ব্রেকিং নিউজ
Home | ফটো সংবাদ | জোটের শীর্ষ নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করেছেন খালেদা জিয়া

জোটের শীর্ষ নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করেছেন খালেদা জিয়া

স্টাফ রিপোর্টার : প্রায় চার মাস পর জোটের শীর্ষ নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করেছেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। এতে তাঁর সাম্প্রতিক কক্সবাজার সফর, জোটের ঐক্য ধরে রাখা, নির্বাচন ও আন্দোলনের প্রস্তুতিসহ নানা বিষয়ে আলোচনা হয়েছে বলে জানা গেছে।

বুধবার রাত সাড়ে ৯টায় চেয়ারপারসনের গুলশানের রাজনৈতিক কার্যালয়ে এ বৈঠক শুরু হয়ে রাত পৌনে ১১টায় শেষ হয়। ২০ দলীয় জোটের শরিক দলগুলোর নেতাদের সঙ্গে বিএনপি চেয়ারপারসনের টানা প্রায় দুই ঘণ্টা বৈঠকে সাম্প্রতিক রাজনৈতিক বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা হয় বলে বৈঠক সূত্রে জানা গেছে।

বৈঠক শেষে নাম প্রকাশ না করার শর্তে জোটের শীর্ষ কয়েকজন নেতা  জানান, আগামী দিনের আন্দোলন ও নির্বাচনের প্রস্তুতি নিতে জোটের শরিকদের পরামর্শ দিয়েছেন খালেদা জিয়া। একইসঙ্গে যেকোনো মূল্যে ঐক্য ধরে রাখারও আহ্বান জানানো হয়। শরিক দলগুলোর নেতারা একমত পোষণ করে খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে আগামী দিনে নির্বাচন ও আন্দোলন করার প্রতিশ্রুতি দেন।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে একজন চেয়ারম্যান  বলেন, ‘জোটের শরিকরাও খালেদা জিয়ার সঙ্গে কাজ করার আশ্বাস দিয়েছেন। যেকোনো মূল্যে জোটের ঐক্য রক্ষার করার বিষয়টি আলোচনায় বেশ গুরুত্ব পেয়েছে।’

বৈঠকে আটটি বিভাগীয় শহর ও বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ জেলায় খালেদার সফর নিয়ে দীর্ঘ আলোচনা হয়েছে। এ সফর সিলেট দিয়ে ডিসেম্বরের দিকে শুরু হতে পারে। তবে এটা চূড়ান্ত হয়নি।

এছাড়া আসন্ন রংপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে অংশ নেয়ার ব্যাপারেও মোটামুটি সিদ্ধান্ত হয়েছে বলেও বৈঠক সূত্রে জানা গেছে।

বৈঠকে বিএনপি নেতা এম কে আনোয়ার ও আব্দুর রহমান বিশ্বাসের মৃত্যুতে শোক প্রস্তাব এবং জামায়াতে ইসলামীর আমিরসহ শীর্ষ নেতাদের গ্রেপ্তার ও রিমান্ড, জোটের শরিক দল কল্যাণ পার্টির মহাসচিব এমএম আমিনুর রহমান নিখোঁজ থাকায় নিন্দা প্রস্তাব করা হয়।

আগামীতে প্রধান বিচারপতি নিয়োগ দেয়ার ক্ষেত্রে জ্যেষ্ঠতা অনুসরণ ও সংবিধান সম্মতভাবে বিচারপতি নিয়োগে রাজনৈতিক চাপ প্রয়োগ করতে শরিক নেতাদের প্রতি আহ্বান জানান খালেদা জিয়া। কিছুদিনের মধ্যে বিষয়টি নিয়ে রাজধানীতে আইনজীবীদের নিয়ে সমাবেশ করার বিষয়েও আলোচনা হয়েছে।

বৈঠকে শরিক দলের একটি লেবার পার্টির কোন্দলের বিষয়টি নিয়ে আলোচনা হয়নি বলে জানা গেছে। তবে বৈঠক শেষে শরিক দলগুলোর কয়কজন নেতা মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের সঙ্গে কথা বলেন। এসময় মির্জা ফখরুল লেবার পার্টির দুই গ্রুপকে এক হয়ে জোটে রাখার চেষ্টার কথা বলেছেন বলে জানা গেছে।

বৈঠকে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, জামায়াতের আবদুল হালিম, জাতীয় পার্টি (জাফর) মোস্তফা জামাল হায়দার, খেলাফতে মজলিসের মাওলানা মোহাম্মদ ইসহাক, বিজেপির আন্দালিব রহমান পার্থ, লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টির রেদোয়ান আহমেদ, ইসলামী ঐক্যজোটের এম এ রকিব, জাগপা সভাপতি রেহানা প্রধান, এনডিপির চেয়ারম্যান গোলাম মোর্তুজা, এনপিপির সভাপতি ড. ফরিদুজ্জামান ফরহাদ, ন্যাপ ভাসানীর সভাপতি জেবেল রহমান গানি, বাংলাদেশ মুসলিম লীগের এ এইচ এম কামরুজ্জামান খান, ন্যাপ ভাসানীর আজহারুল ইসলাম, ইসলামিক পার্টির আবু তাহের চৌধুরী, জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের মুফতি মোহাম্মদ ওয়াক্কাস, সাম্যবাদী দলের সাঈদ আহমেদ, ডেমোক্রেটিক লীগের (ডিএল) সাইফুদ্দিন মনি প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। পাল্টাপাল্টি বহিষ্কারের কারণে বৈঠকে লেবার পার্টিকে আমন্ত্রণ জানানো হয়নি বলে জানা গেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

শুধু শহরে নয়, গ্রাম পর্যায়ে বিদ্যুৎ পৌঁছে দিতে চেষ্টা করছে সরকার:প্রধানমন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বিএনপি সরকার ষোলশ মেগাওয়াট বিদ্যুতের ...

তালাকের নোটিশ হাতে পেয়েছেন অপু

বিনোদন ডেস্ক : আইনজীবী শেখ সিরাজুল ইসলামের মাধ্যমে স্বামী শাকিব খানের পাঠানো ...