Home | শেয়ার বাজার | ডিএসই-সিএসই তে সূচক ও লেনদেন কমেছে

ডিএসই-সিএসই তে সূচক ও লেনদেন কমেছে

dse cse logo ঢাকা ও চট্টগ্রাম স্টক একচেঞ্জস্টাফ রিপোর্টার : সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবস দেশের উভয় শেয়ারবাজারে সূচকের পতনের মধ্যে দিয়ে লেনদেন শেষ হয়েছে। কমেছে বেশিরভাগ কোম্পানির শেয়ার দর। একই সঙ্গে টাকার পরিমাণে লেনদেনও। প্রধান বাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) ব্রড ইনডেক্স কমেছে ৬০ পয়েন্ট আর লেনদেন হয়েছে ৪১৪ কোটি টাকার। এর আগে সকাল সাড়ে ১০টায় সূচকের উত্থানে শুরু হয় লেনদেন। যা মাত্র ৪০ মিনিটের মাথায় পতনে রূপ নেয়। আর এ পতন প্রবণতা অব্যাহত থেকেই শেষ হয়েছে সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবসের লেনদেন।

ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) ব্রড ইনডেক্স ৬০ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ৪০৩৬ পয়েন্টে। ডিএসইতে মোট ২৯১টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে দর বেড়েছে ৭৩টি, কমেছে ১৯৬টি আর অপরিবর্তিত রয়েছে ২২টি কোম্পানির শেয়ারের। টাকার পরিমাণে মোট লেনদেন হয়েছে ৪১৪ কোটি ৯৪ লাখ টাকার।

চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সূচক ৯৯ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ৭৮৮৩ পয়েন্টে। সিএসইতে মোট ২২০টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে দর বেড়েছে ৫৪টির, কমেছে ১৪৮টির আর অপরিবর্তিত রয়েছে ১৮টি কোম্পানির শেয়ারের। টাকার পরিমাণে মোট লেনদেন হয়েছে ৩৬ কোটি ৪৬ লাখ টাকার।

গত বৃহস্পতিবার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের ব্রড ইনডেক্স কমেছিলো ১৮ পয়েন্ট। এদিন মোট লেনদেন হয় ৪৮৫ কোটি ১৯ লাখ টাকার।

লেনদেনের ৯০ মিনিটে ডিএসইর ব্রড ইনডেক্স ২১ পয়েন্ট কমে অবস্থান করে ৪০৭৬ পয়েন্টে। এ সময় মোট ২৬৬টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের লেনদেন হয়। এর মধ্যে দর বাড়ে ১০৯টি, কমে ১২৪টি আর অপরিবর্তিত থাকে ৩৩টি কোম্পানির শেয়ারের। মোট লেনদেন হয় ১৫১ কোটি ৮০ লাখ টাকার। দুপুর বারোটায় সিএসইর সূচক ২৩ পয়েন্ট কমে অবস্থান করে ৭৯৫৯ পয়েন্টে। এসময় মোট ১৫৮টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের লেনদেন হয়। এর মধ্যে দর বাড়ে ৬০টির, কমে ৮০টির আর অপরিবর্তিত থাকে ১৮টি কোম্পানির শেয়ারের। মোট লেনদেন হয় ১৩ কোটি ৭০ লাখ টাকার।

লেনদেনের ৬০ মিনিটে ডিএসইর ব্রড ইনডেক্স ১৯ পয়েন্ট কমে অবস্থান করে ৪০৭৮ পয়েন্টে। এ সময় মোট ২৪৬টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের লেনদেন হয়। এর মধ্যে দর বাড়ে ১১১টি, কমে ১০০টি আর অপরিবর্তিত থাকে ৩৫টি কোম্পানির শেয়ারের। মোট লেনদেন হয় ১০৩ কোটি ৪০ লাখ টাকার। সকাল সাড়ে ১১টায় সিএসইর সূচক ৬ পয়েন্ট কমে অবস্থান করে ৭৯৭৬ পয়েন্টে। এসময় মোট ১৩৯টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের লেনদেন হয়। এর মধ্যে দর বাড়ে ৬১টির, কমে ৬২টির আর অপরিবর্তিত থাকে ১৬টি কোম্পানির শেয়ারের। মোট লেনদেন হয় ১০ কোটি ২০ লাখ টাকার।

ডিএসইতে লেনদেনের ৩০ মিনিটে ব্রড ইনডেক্স ৩ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করে ৪১০১ পয়েন্টে। এ সময় মোট ২১১টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের লেনদেন হয়। এর মধ্যে দর বাড়ে ১২২টি, কমে ৫৯টি আর অপরিবর্তিত থাকে ৩০টি কোম্পানির শেয়ারের। মোট লেনদেন হয় ৫০ কোটি ৪০ লাখ টাকার। একই সময়ে সিএসইর সূচক ২২ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করে ৮০০৫ পয়েন্টে। এসময় মোট ৯৬টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের লেনদেন হয়। এর মধ্যে দর বাড়ে ৬৩টির, কমে ২৬টির আর অপরিবর্তিত থাকে ৭টি কোম্পানির শেয়ারের। মোট লেনদেন হয় ৩ কোটি ৮০ লাখ টাকার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

পুঁজিবাজারে বেড়েছে লেনদেন ও শেয়ারের দর

স্টাফ রিপোর্টার : সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবস রোববার (১৯ মে) বড় উত্থানের মধ্য দিয়ে ...

পুঁজিবাজারে ৪ দিন পর বাড়লো সূচক ও লেনদেন

স্টাফ রিপোর্টার : সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস বৃহস্পতিবার উত্থানের মধ্য দিয়ে শেষ হয়েছে উভয় ...