষাবর্ষের মধ্যে অবশ্যই ডি বা উচ্চতর গ্রেডে উন্নীত করতে হবে। তবে এফ গ্রেড প্রাপ্ত কোর্স পরীক্ষার মাধ্যমে উন্নীত করার ক্ষেত্রে ফলাফল যাই হোক না কেন, একজন পরীক্ষার্থী সর্বোচ্চ বি+  গ্রেড এর বেশি প্রাপ্য হবে না।

 

উল্লেখ্য যে, কোনো কোর্সে এফ গ্রেড থাকলে পরীক্ষার্থী অনার্স ডিগ্রি পাবে না। তবে রেজিস্ট্রেশন মেয়াদ শেষে কোনো পরীক্ষার্থী একাধিক এফ গ্রেডসহ ন্যূনতম ১০০ ক্রেডিট অর্জন করলে তাকে পাস ডিগ্রি দেয়া হবে।

 

২০১২-১৩ শিক্ষাবর্ষের পর থেকে স্নাতক (সম্মান) শ্রেণির প্রথম, দ্বিতীয়, তৃতীয় ও চতুর্থ বর্ষের প্রত্যেক তত্ত্বীয় কোর্সের ১০০ নম্বরের মধ্যে ইন-কোর্স পরীক্ষা ২০ ভাগ নম্বরে এবং তত্ত্বীয় ফাইনাল পরীক্ষা ৮০ ভাগ নম্বরে এবং  ২০০৯-১০ শিক্ষাবর্ষের জন্য তৃতীয় ও চতুর্থ বর্ষে, ২০১০-১১ ও ২০১১-১২ শিক্ষাবর্ষে দ্বিতীয়, তৃতীয় ও চতুর্থ বর্ষের তত্ত্বীয় কোর্সে প্রতি ১০০ নম্বরের মধ্যে ইন-কোর্স পরীক্ষা ২০ ভাগ নম্বরে এবং তত্ত্বীয় ফাইনাল পরীক্ষা ৮০ ভাগ নম্বরে অনুষ্ঠিত হবে। প্রত্যেক বর্ষের ক্লাস শুরু থেকে ১৫ সপ্তাহের মধ্যে প্রতিটি কোর্সের অর্ধেক পাঠ্যসূচি শেষ করে পঠিত অংশের ওপর কোর্স শিক্ষককে একটি ইন-কোর্স পরীক্ষা গ্রহণ করতে হবে। একইভাবে পরবর্তী ১৫ সপ্তাহের মধ্যে পাঠ্যসূচির বাকি অর্ধেক শেষ করে এ অংশের ওপর আর একটিসহ মোট দুটি ইন-কোর্স পরীক্ষা গ্রহণ করতে হবে। অভ্যন্তরীণভাবে উত্তরপত্র মূল্যায়ন করে ইন-কোর্স পরীক্ষার প্রাপ্ত নম্বরপত্রের এক কপি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সংশ্লিষ্ট উপ-পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক এর কাছে পাঠাতে হবে এবং এক কপি সংশ্লিষ্ট বিভাগীয় প্রধানের অফিসে সংরক্ষণ করতে হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

মদনে জাতীয় সমবায় দিবস পালিত

সুদর্শন আচার্য্য, মদন (নেত্রকোণা)ঃ বঙ্গবন্ধুর দর্শন, সমবায়ে উন্নয়ন এই প্রতিপাদ্যটি সামনে রেখে ...

পর্তুগালে মুক্তি পাচ্ছে বাংলাদেশী সিনেমা “হাওয়া”

পর্তুগাল প্রতিনিধিঃ ১৫ই অক্টোবর হাওয়া পর্তুগালে বানিজ্যিক ভাবে মুক্তি পাচ্ছে বাংলাদেশী সিনেমা ...