Home | অর্থনীতি | ঝাঁজ বেড়েছে আদা-পেঁয়াজের

ঝাঁজ বেড়েছে আদা-পেঁয়াজের

স্টাফ রিপোর্টার :  রাজধানীর বাজারগুলোতে সপ্তাহের ব্যবধানে মাংসের অত্যাবশ্যকীয় মসলা আদা ও পেঁয়াজের দাম হঠাৎ বেড়ে গেছে। পবিত্র ঈদুল আজহাকে সামনে রেখে আদার দাম কেজিতে ৬০ টাকা বেড়েছে। এ ছাড় পেঁয়াজের দাম বেড়েছে ১৫-২০ টাকা পর্যন্ত। রাজধানীর রামপুরা ও মেরাদিয়া বাজার ঘুরে দেখা গেছে, ৮০ টাকার আদা বিক্রি হচ্ছে ১৪০ টাকায়। এবং ২০ টাকার পেঁয়াজ ৩৫-৪০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। এ ছাড়া গত সপ্তাহের তুলনায় মিনিকেট ও নাজিরশাইল চালের দামও বেড়েছে।

শনিবার রাজধানীর মেরাদিয়া বাজারের ব্যবসায়ী সাব্বির আহমেদ জানান, পণ্য বাজারে সবচেয়ে লাগামহীন এখন আদার বাজার। গত ৫ থেকে ৭ দিনে এ মসলা পণ্যের কেজিতে দাম বেড়েছে ৬০ টাকা। ঈদুল আজহাকে সামনে রেখে আরো বাড়তে পারে আদার দাম।

তিনি বলেন, একই সঙ্গে বাজারে ভারতীয় ও দেশি সব ধরনের পেঁয়াজের দাম বেড়ে প্রায় দ্বিগুণ হয়েছে। গত সপ্তাহে ২৫ টাকায় বিক্রি হওয়া দেশি পেঁয়াজ এ সপ্তাহে বিক্রি হচ্ছে ৪৫ টাকায়। ২০ টাকার ইন্ডিয়ান পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৩৫ টাকায়। চালের বাজারের মধ্যে মোটা চাল গত সপ্তাহের দামে স্থিতিশীল থাকলেও বেড়েছে মিনিকেট ও নাজিরশাইলের দাম কেজিতে ১ থেকে ২ টাকা বেড়েছে। রসুন বিক্রি হচ্ছে ভারতীয় ১২০ টাকায় আর দেশি ৯০ টাকায়।

সবজির বাজার ঘুরে দেখা গেছে, গত সপ্তাহের মতো বাড়তি ধরে বিক্রি হচ্ছে প্রায় সব ধরনের সবজি। বিক্রতারা বলছেন, বন্যার কারণে সবজির উৎপাদন ও সরবরাহ কমেছে। এ কারণে বাড়তি দামে বিক্রি করতে হচ্ছে সবজি। প্রতি কেজি বেগুনের দাম বেড়ে ৬০-৮০ টাকায়, কাঁচা মরিচ ২০০, শিমের কেজি ১২০, টমেটো মানভেদে ১০০ থেকে ১৬০ টাকা, শশা ৫০, চাল কুমড়া ৫০-৫৫, কচুর লতি ৬৫, পটল ৬০, ঢেঁড়স ৬০, ঝিঙ্গা ৬০, চিচিঙ্গা ৬০, করলা ৫৫, কাকরোল ৫০, পেঁপে ৪০-৫০, কচুরমুখী ৫০, আলু ২৫ টাকা, ফুলকপি ও বাঁধাকপি আকার ভেদে ৪০ থেকে ৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। এ ছাড়া লেবু হালি প্রতি ২০ থেকে ৪০ টাকা, পালং শাক আঁটি প্রতি ২০ টাকা, লালশাক ২০, পুঁইশাক ও লাউশাক ৩০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

মাছ ও মাংসের বাজার ঘুরে দেখা গেছে, প্রতি কেজি রুই মাছ আকার ভেদে ২৫০-৩৫০ টাকা, কাতল মাছ ৩০০ থেকে ৩৫০, সরপুঁটি ৩৫০-৪০০, তেলাপিয়া ১৪০-১৮০, সিলভার কার্প ২০০-২৫০, চাষের কৈ ২৫০-৩৫০, পাঙ্গাস ১৫০-২৫০, টেংরা ৬০০, মাগুর ও শিং ৬০০-৮০০, আকার ভেদে চিংড়ি ৪০০-৮০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। মাংসের বাজার গত সপ্তাহের মতো স্থিতিশীল আছে। গরুর মাংস বিক্রি হচ্ছে ৫০০ টাকা কেজি, খাসি ৭২৫ থেকে ৭৮০ টাকা, ব্রয়লার সাদা মোরগ প্রতি কেজি ১৬০ টাকা, লাল ১৮০ টাকা, কক হালি ৭০০ থেকে ১২০০ টাকা এবং দেশীয় জাতের মোরগ বিক্রি হচ্ছে ৩৫০ থেকে ৩৭০ টাকায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

ষোড়শ সংশোধনী বাতিল: রায়ের সত্যায়িত কপি চেয়ে রাষ্ট্রপক্ষের আবেদন

স্টাফ রিপোর্টার :  সংবিধানের সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী অবৈধ ঘোষণা করে আপিল বিভাগের ...

তসলিমার ‘পর্ন’ প্রকাশ করায় ওলামা লীগ নেতার লিগ্যাল নোটিশ

স্টাফ রিপোর্টার :  নির্বাসিত লেখিকা তসলিমা নাসরিনের ‘পর্ন’ শিরোনামে একটি নিবন্ধ প্রকাশ ...